বিজ্ঞাপন

যশোর পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, ইউনুস আলী গাজী ১৩ মে বেনাপোল ইমিগ্রেশন হয়ে ভারত থেকে দেশে ফেরেন। তিনি করোনায় আক্রান্ত ছিলেন। জেলা প্রশাসনের কর্মকর্তারা তাঁকে যশোর জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করেন। ভর্তির পর ওয়ার্ডে নিয়ে গেলে ইউনুস গাজী মোবাইলে কথা বলতে বলতে পালিয়ে যান। এরপর তিনি ঢাকায় গিয়ে একাধিক মুঠোফোন নম্বর ব্যবহার করে পরিবারের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করেন।

ইউনুস গাজীর মুঠোফোনের তথ্য ধরে যশোর ডিবি পুলিশ ঢাকা ও চাঁদপুরে অভিযান চালায়। সর্বশেষ তিনি বাড়িতে গিয়ে পরিবারের মাধ্যমে আত্মসমর্পণের জন্য চাঁদপুরের ফরিদগঞ্জ থানায় যোগাযোগ করেন। এরপর পুলিশ তাঁকে আটক করে স্থানীয় প্রশাসনের সহায়তায় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে কোয়ারেন্টিনে পাঠায়।

জানতে চাইলে যশোরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার বেলাল হোসাইন বলেন, চাঁদপুর পুলিশ ইউনুস আলীকে আটক করে কোয়ারেন্টিনে পাঠিয়েছে। ১৪ দিনের কোয়ারেন্টিন শেষে তাঁর বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন