বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

আহত চালক আরিফের বরাত দিয়ে আমানউল্যাহপুর ইউনিয়নের ৫ নম্বর ওয়ার্ডের বাসিন্দা মো. মাসুম প্রথম আলোকে বলেন, উবারের একটি গাড়ি ভাড়া করে বৃহস্পতিবার দুপুরে অজ্ঞাতনামা দুই যাত্রী ঢাকা থেকে রওনা হন। সন্ধ্যা ছয়টার দিকে গাড়িটি আমানউল্যাহপুর এলাকায় প্রবেশ করে। এরপর প্রায় দুই ঘণ্টা ওই দুই ব্যক্তি গাড়ি নিয়ে বিভিন্ন এলাকায় ঘোরেন।

মো. মাসুম জানান, রাত আটটার দিকে আমানউল্যাহপুর ইউনিয়নের ৫ নম্বর ওয়ার্ডের সোনামিয়া ব্যাপারী বাড়ির পাশের নির্জন স্থানে চালককে গাড়ি থামাতে বলেন ওই দুই ব্যক্তি। থামানো হলে তাঁরা চালককে মারধর করে গাড়ি নিয়ে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করেন। এ সময় চালকের চিৎকার শুনে তিনিসহ আশপাশের লোকজন এগিয়ে এলে ছিনতাইকারীরা পালিয়ে যায়। ঘটনার পর তিনিসহ আশপাশের লোকজন গুরুতর আহত অবস্থায় চালককে উদ্ধার করে চন্দ্রগঞ্জ ন্যাশনাল হাসপাতালে নিয়ে যান। সেখান থেকে আবার বেগমগঞ্জ থানায় এনে পুলিশকে বিষয়টি অবহিত করা হয়। পরে পুলিশের সহায়তায় তাঁকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

হাসপাতালে চিকিৎসায় সহায়তাকারী থানার উপপরিদর্শক (এসআই) জামাল হোসেন প্রথম আলোকে বলেন, ছিনতাইকারীদের মারধরে চালক আরিফ (৩২) গুরুতর আহত হয়েছেন। তাঁকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

বেগমগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মীর জাহিদুল হক প্রথম আলোকে বলেন, যাত্রী সেজে গাড়ি ভাড়া করে ঢাকা থেকে নোয়াখালীতে এনে গাড়ি ছিনতাইয়ের চেষ্টা হয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে তথ্য পাওয়া গেছে। আহত চালককে চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় জড়িত ব্যক্তিদের শনাক্ত করে আইনের আওতায় আনার চেষ্টা চলছে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন