চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডের সলিমপুর ইউনিয়নের ফৌজদারহাট কে এম হাইস্কুলের সামনে আজ সোমবার দুপুরে এ দুর্ঘটনা ঘটে। ট্রাকটির ধাক্কায় যখন সাকিব মহাসড়কে পড়ে যায়, তখন ট্রাকের চালক ও রেডিমিক্সের গাড়ির চালক আসন ছেড়ে পালিয়ে যান। পরে হাইওয়ে পুলিশ গিয়ে গাড়ি দুটি আটক করে। আহত সাকিব ওই বিদ্যালয়ের কারিগরি শিক্ষা বিভাগের নবম শ্রেণির শিক্ষার্থী। তার বাড়ি ভাটিয়ারী এলাকায় বলে জানিয়েছে বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আমিনুল ইসলাম।

সরেজমিনে দেখা যায়, ট্রাকটির পেছনে ধাক্কা লাগানো অবস্থায় মহাসড়কের চট্টগ্রামমুখী লেনে সড়কের ওপর দাঁড়িয়ে ছিল রেডিমিক্সের গাড়িটি। এ সময় বিদ্যালয়ের নিরাপত্তাপ্রহরী একটি লাল পতাকা উঁচিয়ে ধরে শিক্ষার্থীদের মহাসড়ক পারাপার করছেন। অনেকটা ঝুঁকি নিয়ে রাস্তা পার হতে হয় শিক্ষার্থীদের। ঘটনাস্থলে উপস্থিত শিক্ষার্থী রবিন, সাহাবউদ্দিন, রফিকসহ কয়েকজন শিক্ষার্থী ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, প্রতিদিন তাঁদেরকে লাল পতাকার ওপর ভর করে সড়ক পারাপার হতে হয়। কখন যে কে দুর্ঘটনার শিকার হয়, তা একমাত্র সৃষ্টিকর্তাই ভালো জানেন। তাদের বিদ্যালয়ের সামনে দ্রুত পদচারী–সেতু নির্মাণের দাবি জানায় তারা।

বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আমিনুল ইসলাম প্রথম আলোকে বলেন, তাঁর বিদ্যালয়ের সামনে প্রায়ই দুর্ঘটনা ঘটে থাকে। বহু চেষ্টা করেও বিদ্যালয়ের সামনে একটি পদচারী–সেতু নির্মাণ করতে পারছেন না। অথচ ওই বিদ্যালয়ের ছাত্র ছিলেন বর্তমান সাংসদ দিদারুল আলম, উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এস এম আল মামুন ও স্থানীয় চেয়ারম্যান সালাউদ্দিন আজিজ। ওই শিক্ষার্থীর অবস্থা আশঙ্কাজনক নয় বলে জানান প্রধান শিক্ষক।

বারো আউলিয়া হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কাজী নাজমুল হক প্রথম আলোকে বলেন, শিক্ষার্থীর পায়ে আঘাত লেগেছে। গাড়ি দুটিকে আটক করে থানায় নেওয়া হয়েছে। আইনগত ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন