যমুনা সার কারখানার শ্রমিক ও ট্রাকচালক সূত্রে জানা গেছে, সার কারখানার শ্রমিক-কর্মচারী ইউনিয়নের (সিবিএ) নির্বাচনকে কেন্দ্র করে বৃহস্পতিবার কারখানার লোডিং শাখায় শ্রমিক শামীম মিয়াকে মারধর করেন শ্রমিক সরদার ও স্থানীয় পোগলদিঘা ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) সদস্য মোফাজ্জাল হোসেন ও তাঁর লোকজন। মোফাজ্জল শতাধিক শ্রমিক নিয়ে কারখানা থেকে বের হয়ে যান। পরে শামীমকে মারধরের খবর কারখানার বাইরে ছড়িয়ে পড়লে দুই পক্ষের মধ্যে পাল্টাপাল্টি ধাওয়া ও সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

বেলা সাড়ে ১১টার দিকে পুলিশ তারাকান্দি ট্রাক চালক শ্রমিক ইউনিয়ন কার্যালয়ের সামনে চালকদের ওপর লাঠিপেটা করলে চালক নাইম মিয়া আহত হন। ইউনিয়নের নেতারা তাৎক্ষণিকভাবে সভা ডেকে কারখানা থেকে অনির্দিষ্টকালের জন্য সার পরিবহন বন্ধ ঘোষণা করেন।

যমুনা সার কারখানা কোম্পানি লিমিটেডের ব্যবস্থাপক (বিক্রয়) মাহবুব-উল-আলম আজ শনিবার দুপুরে প্রথম আলোকে বলেন, কারখানা থেকে আবারও সার পরিবহন শুরু হয়েছে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন