default-image

চট্টগ্রাম নগরে মুঠোফোন চুরির অভিযোগকে কেন্দ্র করে কিশোর গ্যাংয়ের ছুরিকাঘাতে এক কিশোর নিহত হয়েছে।

গতকাল সোমবার সন্ধ্যায় নগরের পাঁচলাইশ মোহাম্মদপুর এলাকায় ছুরিকাঘাতের এ ঘটনা ঘটে। ছুরিকাঘাতে আহত কিশোর রাতে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যায়।

নিহত কিশোরের নাম রফিকুল ইসলাম। বয়স ১৬। রফিকুল নগরের পাঁচলাইশ মোহাম্মদপুর এলাকার একটি অ্যালুমিনিয়াম কারখানায় কাজ করত।

পাঁচলাইশ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল কাশেম ভূঁইয়া প্রথম আলোকে বলেন, সপ্তাহখানেক আগে একটি মুঠোফোন চুরিকে কেন্দ্র করে স্থানীয় কিশোর গ্যাংয়ের সদস্য ইয়াসিন আরাফাতের নেতৃত্বে একদল কিশোরের সঙ্গে রফিকুলের কথা-কাটাকাটি হয়। এ সময় রফিকুলকে হত্যার হুমকি দেওয়া হয়। গতকাল সন্ধ্যায় ইয়াসিনের নেতৃত্বে একদল কিশোর পাঁচলাইশ মোহাম্মদপুর এলাকার সুলতান কলোনিতে এসে রফিকুলকে মারধর শুরু করে। একপর্যায়ে তাকে ছুরিকাঘাত করা হয়।

বিজ্ঞাপন

গুরুতর আহত অবস্থায় রফিকুলকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাতে তার মৃত্যু হয়।

পুলিশ জানায়, এ ঘটনায় রফিকুলের মা বাদী হয়ে ইয়াসিনসহ চারজনকে আসামি করে রাতেই পাঁচলাইশ থানায় মামলা করেন। ইয়াসিনকে পুলিশ গ্রেপ্তার করেছে। বাকি আসামিদের গ্রেপ্তারে অভিযান চলছে।

রফিকুলের মা জনেরা বিবি প্রথম আলোকে বলেন, ‘আমি মানুষের বাসায় কাজ করি। আমার ছেলে অ্যালুমিনিয়াম ফ্যাক্টরিতে কাজ করত। মুঠোফোন চুরির অপবাদ দিয়ে তারা (কিশোর গ্যাং) আমার ছেলেকে মেরে ফেলেছে। আমি এ হত্যার বিচার চাই। আর কোনো মায়ের বুক যেন খালি না হয়।’

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন