বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

গতকাল শুক্রবার সকাল ৯টায় তেঁতুলিয়ায় দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয় ৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস। ওই দিন মাঝেমধ্যে সূর্য উঁকি দিলেও ছড়াতে পারেনি রোদের তীব্রতা। উত্তরের ঝিরঝিরে বাতাসে দিনভর অনুভূত হয় শীত। তবে সন্ধ্যা ৬টায় তেঁতুলিয়ায় দিনের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয় ২২ দশমিক ১ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

পঞ্চগড় শহরসংলগ্ন করতোয়া নদীতে নুড়ি পাথর সংগ্রহকারী শ্রমিক শহিদুল ইসলাম বলেন, ‘আমরা প্রতিদিন নদী থেকে নুড়ি পাথর তুলে বিক্রি করে সংসার চালাই। কয়েক দিন ধরে রোদ না থাকায় বেশি ঠান্ডা লাগছিল, ঠিকমতো নদীতে নেমে পাথর তুলতে পারিনি। আজকে সকাল সকাল রোদ উঠছে। এ জন্য ঠিকমতো কাজ করতে পারছি।’

তেঁতুলিয়া আবহাওয়া পর্যবেক্ষণাগারের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. রাসেল শাহ প্রথম আলোকে বলেন, দুই দিন ধরে তেঁতুলিয়ায় দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হচ্ছে। বর্তমানে এই এলাকায় মৃদু শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে। তেঁতুলিয়ায় আকাশে মেঘ আর কুয়াশা কমে গিয়ে উত্তরের হালকা বাতাস থাকলেও ঝলমলে রোদের দেখা মিলেছে। আকাশ পরিষ্কার থাকায় দিনে রোদের কারণে আগামী কয়েক দিন দিনের তাপমাত্রা বাড়তে পারে। এতে দিন-রাতের তাপমাত্রার বেশি পার্থক্যের সৃষ্টি হবে। দিন ও রাতের তাপমাত্রার ব্যবধান বেশি হলে শীত সহনীয় মনে হবে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন