বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

আহত ব্যক্তিরা হলেন রূপগঞ্জের গন্ধর্বপুর এলাকার বেলায়েত হোসেন (৬৫), মো. সিরাজ (৫০), হযরত আলী (৪০)। তাঁদের রূপগঞ্জের ইউএস বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে পাঠানো হয়। বেলায়েত ও সিরাজের অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে ইউএস বাংলা মেডিকেল কলেজ সূত্রে জানা গেছে।

আবদুর নূর নামে স্থানীয় এক বাসিন্দা ও পরিচয় প্রকাশ না করার শর্তে কারখানার দুই শ্রমিক প্রথম আলোকে জানান, বেলা দুইটার পর তাঁরা কারখানার ভেতরে বিকট শব্দ শুনতে পান। এ সময় দুই শ্রমিক দগ্ধ অবস্থায় কারখানার পাশে গড়াগড়ি খেতে থাকেন। পরে তাঁদের উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়।

নারায়ণগঞ্জ ফায়ার সার্ভিস অ্যান্ড সিভিল ডিফেন্সের উপসহকারী পরিচালক তানহারুল ইসলাম প্রথম আলোকে জানিয়েছেন, রাইস মিলের ভেতরে একটি তুষের গুদামে আগুনের ঘটনা ঘটেছে। গুদামের পাশেই একটি বয়লার ছিল। তবে বয়লারটি অক্ষত। বিকট শব্দের কথা তিনি নিজেও শুনেছেন। তবে প্রাথমিকভাবে সেটার কারণ জানা যায়নি।

তানহারুল ইসলাম জানান, পুরো ভবন ইস্পাতের তৈরি। ধারণা করা হচ্ছে, গুদামের ভেতরে অতিরিক্ত তাপ উৎপন্ন হয়ে তুষে আগুন লেগেছে। ফায়ার সার্ভিসের পাঁচটি ইউনিটের চেষ্টায় বিকেল পাঁচটায় আগুন নিয়ন্ত্রণে এসেছে বলে জানান তিনি।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন