default-image

চট্টগ্রামের রাঙ্গুনিয়া উপজেলায় শেখ রাসেল অ্যাভিয়ারি অ্যান্ড ইকোপার্কের জায়গা থেকে শতাধিক গাছ কেটে নিয়েছে দুর্বৃত্তরা। উপজেলার হোছনাবাদ ইউনিয়নের নিশ্চিন্তাপুর পাহাড় থেকে এসব গাছ কাটা হয়। আজ শনিবার সকালে গাছ কাটার খবর পেয়ে স্থানীয় বন বিভাগের কর্মীরা ঘটনাস্থলে গিয়ে আট প্রজাতির গাছ জব্দ করেছেন।

বেলা ১১টার দিকে সরেজমিন দেখা যায়, পাহাড়ে প্রচুর কাটা গাছের গোড়া ও কাটা গাছ মাটিতে পড়ে আছে। এর মধ্যে পুরোনো ও সদ্য কেটে নেওয়া গাছের গোড়াও আছে। বন বিভাগের বেশ কয়েকজন কর্মী পড়ে থাকা গাছগুলো জব্দ করে নিয়ে যাওয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছেন।

ঘটনাস্থলে এসেছেন রাঙ্গুনিয়া রেঞ্জের কোদালা বন বিট কর্মকর্তা মোখলেছুর রহমান। তিনি বলেন, জায়গাটি শেখ রাসেল অ্যাভিয়ারি অ্যান্ড ইকোপার্কের। গাছ কাটার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে এসেছেন তিনি। তবে গাছ কাটার সঙ্গে জড়িত কাউকে পাওয়া যায়নি। আটটি বিভিন্ন প্রজাতির কাটা গাছ জব্দ করা হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

গাছ জব্দ করার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে ছুটে আসেন সেকান্দর হোসেন নামের স্থানীয় এক ব্যক্তি। জায়গাটি নিজের দাবি করে তিনি বলেন, গাছগুলো তাঁদের রোপণ করা। জায়গাও তাঁদের। গাছ কাটার বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, গাছগুলো কারা কেটেছে, তিনি জানেন না। তবে বছরখানেক আগে তাঁরা কিছু গাছ কাটলেও বন বিভাগ মানা করায় তাঁরা আর গাছ কাটেননি।

স্থানীয় লোকজন জানান, ইকোপার্কের অধিগ্রহণ করা পাহাড় থেকে প্রায় সময় গাছ কেটে নেওয়ার ঘটনা ঘটছে। এ নিয়ে বিভিন্ন সময় বন বিভাগ অভিযান চালালেও বনের গাছ রক্ষা করা যাচ্ছে না।

বন বিভাগের রাঙ্গুনিয়া রেঞ্জ কর্মকর্তা মো. মাসুম কবির মুঠোফোনে প্রথম আলোকে বলেন, জায়গাটি শেখ রাসেল ইকোপার্কের। গাছ কাটার খবর পেয়ে বন বিভাগের লোকজনকে পাঠানো হয়েছে। স্থানীয় একজন জায়গাটি তাঁর দাবি করেছেন। বিষয়টি যাচাইয়ের জন্য তাঁর কাগজপত্র দেখা হবে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন