বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

নাম প্রকাশ না করার শর্তে বন্দরের এক কর্মকর্তা প্রথম আলোকে বলেন, সোমবারই তাঁরা জাহাজটি ছিদ্র হয়ে পানি ঢুকে পড়ার কথা জানতে পারেন। আজ বুধবার সকাল ১০টা পর্যন্ত সেটি বন্দরের জেটিতেই ছিল। সেখানে জাহাজ থেকে গাড়ি খালাসের কাজ চলছিল।

এর আগেও কয়েকবার মোংলা বন্দরে আমদানি করা গাড়ি খালাস করেছে ‘মালয়েশিয়া স্টার’। গাড়িগুলো খালাস করে এক দিন আগেই বন্দর ছেড়ে যাওয়ার কথা ছিল জাহাজটির।

জাহাজটি স্থানীয় শিপিং এজেন্ট ওহিদুজ্জামান আজ বুধবার সকালে মুঠোফোনে প্রথম আলোকে বলেন, জাহাজটিতে মোট ৬৩৯টি গাড়ি ছিল। এগুলো ঢাকা, চট্টগ্রাম ও খুলনার কয়েকজন আমদানিকারক এনেছেন। জাহাজটির নিচে একটি ছোট ছিদ্র হয়েছিল। গাড়ি খালাস করতে গিয়ে তাঁরা বিষয়টি টের পান। ১৬টি গাড়ি পানির মধ্যে ছিল। তবে পানি বের হয়ে গেছে। জাহাজ ঠিক হয়ে গেছে। আর কোনো সমস্যা নেই। কাল বৃহস্পতিবার জাহাজটি বন্দর ছেড়ে যাবে বলে জানান তিনি।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন