বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

গতকাল সকালে দেখা যায়, দুই শতাধিক বিক্রেতা মাটিতে ত্রিপল বিছিয়ে তার ওপর পণ্য সাজিয়েছেন। আসন্ন দুর্গাপূজা ঘিরে বাজার সরগরম। শহরের বালুবাড়ি থেকে এসেছিলেন উরু বালা (৪৫)। ৮০০ টাকায় দুটি শাড়ি কেনেন তিনি।

বিক্রেতারা জানান, বউবাজারে বিভিন্ন কাপড়ের সেলাই করা থ্রি-পিস বিক্রি হয় ২৫০ থেকে ৭০০ টাকায়। এ ছাড়া জর্জেট, সুতি, বাটিক, শিফনের ওড়না ৭০-১৭০, বিভিন্ন রকমের শাড়ি ৩৫০ থেকে দেড় হাজার টাকায় বিক্রি হয়।

জীবন রহমান (৩৪) নামের এক বিক্রেতা বলেন, আগে সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত সর্বনিম্ন ৭ থেকে ৪০ হাজার টাকা পর্যন্ত বেচাবিক্রি হতো। এখন মানুষের হাতে টাকা নেই। সামনে দুর্গাপূজা অথচ বেচাবিক্রি নেই। বেলা ১১টা পর্যন্ত ১ হাজার ২০০ টাকার পণ্য বিক্রি করেন।

বউবাজারের ব্যবসায়ীরা মিলে গড়ে তুলেছেন দোকান কর্মচারী ইউনিয়ন। ইউনিয়নের সভাপতি বিমল আগরওয়াল বলেন, ইউনিয়নের সদস্য আছেন ১৩৮ জন। বাইরে থেকেও ভ্রাম্যমাণ কিছু ব্যবসায়ী আসেন। বেশ কিছুদিন দোকানগুলো বসেনি। চালু হলেও ব্যবসায় কিছুটা মন্দা যাচ্ছে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন