সখীপুর থানার সহকারী উপপরিদর্শক (এএসআই) সানিউল ইসলাম বলেন, আসামি নাসির উদ্দিন একজন আদম ব্যবসায়ী ছিলেন। একই উপজেলার গড়গোবিন্দপুর গ্রামের শফিকুল ইসলাম ও বাবুল হোসেনকে বিদেশ পাঠানোর কথা বলে ২৮ লাখ টাকা নিয়ে আত্মসাৎ করেন। পরে ওই দুজনকে নাসির ব্যাংকের চেক দিলেও চেকটি প্রত্যাখ্যাত হয়।

পরে টাকা ফেরত না পেয়ে দুই ব্যক্তি ২০১৮ সালে নাসিরকে আসামি করে আদালতে মামলা করেন। আদালত ২০২১ সালে দুই মামলায় নাসিরকে পৃথকভাবে এক বছরের সাজা ও ২৮ লাখ টাকা জরিমানা করেন। নাসির মামলার রায়ের আগে থেকেই পালিয়ে বেড়াচ্ছিলেন।

সখীপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা রেজাউল করিম প্রথম আলোকে বলেন, তথ্যপ্রযুক্তি ব্যবহার করে আসামিকে কৌশলে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। আজ বিকেলেই তাঁকে টাঙ্গাইল আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন