default-image

নারায়ণগঞ্জের মদনগঞ্জ ঘাট এলাকায় শীতলক্ষ্যা নদীতে লঞ্চডুবির ঘটনায় একজনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। আজ রোববার সন্ধ্যা ৬টার দিকে কার্গো জাহাজের ধাক্কায় যাত্রীবাহী লঞ্চডুবির ঘটনা ঘটে।

লাশটি নারায়ণগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে (ভিক্টোরিয়া হাসপাতাল) আছে বলে জানিয়েছেন আবাসিক চিকিৎসা কর্মকর্তা আসাদুজ্জামান।

নারায়ণগঞ্জ ফায়ার সার্ভিসের উপসহকারী পরিচালক আবদুল্লাহ আল আরেফিন বলেন, প্রচণ্ড বাতাস ও ঝড়ের কারণে উদ্ধারকাজ ব্যাহত হচ্ছে। ডুবে যাওয়া লঞ্চটির খোঁজে তিনজন ডুবুরিকে নামানো হয়েছে।

বিআইডব্লিউটিএ নারায়ণগঞ্জ অফিসের উপপরিচালক মোবারক হোসেন প্রথম আলোকে বলেন, যাত্রীবাহী লঞ্চটি নারায়ণগঞ্জ থেকে মুন্সিগঞ্জের উদ্দেশে ছেড়ে যায়। আজ সন্ধ্যা ৬টার দিকে যাত্রীবাহী লঞ্চটি মদনগঞ্জ এলাকায় নির্মাণাধীন তৃতীয় শীতলক্ষ্যা সেতুর কাছাকাছি এলাকায় এসকে-৩ নামের একটি কার্গো জাহাজের ধাক্কায় ডুবে যায়। এই ঘটনায় কতজন যাত্রী নিখোঁজ আছেন, তা তিনি জানাতে পারেননি। তিনি বলেন, লঞ্চের অনেক যাত্রী সাঁতরে তীরে উঠেছেন।

বিজ্ঞাপন
default-image

বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ চলাচল ও যাত্রী পরিবহন সংস্থার সিনিয়র সহসভাপতি বদিউজ্জামান বাদল বলেন, বিআইডব্লিউটিএ নারায়ণগঞ্জ ঘাট থেকে ৪০ থেকে ৫০ জন যাত্রী নিয়ে যাত্রীবাহী লঞ্চটি মুন্সিগঞ্জের উদ্দেশে ছেড়ে যায়। পথে শীতলক্ষ্যা নদীর নির্মাণাধীন সেতুর কাছাকাছি এই দুর্ঘটনা ঘটে।

ঘটনাস্থলে যাওয়া সদর নৌ পুলিশের উপপরিদর্শক (এসআই) ইউনুস মুন্সী দুর্ঘটনার খবরের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। অনেক যাত্রী সাঁতরে তীরে উঠতে পারলেও কয়েকজন নিখোঁজ থাকতে পারেন বলে তাঁর ধারণা।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন