বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

ভৈরব হাইওয়ে পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা যাত্রীবাহী হানিফ পরিবহনের একটি বাস ঢাকা-সিলেট মহাসড়ক ধরে সিলেটের দিকে যাচ্ছিল। আর হবিগঞ্জের প্রাণ-আরএফএল গ্রুপের কারখানা থেকে পণ্যবোঝাই কাভার্ড ভ্যান নরসিংদীর পলাশের ঘোড়াশালে ফিরছিল। নীলকুঠি বাসস্ট্যান্ড এলাকায় বাস ও কাভার্ড ভ্যানের মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে দুটি গাড়ি দুমড়েমুচড়ে যায়। এতে উভয় গাড়ির চালকসহ ১১ জন আহত হন। গুরুতর আহত অবস্থায় কাভার্ড ভ্যানের চালককে উদ্ধার করে নরসিংদী সদর হাসপাতালে নেওয়ার পথে তিনি মারা যান।

নরসিংদী সদর হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসা কর্মকর্তা (আরএমও) সৈয়দ আমীরুল হক বলেন, কাভার্ড ভ্যানচালককে মৃত অবস্থায় হাসপাতালে আনা হয়। তাঁর লাশ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

default-image

ভৈরব হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মোজাম্মেল হক বলেন, ঘটনাস্থল থেকে আহতদের উদ্ধার করে বি‌ভিন্ন হাসপাতালে পাঠানো হয়। তাঁদের মধ্যে আহত কাভার্ড ভ্যানচালক হাসপাতালে নেওয়ার পথে মারা গেছেন। তাঁর স্বজনদের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করা হচ্ছে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন