পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, রাঙামাটির আসামবস্তি-কাপ্তাই সড়কে বিলাইছড়িপাড়া ও মোরঘোনা এলাকার মাঝামাঝি স্থানে একটি সেতু নির্মাণ করা হচ্ছে। সেতুটি অর্ধেক কাজ ইতিমধ্যে শেষ হয়েছে। কয়েক দিন ধরে বাকি অংশটি নির্মাণের জন্য কাজ চলছে। সকালে যন্ত্র দিয়ে ঢালাইয়ের কাজ শুরু করার পর সেতুটি ধসে যায়।

এ সময় ঢালাইয়ের কাজের সঙ্গে জড়িত ২০ জন শ্রমিক সেতু থেকে পড়ে যান। পরে স্থানীয় লোকজন তাঁদের উদ্ধার করে রাঙামাটি জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যায়। সেখানে নেওয়ার পর মো. রফিক নামের এক শ্রমিকের মৃত্যু হয়।

সেতুর পাশের চা–দোকানি ধনমণি চাকমা বলেন, সেতুটি ধসে গিয়ে বিকট শব্দ হয়েছে। পরে শ্রমিকেরা চিৎকার করছেন। অধিকাংশ শ্রমিক রড ও কাঠের আঘাতে বেশি আহত হয়েছেন। তিন থেকে চারজন শ্রমিক গুরুতর আঘাত পেয়েছেন।

কোতোয়ালি থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. কবির হোসেন প্রথম আলোকে বলেন, আসামবস্তি-কাপ্তাই সড়কে নির্মাণাধীন সেতু ধসে একজন শ্রমিক মারা গেছেন। এ ঘটনায় আরও অন্তত ১৯ জন আহত হয়েছেন। এ বিষয়ে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন