default-image

মানিকগঞ্জের শিবালয় উপজেলায় করোনার সংক্রমণে সুফিয়া বেগম (৪১) নামের এক নারী মারা গেছেন। গতকাল মঙ্গলবার বিকেলে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা নেওয়ার পথে তাঁর মৃত্যু হয়।

এ ঘটনায় ওই নারীর বাড়িসহ আশপাশের কয়েকটি বাড়ি লকডাউন ঘোষণা করেছে উপজেলা প্রশাসন। আজ বুধবার সকালে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা আসিফ ইকবাল এই তথ্য নিশ্চিত করেন।

সুফিয়া বেগম উপজেলা সদরের নতুনপাড়ার মৃত ইসলাম মিয়ার স্ত্রী। তাঁর বাবার বাড়ি উপজেলার অন্বয়পুর গ্রামে।

উপজেলা স্বাস্থ্য বিভাগ সূত্রে জানা গেছে, গত রোববার সুফিয়া বেগমের করোনার সংক্রমণ শনাক্ত হয়। ওই দিনই তাঁকে জেলা সদর হাসপাতালের করোনা ইউনিটে ভর্তি করা হয়। গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে তাঁর শারীরিক অবস্থার অবনতি হতে থাকে। বিকেল চারটার দিকে উন্নত চিকিৎসার জন্য  ঢাকায় নেওয়ার পথে তাঁর মৃত্যু হয়।

গতকাল রাত নয়টার দিকে উপজেলা প্রশাসনের তত্ত্বাবধানে এবং উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তার উপস্থিতিতে উপজেলার বড়বোয়ালী কবরস্থানে তাঁর মৃতদেহ দাফন করা হয়।

বিজ্ঞাপন

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) বি এম রুহুল আমিন বলেন, করোনায় আক্রান্ত ওই নারীর মৃত্যুর পর তাঁর স্বামী ও বাবার বাড়িসহ আশপাশের কয়েকটি বাড়ি লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছে। মৃত নারীর বাবার বাড়ি অন্বয়পুর ও স্বামীর বাড়ি নতুনপাড়া এলাকার বাসিন্দাদের করোনা পরীক্ষা করা হবে।

জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ সূত্রে জানা গেছে, এখন পর্যন্ত জেলার ৭টি উপজেলার ১ হাজার ৮৫৮ ব্যক্তি করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। তাঁদের মধ্যে সুস্থ হয়েছেন ১ হাজার ৮০৭ জন। বাকিরা জেলা সদর হাসপাতাল ও নিজ নিজ বাড়িতে চিকিৎসাধীন আছেন। করোনায় আক্রান্ত হয়ে এ পর্যন্ত ৩০ জনের মৃত্যু হয়েছে।

সিভিল সার্জন আনোয়ারুল আমিন আখন্দ বলেন, মাস্ক ব্যবহার, সামাজিক দূরত্ব এবং স্বাস্থ্যবিধি মানায় করোনার সংক্রমণ বাড়ছে। তিনি সবাইকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার পরামর্শ দেন।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন