বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

সংবাদ সম্মেলনে মহসিন মিয়া বলেন, ‘প্রতিদ্বন্দ্বী নৌকা মার্কার প্রার্থীর অব্যাহত আচরণবিধি লঙ্ঘনের ঘটনায় শ্রীমঙ্গল পৌরসভার সুষ্ঠু নির্বাচন নিয়ে উদ্বেগ ও আশঙ্কা দেখা দিয়েছে। প্রতিপক্ষের সমর্থকেরা শত শত মোটরসাইকেল নিয়ে আমার বাসার সামনে মহড়া দিয়ে, পটকা ফাটিয়ে ত্রাসের রাজত্ব কায়েম করছে। প্রকাশ্যে মিছিল করে আমার পিঠের চামড়া তুলে নেওয়ার স্লোগান দিচ্ছে, যা করে ভোটারদের মনে ভীতির সৃষ্টি করছে।’ সাধারণ ভোটাররা যাতে নির্বিঘ্নে তাদের পছন্দের প্রার্থীকে ভোট দিতে পারেন, এমন সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ পরিবেশ নিশ্চিত করতে নির্বাচন কমিশনের প্রতি আহ্বান জানান তিনি।

প্রতিপক্ষের সমর্থকেরা শত শত মোটরসাইকেল নিয়ে আমার বাসার সামনে মহড়া দিয়ে, পটকা ফাটিয়ে ত্রাসের রাজত্ব কায়েম করছে। প্রকাশ্যে মিছিল করে আমার পিঠের চামড়া তুলে নেওয়ার স্লোগান দিচ্ছে, যা করে ভোটারদের মনে ভীতির সৃষ্টি করছে।
মহসিন মিয়া, শ্রীমঙ্গল পৌর নির্বাচনের স্বতন্ত্র প্রার্থী

মহসিন মিয়া বলেন, ‘আমার প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীর কর্মীরা শত শত মোটরসাইকেল নিয়ে মহড়া দিলেও স্থানীয় প্রশাসন তাঁদের বিরুদ্ধে কোনো ব্যবস্থা নেয়নি। অন্যদিকে আমার সমর্থক শ্রমিক সংগঠনের পক্ষে মিছিল করলে তাঁদের জরিমানা করা হয়। আমার ছেলের ব্যক্তিগত গাড়িতে স্টিকার লাগানোর কারণে জরিমানা করা হয়েছে। এসব বিষয়ে আমি পাঁচ দফায় জেলা নির্বাচন অফিসারকে লিখিত এবং পুলিশ সুপার, উপজেলা প্রশাসন ও শ্রীমঙ্গল থানার পুলিশকে মৌখিক অভিযোগ করেছি।’

অভিযোগের বিষয়ে জানতে চাইলে নৌকা প্রতীকের প্রার্থী সৈয়দ মনসুরুল হক প্রথম আলোকে বলেন, ‘নির্বাচনের প্রচারণার জন্য আমাদের কর্মীরা শান্তিপূর্ণভাবেই সব জায়গায় যাচ্ছেন। আমার কর্মীরা কাউকে গালিগালাজ বা মারধর করেননি। পৌরসভা নির্বাচনে আমাদের বিজয় সুনিশ্চিত দেখে মহসিন মিয়া কালোটাকা ছড়াচ্ছেন, আর আমাদের বিরুদ্ধে অপপ্রচার চালাচ্ছেন।’

শ্রীমঙ্গল উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ও রিটার্নিং কর্মকর্তা তপন জ্যোতি অসিম দাবি করেন, নির্বাচনী প্রচারণায় যাঁরাই আচরণবিধি লঙ্ঘন করছেন, তাঁদের জরিমানা করা হচ্ছে। পৌর নির্বাচনকে সুষ্ঠু ও সুন্দর করে তুলতে তাঁরা সব ধরনের প্রস্তুতি নিচ্ছেন। নির্বাচনে পুলিশ, র‍্যাব, বিজিবি ও আনসার মোতায়েন করা হবে।

প্রায় ১০ বছর পর শ্রীমঙ্গল পৌরসভায় ২৮ নভেম্বর ইভিএমের মাধ্যমে ভোট গ্রহণ হবে। এই নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী সৈয়দ মনসুরুল হক, স্বতন্ত্র প্রার্থী বিএনপি নেতা মহসিন মিয়া এবং স্বতন্ত্র প্রার্থী ব্যবসায়ী আসাদ উদ্দীন আসাদ প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন