বিজ্ঞাপন

ফরিদপুর

ফরিদপুর প্রেসক্লাবের সামনে মুজিব সড়কে বেলা ১১টার দিকে মানববন্ধন করেছেন ফরিদপুরে কর্মরত সাংবাদিকেরা। ফরিদপুর প্রেসক্লাব আয়োজিত এ কর্মসূচির পাশে একই সময় প্রতিবাদ কর্মসূচি পালন করে ফরিদপুর বন্ধুসভা ও ফরিদপুর নাগরিক মঞ্চ। ফরিদপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি কবিরুল ইসলাম সিদ্দিকীর সভাপতিত্বে সাংবাদিকদের মানববন্ধনে বক্তব্য দেন ফরিদপুর নাগরিক মঞ্চের সভাপতি আওলাদ হোসেন বাবর, বীর মুক্তিযোদ্ধা মিজানুর রহমান, বাংলাদেশ মহিলা পরিষদ ফরিদপুর শাখার সভাপতি শিপ্রা রায়, ফরিদপুর বন্ধুসভার সভাপতি সুজিত কুমার দাস, সামাজিক প্রতিরোধ কমিটির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আসমা আক্তার, বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি (সিপিবি) ফরিদপুর শাখার সভাপতি মো. রফিকুজ্জামান, সমকাল সুহৃদ সমাবেশের সাধারণ সম্পাদক কাজী সবুজ, দৈনিক কালের কণ্ঠ পত্রিকার নিজস্ব প্রতিবেদক নির্মলেন্দু চক্রবর্তী, বাসস প্রতিনিধি রেজাউল ইসলাম প্রমুখ।

বীর মুক্তিযোদ্ধা মিজানুর রহমান বলেন, সরকারের মধ্যে ঘাপটি মেরে থাকা একটি গোষ্ঠী উন্নয়নের গতিপথ রুদ্ধ করতে এ ঘটনা ঘটিয়েছে। সব ষড়যন্ত্র চক্রান্তের পথ রুদ্ধ করে আজকের মধ্যে রোজিনা ইসলামকে মুক্তি দিতে হবে।

default-image

ফরিদপুর নাগরিক মঞ্চের সভাপতি আওলাদ হোসেন বলেন, সাংবাদিক রোজিনা ইসলামকে নিয়ে যা ঘটেছে, তা এ দেশে এর আগে কখনো ঘটেনি। ১৯২৩ সালের উপনিবেশ আমলের আইন দিয়ে সাহসী সাংবাদিক রোজিনা ইসলামকে আটকে রেখে নির্যাতন করা এবং গ্রেপ্তার করে কারাগারে প্রেরণের ঘটনা প্রমাণ করে, একটি চক্র এ দেশে বাক্‌ ও লেখার স্বাধীনতা নস্যাৎ করতে চায়।

ফরিদপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি কবিরুল ইসলাম সিদ্দিকী বলেন, ‘সাংবাদিক রোজিনা ইসলামকে মুক্ত করতে দুর্বার আন্দোলন গড়ে তুলবে দেশের সাংবাদিক সমাজ। রোজিনার মুক্তি না হওয়া পর্যন্ত আমাদের এ আন্দোলন সংগ্রাম চলতেই থাকবে। আজকের মধ্যে রোজিনা ইসলামের মুক্তি দেওয়া না হলে আগামীকাল থেকে সর্বাত্মক আন্দোলন গড়ে তোলা হবে।’

কর্মসূচির শুরুতে সোমনুর মনির কোনালের গাওয়া ‘সত্য কন্যা রোজিনা’ গানটি গান বাংলাদেশ লিগ্যাল এইড অ্যান্ড সার্ভিসেস ট্রাস্টের ফরিদপুরের সমন্বয়কারী শিপ্রা গোস্বামী।

নারায়ণগঞ্জ

নারায়ণগঞ্জ প্রেসক্লাবের সামনে দুপুরে মানববন্ধন করেছেন নারায়ণগঞ্জে কর্মরত প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার সাংবাদিকেরা। প্রেসক্লাবের আয়োজনে এ কর্মসূচিতে সংগঠনের সভাপতি খন্দকার শাহ আলমের সভাপতিত্বে বক্তব্য দেন নারায়ণগঞ্জ প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি মাহবুবুর রহমান, হাবিবুর রহমান, আরিফ আলম, সাবেক সাধারণ সম্পাদক নাফিজ আশরাফ, মোস্তফা করিম, কোষাধ্যক্ষ আবু সাউদ, নারায়ণগঞ্জ জেলা সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি আব্দুস সালাম, সাধারণ সম্পাদক আমির হুসাইন স্মিথ, বাংলাদেশ ফটো জার্নালিস্ট অ্যাসোসিয়েশনের সাবেক সভাপতি শফিউদ্দিন বিটু, নারায়ণগঞ্জ ফটো জার্নালিস্ট অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক মনিরুল ইসলাম, সাবেক সভাপতি তাপস সাহা প্রমুখ। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক শরীফ উদ্দিন।

খন্দকার শাহ আলম বলেন, ‘সাংবাদিক রোজিনা ইসলাম তথ্য চুরি করবে কেন? দেশে তথ্য পাওয়ার জন্য তথ্য অধিকার আইন রয়েছে। স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের অনিয়ম-দুর্নীতির বিষয় তুলে ধরেছেন সাংবাদিক রোজিনা ইসলাম। অবিলম্বে সাংবাদিক রোজিনা ইসলামের নিঃশর্ত মুক্তি দিতে হবে।’

আব্দুস সালাম বলেন, ‘সাংবাদিক রোজিনা ইসলামকে যেভাবে শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত ও হেনস্তা করা হয়েছে, এই ঘটনার নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই। এ ঘটনায় জড়িত মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তাদের দ্রুত অপসারণ ও বিচারের দাবি জানাচ্ছি।’

খাগড়াছড়ি

খাগড়াছড়িতে দুপুর ১২টার দিকে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ সমাবেশ করেছেন সাংবাদিকেরা। খাগড়াছড়ি সাংবাদিক ইউনিয়নের আয়োজনে এই কর্মসূচিতে জেলা ও উপজেলার বিভিন্ন গণমাধ্যমে কর্মরত সাংবাদিকেরা অংশগ্রহণ করেন। খাগড়াছড়ি সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি প্রদীপ চৌধুরীর সভাপতিত্বে এবং সাংবাদিক ইউনিয়নের অর্থ সম্পাদক ও চ্যানেল টোয়েন্টি ফোর খাগড়াছড়ি প্রতিনিধি নুরচ্ছফা মানিকের সঞ্চালনায় মানববন্ধনে বক্তব্য দেন খাগড়াছড়ি প্রেসক্লাব সভাপতি জীতেন বড়ুয়া, খাগড়াছড়ি সাংবাদিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক সৈকত দেওয়ান, প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি নুরুল আজম, খাগড়াছড়ি টিভি জার্নালিস্ট অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক এইচ এম প্রফুল্ল, প্রেসক্লাবের সহসভাপতি মো. জহুরুল আলম, নারী সাংবাদিক চিংমে প্রু মারমা, যমুনা টেলিভিশনের খাগড়াছড়ি প্রতিনিধি শাহরিয়ার ইউনুস, সাংবাদিক ইউনিয়নের সাবেক সাধারণ সম্পাদক কানন আচার্য, দৈনিক যুগান্তরের প্রতিনিধি সমির মল্লিক, দীঘিনালা উপজেলার প্রেসক্লাব সভাপতি জাহাঙ্গীর আলম রাজু প্রমুখ।

বক্তারা অবিলম্বে সাংবাদিক রোজিনা ইসলামের বিরুদ্ধে দায়ের হওয়া মামলা প্রত্যাহার ও নিঃশর্ত মুক্তির পাশাপাশি স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের দুর্নীতিবাজ কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি জানান। কাল বৃহস্পতিবারের মধ্যে রোজিনা ইসলামকে মুক্তি দেওয়া না হলে কঠোর কর্মসূচির হুঁশিয়ারি দেন সাংবাদিক নেতারা।

কিশোরগঞ্জ

কিশোরগঞ্জে জেলা শহরের আখড়া বাজার সেতুসংলগ্ন শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম চত্বরে বুধবার সকাল ১০টা থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত কিশোরগঞ্জ প্রেসক্লাব আহ্বায়ক কমিটি, কিশোরগঞ্জ টিভি জার্নালিস্ট অ্যাসোসিয়েশন ও কিশোরগঞ্জ জেলা রিপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশনের ব্যানারে মানববন্ধন কর্মসূচি পালিত হয়েছে। এই মানববন্ধনে জেলায় কর্মরত বিভিন্ন প্রিন্ট, ইলেকট্রনিক ও অনলাইন মিডিয়ার গণমাধ্যমকর্মী ছাড়াও সুশীল সমাজের নেতারা, সাংস্কৃতিক কর্মী ও রাজনৈতিক ব্যক্তিরা অংশগ্রহণ করেন। একই সময় জেলার বাইরে হোসেনপুর প্রেসক্লাবসহ বিভিন্ন উপজেলার প্রেসক্লাব ও সাংবাদিকদের সংগঠন এবং অন্যান্য সামাজিক সংগঠনের আয়োজনে সাংবাদিক রোজিনা ইসলামের মুক্তির দাবিতে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন ও প্রতিবাদ সমাবেশ করা হয়।

এ সময় অন্যদের মধ্যে রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ আ ন ম নৌশাদ খান সাংবাদিকদের সঙ্গে একাত্মতা প্রকাশ করে ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত দাবি করে প্রকৃত দোষীদের শাস্তি দাবি জানিয়েছেন।

সীতাকুণ্ড, চট্টগ্রাম

চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডে দুপুর ১২টার দিকে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ সমাবেশ করেছে সীতাকুণ্ড প্রেসক্লাব। পুরাতন ঢাকা ট্রাঙ্ক রোডে প্রেসক্লাব চত্বরে আয়োজিত এ কর্মসূচিতে অংশ অংশ নেন সীতাকুণ্ডে কর্মরত সাংবাদিকেরা। সংগঠনের সভাপতি সৌমিত্র চক্রবর্তীর সভাপতিত্বে এবং যুগ্ম সম্পাদক নাছির উদ্দিন অনিকের সঞ্চালনায় এ সময় বক্তব্য দেন সীতাকুণ্ড প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি এম হেদায়েত ও এম সেকান্দার হোসাইন, সহসভাপতি জহিরুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক লিটন কুমার চৌধুরী, সাংগঠনিক সম্পাদক আবদুল্লাহ আল ফারুক, দিদারুল হোসেন টুটুল, জাহাঙ্গীর আলম, তালুকদার নির্দেশ বড়ুয়া, কামরুল ইসলাম দুলু, হাকিম মোল্লা প্রমুখ।

সীতাকুণ্ড প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি এম সেকান্দার হোসাইন বলেন, করোনাভাইরাস এসে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের দুর্নীতিবাজদের চিহ্নিত করার সুযোগ করে দিয়েছে। এ দুর্নীতিবাজদের জনগণকে চিনিয়েছেন রোজিনা ইসলাম। এ মন্ত্রণালয়ের পিয়ন থেকে সর্বোচ্চ কর্মকর্তার দুর্নীতি তদন্ত করতে দুদকের প্রতি আহ্বান জানান তিনি।

সীতাকুণ্ড প্রেসক্লাবের সভাপতি সৌমিত্র চক্রবর্তী বলেন, ‘স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের গাড়ির চালক থেকে কর্মকর্তাদের এক বড় অংশ প্রত্যক্ষ দুর্নীতির সঙ্গে জড়িত। একের পর এক প্রতিবেদন প্রকাশ করে দুর্নীতিবাজদের লাগাম টানতে চেয়েছিলেন আমাদের বোন রোজিনা ইসলাম। স্বাস্থ্যমন্ত্রী দুর্নীতিবাজদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা না নিয়ে তাঁদের রক্ষায় নেমেছেন। তিনি এ পদে থাকার যোগ্যতা রাখেন না।’

পাথরঘাটা, বরগুনা

বরগুনার পাথরঘাটায় সকালে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মিছিল করেছেন সাংবাদিকেরা। সকাল ১০টার দিকে শহরের শেখ রাসেল স্কয়ারে প্রখর রোদ উপেক্ষা করে মানববন্ধনে অংশ নেন সাংবাদিকসহ বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ।

পাথরঘাটা প্রেসক্লাবের সভাপতি চৌধুরী মোহাম্মদ ফারুকের সভাপতিত্বে মানববন্ধনে বক্তব্য দেন দৈনিক কালের কণ্ঠের পাথরঘাটা প্রতিনিধি মির্জা শহিদুল ইসলাম, দৈনিক যুগান্তর প্রতিনিধি গোলাম মোস্তফা চৌধুরী, পাথরঘাটা প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক মো. জাফর ইকবাল, প্রথম আলোর পাথরঘাটা প্রতিনিধি আমিন সোহেল, দৈনিক মানবজমিনের পাথরঘাটা প্রতিনিধি জাকির হোসেন খান, বাংলানিউজের শফিক খোকন ও দৈনিক ভোরের কাগজের আমল তালুকদার প্রমুখ। এ সময় তাঁদের সঙ্গে একাত্মতা প্রকাশ করেন পাথরঘাটা উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষক সমিতির সভাপতি তারিকুল ইসলাম ও সাধারণ সম্পাদক গোলাম মাওলা।

মানববন্ধন শেষে শহরের প্রধান প্রধান সড়কে বিক্ষোভ মিছিল করেন সাংবাদিকেরা। এ সময় সাংবাদিক রোজিনা ইসলামের নিঃশর্ত মুক্তি ও স্বাস্থ্য বিভাগের দুর্নীতিবাজ কর্মকর্তাদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে স্লোগান দেন তাঁরা।

default-image

বান্দরবান

বান্দরবান প্রেসক্লাব চত্বরে বুধবার সকালে মানববন্ধন ও সমাবেশ করেছেন প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার সাংবাদিকেরা। সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি আমিনুল ইসলাম। বক্তৃতা করেন প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক মিনারুল হক, সাংবাদিক মংসানু মারমা, আলাউদ্দিন শাহরিয়ার, সাদাৎ উল্লাহ, বুদ্ধজ্যোতি চাকমা প্রমুখ।

বক্তারা বলেন, জাতীয় ও আন্তর্জাতিক পুরস্কারপ্রাপ্ত সাংবাদিক রোজিনা ইসলামকে হেনস্তা ও গ্রেপ্তারের মধ্য দিয়ে দেশের গণমাধ্যমের গলা টিপে ধরার বার্তা দেওয়া হয়েছে। রাষ্ট্রের স্বার্থে এ রকম নিবর্তনমূলক কার্যকলাপ মেনে নেওয়া যায় না। রাষ্ট্রের চারটি স্তম্ভের মধ্যে গণমাধ্যম স্তম্ভটি ভেঙে ফেলার ষড়যন্ত্র করা হচ্ছে। এ স্তম্ভ ভেঙে গেলে রাষ্ট্রের টিকে থাকার প্রশ্নের মুখোমুখি দাঁড়াবে। তখন আর কারও রক্ষা হবে না।

গৌরনদী, বরিশাল

বুধবার সকাল ১০টায় বরিশালের গৌরনদী উপজেলার বাসস্ট্যান্ডে ঢাকা-বরিশাল মহাসড়কে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ করা হয়েছে। এতে সংহতি প্রকাশ করে মানববন্ধনে অংশ নেন গৌরনদী উপজেলা প্রেসক্লাব, গৌরনদী রিপোর্টার্স ইউনিটি, গৌরনদী উপজেলা এনজিও সমন্বয় পরিষদ।

মানববন্ধন শেষে গৌরনদী বন্ধুসভার সভাপতি শ্রীকৃঞ্চ চক্রবর্তীর সভাপতিত্বে সমাবেশে বক্তৃতা করেন গৌরনদী প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি জহুরুল ইসলাম, সাংবাদিক মো. জামাল উদ্দিন, গৌরনদী উপজেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি খোকন আহম্মেদ, উজিরপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি আবদুর রহিম সরদার, গৌরনদী উপজেলা এনজিও সমন্বয় পরিষদের সভাপতি প্রেমানন্দ ঘরামী, গৌরনদী রিপোর্টার্স ইউনিটির সভাপতি খায়রুল ইসলাম, আগৈলঝাড়া রিপোর্টার্স ইউনিটির সভাপতি সাইফুল ইসলাম।

চাঁপাইনবাবগঞ্জ

চাঁপাইনবাবগঞ্জে বুধবার বেলা ১১টার দিকে মানববন্ধন করা হয়েছে। জেলার তিনটি প্রেসক্লাবের সাংবাদিকেরা ব্যানার নিয়ে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেন। চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা তসলিম উদ্দিনের সভাপতিত্বে মানববন্ধনে বক্তৃতা করেন চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি গোলাম মোস্তফা, সাধারণ সম্পাদক শহীদুল হুদা, চাঁপাইনবাবগঞ্জে প্রথম আলোর নিজস্ব প্রতিবেদক আনোয়ার হোসেন, জ্যেষ্ঠ সাংবাদিক শামসুল আলম, চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি জাফরুল আলম, সাবেক সভাপতি এমরান ফারুক, সাবেক সাধারণ সম্পাদক ডাবলু কুমার ঘোষ, সাধারণ সম্পাদক রফিকুল আলম, সিটি প্রেসক্লাবের সভাপতি সাজেদুর রহমান প্রমুখ। সঞ্চালনা করেন চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রেসক্লাবের সহসম্পাদক ফয়সাল মাহমুদ।

বক্তারা বলেন, সাংবাদিক রোজিনা ইসলামের সঙ্গে যে আচরণ করা হয়েছে, তা অত্যন্ত ন্যক্কারজনক, ক্ষমতার চরম অপব্যবহার। এ ঘটনায় স্বাস্থ্যমন্ত্রীর পদত্যাগ ও রোজিনাকে হেনস্তাকারীদের বিচার দাবি করেন তাঁরা।

নরসিংদী

নরসিংদীতে বিভিন্ন শ্রেণি–পেশার মানুষ আজ বেলা ১১টার দিকে শহরের প্রেসক্লাবের সামনে মানববন্ধন করেন। এতে জাতীয় তেল-গ্যাস, বিদ্যুৎ-বন্দর ও খনিজ সম্পদ রক্ষা জাতীয় কমিটি সদস্য সুমন আজাদের সভাপতিত্বে বক্তৃতা করেন পরিবেশ আন্দোলন নরসিংদীর সভাপতি মঈনুল ইসলাম, নরসিংদী বিজ্ঞান কলেজের শিক্ষক নাজমুল আলম, প্রিপারেটরি কলেজের অধ্যক্ষ সুব্রত কুমার দে, আমরা নরসিংদীবাসী সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক তৌকির আহমেদ, চিত্রশিল্পী প্রাণতোষ দত্ত, গল্পকার শাদমান শাহিদ, বাংলাদেশ লেখক শিবিরের সাধারণ সম্পাদক মমিন আফ্রাদ, অনুভবে নরসিংদী ফেসবুক গ্রুপের অ্যাডমিন রফিকুল ইসলাম, প্রথম আলো বন্ধুসভা নরসিংদীর সভাপতি পল্টন দাস ও সাংগঠনিক সম্পাদক সীমান্ত সাহা প্রমুখ। আরও অংশ নেন সাংবাদিক আসাদুজ্জামান রিপন, আইয়ুব খান সরকার, তোফায়েল আহমেদ, আকরাম হোসেন, আশিকুর রহমান, হৃদয় খান, শরীফ ইকবাল প্রমুখ।

মানববন্ধনের অন্যতম আয়োজক ছিলেন মুক্তধারা নাট্যসম্প্রদায়ের সাধারণ সম্পাদক হাসান মাহমুদ। তিনি বলেন, ‘আমরা অবিলম্বে সাংবাদিক রোজিনা ইসলামের নিঃশর্ত মুক্তি চাই। একই সঙ্গে অফিশিয়াল সিকিউরিটি অ্যাক্ট ও ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মতো কালো আইন বাতিল চাই।’

কালীগঞ্জ, ঝিনাইদহ

ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ শহরের বাসস্ট্যান্ডে আজ সকালে মানববন্ধন করা হয়েছে। কালীগঞ্জে কর্মরত সাংবাদিকেরা এ মানববন্ধনের আয়োজন করেন। এতে বক্তৃতা করেন ক্রীড়া সংগঠক অজিত ভট্টাচার্য, মানবাধিকারকর্মী শিবুপদ বিশ্বাস, প্রথম আলোর নিজস্ব প্রতিবেদক আজাদ রহমান, সমকাল প্রতিনিধি জামির হোসেন, দিনকাল প্রতিনিধি জাকারিয়া হোসেন, মাই টিভির প্রতিনিধি মিঠু মালিথা, কালের কণ্ঠ প্রতিনিধি নয়ন খন্দকার ও আরটিভির প্রতিনিধি শিপলু জামান।

বক্তারা বলেন, দুর্নীতিবাজ কর্মকর্তারা নিজেদের বাঁচাতে একজন সৎ ও নির্ভীক সাংবাদিককে জেলে দিয়েছেন। যে সাংবাদিক একের পর এক স্বাস্থ্য খাত নিয়ে প্রতিবেদন করে যাচ্ছিলেন। তাঁর প্রতিবেদনে উঠে আসছিল ওই খাতের সব অনিয়ম আর দুর্নীতি। তাঁরা অবিলম্বে রোজিনা ইসলামের মুক্তি দাবি করেন, পাশাপাশি দুর্নীতিবাজ কর্মকর্তাদের অঢেল সম্পদের উৎস খুঁজে বের করে আইনের আওতায় নিয়ে আসার দাবি জানান।

গোপালগঞ্জ

গোপালগঞ্জ প্রেসক্লাবের সামনে আজ সকাল ১০টায় ঘণ্টাব্যাপী মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করা হয়েছে। গোপালগঞ্জ প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ মিরাজুল ইসলামের সভাপতিত্বে বক্তৃতা করেন দৈনিক যুগান্তরের জেলা প্রতিনিধি এস এম হুমায়ুন কবীর, দৈনিক সংবাদের রবীন্দ্রনাথ অধিকারী, সমকালের মনোজ সাহা, বৈশাখী টিভির শেখ মোস্তাফা জামান, এনটিভির মাহবুব হোসেন সারমাত, এটিএন বাংলার চৌধুরী হাসান মাহমুদ, প্রথম আলোর নুতন শেখ, বিটিভির মেহেদী হাসান, একাত্তর টিভির আজিজুর রহমান, এশিয়ানএজের মিজানুর রহমান, ঢাকা পোস্টের লিয়াকত হোসেন, জবাবদিহির মোহাম্মদ মাহমুদ কবির আলী, ফকির মিরাজ আলী প্রমুখ। মানববন্ধন সঞ্চালনা করেন চ্যানেল টোয়েন্টিফোরের রাজীব আহমেদ।

সাংবাদিক রোজিনা ইসলামের সঙ্গে অসৌজন্যমূলক আচরণের তীব্র নিন্দা ও স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেকের পদত্যাগের দাবি করে বক্তারা জানান, ঘটনার সঙ্গে জড়িত স্বাস্থ্য বিভাগের অতিরিক্ত সচিব কাজী জেবুন্নেছা বেগম ও তাঁর সহযোগী কর্মকর্তা-কর্মচারীদের অবিলম্বে গ্রেপ্তার করে শাস্তি দিতে হবে। সেই সঙ্গে সাংবাদিক রোজিনাকে দ্রুত নিঃশর্ত মুক্তি দিতে হবে।

default-image

ব্রাহ্মণবাড়িয়া

‘করোনা প্রতিরোধ করো, স্বাস্থ্যমন্ত্রীকে প্রত্যাহার করো’ স্লোগান গিয়ে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় মানববন্ধন করা হয়েছে। বুধবার বেলা ১১টার দিকে ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রেসক্লাবের সামনে এ মানববন্ধন করা হয়।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রেসক্লাবের সভাপতি রিয়াজ উদ্দিনের সভাপতিত্বে মানববন্ধনে বক্তৃতা করেন সাধারণ সম্পাদক জাবেদ রহিম, জ্যেষ্ঠ সহসভাপতি পীযূষ কান্তি আচার্য, জেলা টেলিভিশন জার্নালিস্ট অ্যাসোসিয়েশনের আহ্বায়ক মঞ্জুরুল আলম, প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি মোহাম্মদ আরজু, দৈনিক সমকালের নিজস্ব প্রতিবেদক আবদুন নূর, সাবেক জ্যেষ্ঠ সহসভাপতি আলামিন শাহীন। সঞ্চালনা করেন সাংবাদিক মনির হোসেন।

বক্তারা বলেন, সচিবালয়ে পাঁচ ঘণ্টার বেশি সময় আটকে রেখে রোজিনা ইসলামকে মানসিক, শারীরিক নির্যাতন ও হেনস্তা করা হয়েছে। এর মাধ্যমে বাংলাদেশের সাংবাদিকতার কণ্ঠরোধের চেষ্টা করা হয়েছে। এ ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের শাস্তি নিশ্চিত করতে হবে।

পিরোজপুর

পিরোজপুরে প্রতিবাদ সমাবেশ ও মানববন্ধন কর্মসূচি পালিত হয়েছে। বুধবার বেলা ১১টায় শহরের গোপালকৃষ্ণ টাউন ক্লাব সড়কে এ কর্মসূচি পালন করা হয়। মানববন্ধন শেষে পিরোজপুর প্রেসক্লাবের আহ্বায়ক গৌতম চৌধুরীর সভাপতিত্বে সমাবেশে বক্তব্য দেন সাংবাদিক নাসিম আলী, এম এ রব্বানী, এ কে আজাদ, জহিরুল হক, জিয়াউল আহসান, রেজাউল ইসলাম, ফসিউল ইসলাম, তানভীর আহমেদ প্রমুখ।

সাংবাদিক রোজিনা ইসলামের মুক্তি দাবি করে বক্তারা বলেন, এ ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের শাস্তি নিশ্চিত করতে হবে।

এদিকে কাউখালী উপজেলা পরিষদের সামনের ঘণ্টাব্যাপী মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করা হয়েছে। এতে বীর মুক্তিযোদ্ধা আলী হোসেন তালুকদার, মহিলা পরিষদের সভানেত্রী সুনন্দা সমদ্দার, প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির সভাপতি সুব্রত রায়, কাউখালী উন্নয়ন পরিষদের সভাপতি আবদুল লতিফ, কাউখালী প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক এনামুল হক ও সাংবাদিক শেখ রিয়াজ আহম্মেদ বক্তৃতা করেন।

default-image

নীলফামারী

নীলফামারীর জলঢাকা ও ডোমার উপজেলায় পৃথক মানববন্ধন ও সমাবেশ করা হয়েছে। বুধবার বেলা ১১টার দিকে জলঢাকা শহরের জিরো পয়েন্টে এবং একই সময়ে ডোমার রেলঘুন্টি মোড়ে মানববন্ধন করা হয়।

জলঢাকা উপজেলা সাংবাদিক ঐক্য পরিষদের আহ্বায়ক মাহবুবর রহমান সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন। বক্তৃতা করেন সাংবাদিক নূর আলম, হাসিবুল ইসলাম, মৃত্যুঞ্জয় রায়, আবেদ আলী, সফিকুল ইসলাম, হাসান সিদ্দিকী, তাইজুল ইসলাম, শানিনুর হক, মীর মাহমুদুল হাসান ও সাংস্কৃতিক জোটের সাধারণ সম্পাদক অবিনাশ রায় প্রমুখ।

এদিকে ডোমারের সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন ইত্তেফাকের প্রতিনিধি মোজফ্ফর আলী। বক্তৃতা করেন সাংবাদিক রায়হান সবুক্তগীন, আবু ফাত্তাহ কামাল, ইয়াছিন মোহাম্মদ সিথুন, রওশন রশীদ, জুলফিকার আলী, মো. আসাদুজ্জামান, আবদুল্লাহ আল মামুন, আনিছুর রহমান, রতন রায়, জাবেদুল ইসলাম, এ আই পলাশ, জুয়েল বসুনিয়া, এমদাদুল হক প্রমুখ।

default-image

যশোর

যশোরে সাংবাদিকদের সাতটি সংগঠনের ডাকে আজ বেলা ১১টার প্রেসক্লাবের সামনে যৌথ অবস্থান কর্মসূচি ও বিক্ষোভ মিছিল করা হয়েছে। ছয় দফা দাবিতে যশোর জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রীর কাছে স্মারকলিপি দেওয়া হয়েছে। বুধবার দুপুরে এসব কর্মসূচি পালন করা হয়।

এসব কর্মসূচিতে অংশ নেন যশোর সংবাদপত্র পরিষদের সভাপতি একরাম-উদ-দ্দৌলা, যশোর প্রেসক্লাবের সম্পাদক আহসান কবীর, যশোর সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি ফারাজি আহমেদ সাঈদ, সাংবাদিক ইউনিয়ন যশোরের সাধারণ সম্পাদক আকরামুজ্জামান, যশোর জেলা সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি শেখ দিনু আহমেদ, ফটো জার্নালিস্ট অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি মুনীরুজ্জামান ও টিভি জার্নালিস্ট অ্যাসোসিয়েশনের জিয়াউল হক।

সংহতি জানিয়ে কর্মসূচিতে যোগ দেন যশোর প্রেসক্লাবের সভাপতি জাহিদ হাসান, বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির (মার্ক্সবাদী) কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক ইকবাল কবির জাহিদ, দৈনিক লোকসমাজ পত্রিকার নির্বাহী সম্পাদক অনিন্দ্য ইসলাম, ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক আনোয়ারুল কবীর, দৈনিক গ্রামের কাগজের সম্পাদক ও প্রকাশক মবিনুল ইসলাম প্রমুখ।

বক্তারা বলেন, সাংবাদিক রোজিনার বিরুদ্ধে উত্থাপিত ‘চুরির অভিযোগ’ নিতান্তই হাস্যকর ও ষড়যন্ত্রমূলক। স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের আমলাদের অনিয়ম-দুর্নীতির প্রতিবেদন প্রকাশ করায় তাঁর সঙ্গে এ ধরনের ন্যক্কারজনক ঘটনা ঘটানো হয়েছে। অবিলম্বে রোজিনা ইসলামের নিঃশর্ত মুক্তি দিতে হবে ও নিপীড়নকারীদের শাস্তির আওতায় আনতে হবে।

নাটোর

বুধবার সকাল ১০টায় নাটোর শহরে তাপ দাহ উপেক্ষা করে মানববন্ধন করেছেন স্থানীয় সাংবাদিক ও সুশীল সমাজের প্রতিনিধিরা। ইউনাইটেড প্রেসক্লাব এ কর্মসূচির আয়োজন করে।

প্রেসক্লাবটির সাধারণ সম্পাদক মাহবুব হোসেন, সভাপতি রেজাউল করিম, সনাক নাটোরের সভাপতি ও প্রবীণ সাংবাদিক রনেন্দ্রনাথ রায়, লাঠি-বাঁশি সমিতির প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি আবদুস সালাম, জ্যেষ্ঠ সাংবাদিক ও বীর মুক্তিযোদ্ধা নবিউর রহমান, জ্যেষ্ঠ সাংবাদিক জুলফিকার, সাংবাদিক মুক্তার হোসেন, হায়দার জোসেফ, ইসহাক আলী, নাজমুল ইসলাম, সালাউদ্দিন আহমেদ, সাইফুল ইসলাম, অহিদুল হক, মঞ্জুরুল ইসলাম, আক্তার হোসেন প্রমুখ মানববন্ধনে অংশ নেন।

বক্তারা বলেন, রোজিনা ইসলামের বিরুদ্ধে দায়ের করা মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার করে তাঁকে নিঃশর্ত মুক্তি দিতে হবে। বৃহস্পতিবারের মধ্যে তাঁকে মুক্তি দেওয়া না হলে শনিবার থেকে কঠোর কর্মসূচি দেওয়া হব।

default-image

রাজশাহী

রাজশাহী নগরের সাহেববাজার প্রেসক্লাবের সামনে বেলা ১১টায় মানববন্ধন করা হয়েছে। এতে বক্তৃতা করেন সুজনের রাজশাহী জেলার সভাপতি সফিউদ্দিন আহমেদ, রাজশাহী প্রেসক্লাবের সভাপতি সাইদুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক আসলাম-উদ-দৌলা, রাজশাহী প্রথম আলোর নিজস্ব প্রতিবেদক আবুল কালাম মুহম্মদ আজাদ প্রমুখ।

বক্তারা বলেন, একটি দেশের স্বাস্থ্য খাত ভেঙে পড়লে দেশ ভেঙে পড়ে। দেশের স্বাস্থ্য খাত এই করোনাকালে অনিয়ম ও দুর্নীতির কারণে ভঙ্গুর হয়ে পড়েছে। সেই জায়গা থেকে দেশকে ভালোবেসে প্রথম আলোর সাংবাদিক রোজিনা ইসলাম অনিয়ম ও দুর্নীতি নিয়ে ধারাবাহিক প্রতিবেদন করেছেন। বিনিময়ে এই আমলাতন্ত্র তাঁকে ফাঁসিয়ে কারাগারে পাঠিয়েছে। তাঁকে সচিবালয়ের মতো একটি জায়গায় পাঁচ ঘণ্টার বেশি সময় ধরে হেনস্তা ও নির্যাতন করা হয়েছে। এই অন্যায়কারীদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নিতে হবে।

আদমদীঘি, বগুড়া

বগুড়ার আদমদীঘি উপজেলার সান্তাহার রেলগেট এলাকায় আজ সকাল সাড়ে ১০টায় মানববন্ধন করা হয়েছে। এর আয়োজন করে সান্তাহার প্রথম আলো বন্ধুসভা। মানববন্ধনে জাতীয় ও স্থানীয় পত্রিকার সাংবাদিক, সুধী সমাজের প্রতিনিধি ও বন্ধুসভার সদস্যরা অংশ নেন।

সান্তাহার প্রেসক্লাবের সভাপতি গোলাম আম্বিয়ার সভাপতিত্বে বক্তৃতা করেন দৈনিক জনকণ্ঠের হারেজুজ্জামান, ভোরের পাতার সাগর খান, ইনকিলাবের মনসুর আলী, প্রথম আলোর আদমদীঘি প্রতিনিধি খায়রুল ইসলাম, সাংবাদিক তোফায়েল হোসেন, আবুবক্কর সিদ্দীক, মমতাজুর রহমান, নয়ন ইসলাম, আবদুল মতিন, মাহামুদ হোসেন, বেনজির রহমান, মনজু ইসলাম, সান্তাহার বন্ধুসভার সভাপতি রবিউল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক আহসান হাবিব, সুধী সমাজের প্রতিনিধি সান্তাহার পৌরসভার সাবেক মেয়র ফিরোজ মো. কামরুল হাসান, অধ্যাপক দিলীপ কুমার প্রমুখ।

পেকুয়া, কক্সবাজার

দুপুরে কক্সবাজারের পেকুয়া চৌমুহনী মোড়ে মানববন্ধন হয়। পেকুয়ায় কর্মরত সংবাদকর্মীবৃন্দের ব্যানারে মানববন্ধনে বক্তব্য দেন পেকুয়া প্রেসক্লাবের সভাপতি ছফওয়ানুল করিম, সাংবাদিক এস এম হানিফ, পেকুয়া উপজেলা প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক এম দিদারুল করিম, পেকুয়া রিপোর্টার্স ইউনিটির সভাপতি মো. ফারুক, সংবাদকর্মী জালাল উদ্দিন, এফ এম সুমন, শাখাওয়াত হোছাইন প্রমুখ। এ ছাড়া পেকুয়ায় কর্মরত প্রিন্ট ও বিভিন্ন ইলেকট্রনিক মিডিয়ার সংবাদকর্মী এবং পত্রিকার হকাররা উপস্থিত ছিলেন।

বক্তারা বলেন, পেশাগত দায়িত্ব পালন করতে গেলে সাংবাদিক রোজিনা ইসলামকে যেভাবে আটক, হেনস্তা ও গলা টিপে হত্যার চেষ্টা করা হয়েছে, তা ন্যক্কারজনক। তাঁকে মুক্তিই শুধু নয়, তাঁকে আটক-হেনস্তার সঙ্গে জড়িত সব কর্মকর্তা-কর্মচারীকে বিচারের আওতায় আনতে হবে।

সোনাগাজী, ফেনী

দুপুরে ফেনীর সোনাগাজী পৌর শহরের জিরো পয়েন্ট এলাকায় সোনাগাজীতে কর্মরত সাংবাদিকদের ব্যানারে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ হয়। সোনাগাজী প্রেসক্লাবের সভাপতি শেখ আবদুল হান্নানের সভাপতিত্বে ও সাংবাদিক ইকবাল হোসাইনের সঞ্চালনায় বক্তব্য দেন যুগান্তরের প্রতিনিধি জাবেদ হোসাইন, সাংবাদিক আমজাদ হোসাইন, সমকালের প্রতিনিধি আবুল হোসেন, আমাদের সময়ের প্রতিনিধি ওমর ফারুক, সাংবাদিক শহীদুল ইসলাম, মোতাহের হোসেন, হাবিবুল ইসলাম, আলমগীর হোসেন, এস এন আফছার, আবদুল্লাহ রিয়েল, শরীয়ত উল্যাহ প্রমুখ।

বক্তারা বলেন, সাংবাদিক রোজিনা ইসলামকে নির্যাতনের পর জড়িতদের বিচারের আওতায় না এনে স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক তাঁর দপ্তরের দুর্নীতিবাজ কর্মকর্তাদের পক্ষে সাফাই গেয়ে তিনি নির্লজ্জতার পরিচয় দিয়েছেন। এতে দেশের মানুষের কাছে ও আন্তর্জাতিক মহলে বাংলাদেশের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন হয়েছে।

আখাউড়া, ব্রাহ্মণবাড়িয়া

আখাউড়ার সাংবাদিক সমাজের ব্যানারে সকালে পৌর শহরের সড়ক বাজারে অ্যাড. সিরাজুল হক পৌর মুক্তমঞ্চের সামনে মানববন্ধনে আখাউড়ার বিভিন্ন গণমাধ্যমে কর্মরত সাংবাদিকেরা অংশ নেন। বক্তব্য দেন সাংবাদিক মানিক মিয়া, শাহাদাত হোসেন, বিশ্বজিৎ পাল, হান্নান খাদেম, সাইফুল ইসলাম, মহিউদ্দিন মিশু, দুলাল ঘোষ, মো. জুয়েল মিয়া, শরীফুল ইসলাম, জালাল হোসেন, ফজলে রাব্বি, রুবেল আহমেদ প্রমুখ। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন মোহাম্মদ আবির। উপস্থিত ছিলেন সাংবাদিক নাসির উদ্দিন, কাজী মফিকুল ইসলাম, মোশারফ হোসেন, আশীষ সাহা, তাজবীর আহমেদ, হাসান মাহমুদ, নাজমুল আহমেদ, সফিকুল ইসলাম, সাদ্দাম হোসেন, আল আমিন, রবিন আহমেদ প্রমুখ।

মতলব দক্ষিণ, চাঁদপুর

বেলা সাড়ে তিনটায় মতলব প্রেসক্লাব কার্যালয়ে প্রতিবাদ সভা হয়। মতলব প্রেসক্লাবের সভাপতি ইকবাল হোসেনের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক গোলাম হায়দার মোল্লার সঞ্চালনায় সভায় বক্তব্য দেন সাংবাদিক মুহাম্মদ জাকির হোসেন, মতলব প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি রোকনুজ্জামান রোকন, মতলব উত্তর উপজেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি আবদুল লতিফ মিয়াজী, মতলব প্রেসক্লাবের সহসভাপতি আক্তারুজ্জামান, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহফুজ মল্লিক, রেদোয়ান আহম্মেদ, সাংগঠনিক সম্পাদক মোস্তাফিজুর রহমান, অর্থ সম্পাদক পলাশ রায়, প্রচার সম্পাদক মোশারফ হোসেন তালুকদার, ক্রীড়া সম্পাদক মোদাচ্ছের হোসেন পাটোয়ারী, সংবাদকর্মী মো. সাম্মির হোসেন, ফয়সাল খন্দকার, মিজানুর রহমান প্রমুখ।

বক্তারা বলেন, সাংবাদিক রোজিনা ইসলাম একজন সাহসী, সৎ ও অনুসন্ধানী সাংবাদিক। বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ পরিবেশন করায় দেশে-বিদেশে তাঁর পরিচিতি ও সুনাম রয়েছে। এমন একজন প্রখ্যাত ও সাহসী সাংবাদিককে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ে যেভাবে আটকে রেখে হেনস্তা করা হয় এবং সাজানো মামলায় গ্রেপ্তার করা হয়, তা দুঃখজনক। অবিলম্বে রোজিনা ইসলামের মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার করে তাঁকে নিঃশর্ত মুক্তি দেওয়া হোক।

সাংবাদিক রোজিনা ইসলামের মুক্তির দাবিতে বেলা তিনটায় স্থানীয় রিকশাস্ট্যান্ড এলাকায় মতলব রিপোর্টার্স ইউনিটি মানববন্ধন করে। এতে মতলব প্রেসক্লাবের সাবেক সাধারণ সম্পাদক শ্যামল চন্দ্র দাস ও ফজলে রাব্বি ইয়ামিন, রিপোর্টার্স ইউনিটির সভাপতি সোবহান ফারুক ও সাধারণ সম্পাদক কামাল হোসেন দেওয়ান, আমাদের অর্থনীতির প্রতিনিধি আবদুল মান্নান খান এবং বাংলাদেশের আলোর প্রতিনিধি আশরাফুল জাহান শাওলিনসহ অন্যান্য সংবাদকর্মী অংশ নেন।

খুলনা

default-image

সকাল সাড়ে ১০টায় খুলনা প্রেসক্লাবের সামনে মানববন্ধন করে বাংলাদেশ গণশিল্পী সংস্থা খুলনা শাখা। এ ছাড়া বেলা ১১টার দিকে নগরের শিববাড়ী মোড়ে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ সমাবেশ করে খুলনা টিভি জার্নালিস্ট অ্যাসোসিয়েশন। বেলা সাড়ে ১১টা থেকে ১টা পর্যন্ত প্রেসক্লাবের সামনে মানববন্ধন ও অবস্থান কর্মসূচি পালন করে খুলনা সাংবাদিক ইউনিয়ন।

বক্তারা বলেন, সাংবাদিক রোজিনা ইসলাম স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের বিভিন্ন অনিয়ম ও দুর্নীতির বিষয়ে ধারাবাহিকভাবে প্রতিবেদন করছিলেন। তাঁর এসব প্রতিবেদনের মাধ্যমেই স্বাস্থ্য খাতের বিভিন্ন অনিয়ম ও দুর্নীতি মানুষের সামনে উঠে আসে। স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের দুর্নীতি ঢাকার জন্য সেখানকার কর্মকর্তারা রোজিনার ওপর নির্যাতন করেছেন। তাঁকে মিথ্যা মামলা দিয়ে কারাগারে পাঠিয়েছেন। এটা স্বাধীন সাংবাদিকতাবিরোধী। তাঁর বিরুদ্ধে যে আইনে মামলা করা হয়েছে, সেটিও ব্রিটিশ আমলের একটি আইন। এটি রাষ্ট্রের সংবিধানবিরোধী। বক্তারা দুর্নীতিপরায়ণ স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তাদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি চান। একই সঙ্গে রোজিনার নিঃশর্ত মুক্তি দাবি করেন। অন্যথায় কঠোর আন্দোলনের হুঁশিয়ারি দেন তাঁরা।

বক্তব্য দেন বাংলাদেশ মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশন খুলনা জেলা সভাপতি শেখ বাহারুল আলম, খুলনা প্রেসক্লাবের সভাপতি এস এম জাহিদ হোসেন, সাধারণ সম্পাদক হাসান আহমেদ মোল্লা, খুলনা সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি মুন্সি মাহবুব আলম, সাধারণ সম্পাদক সায়েদুজ্জামান সম্রাট, এটিএন বাংলা খুলনার ব্যুরো প্রধান এস এম হাবিব, সিপিবির সম্পাদকমণ্ডলীর সদস্য মিজানুর রহমান, ওয়ার্কার্স পার্টি খুলনার সভাপতি মফিদুল ইসলাম, বাংলাদেশ সমাজতান্ত্রিক দলের (বাসদ) খুলনার সমন্বয়কারী জনার্দন দত্ত, গণসংহতি আন্দোলনের খুলনা জেলা সমন্বয়কারী মুনীর চৌধুরী, সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের সমন্বয়কারী হুমায়ুন কবির প্রমুখ।

হরিণাকুণ্ডু, ঝিনাইদহ

বেলা ১১টায় হরিণাকুণ্ডু প্রেসক্লাবের আয়োজনে দোয়েল চত্বর মোড়ে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশে বক্তব্য দেন সমকালের প্রতিনিধি এম সাইফুজ্জামান তাজু, প্রেসক্লাবের সম্পাদক এইচ মাহবুব মিলু, ইত্তেফাকের প্রতিনিধি শাহনুর আলম, নয়াদিগন্তের প্রতিনিধি মাহবুব মুরশেদ শাহিন প্রমুখ। বুধবার বেলা ১১টায় শৈলকুপা প্রেসক্লাবের উদ্যোগে প্রেসক্লাব প্রাঙ্গণে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ হয়।

প্রেসক্লাবের সভাপতি এম হাসান মুসার সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক শাহিন আক্তারের সঞ্চালনায় বক্তব্য দেন ডিবিসি টেলিভিশনের ঝিনাইদহ প্রতিনিধি আবদুর রহমান, প্রেসক্লাবের সহসভাপতি মফিজুল ইসলাম, সমকালের সাংবাদিক তাজনুর রহমান, সাংবাদিক মো. আলিমুজ্জামান প্রমুখ। ঝিনাইদহ শহরের পায়রা চত্বরে সকালের মানববন্ধনে ব্যানার-ফেস্টুন নিয়ে ঝিনাইদহে কর্মরত বিভিন্ন মিডিয়ায় কর্মরত সংবাদকর্মী ও মানবাধিকারকর্মীরা অংশ নেন।

মেহেরপুর

সকাল সাড়ে ১০টায় মেহেরপুর রিপোর্টার্স ক্লাবের আয়োজনে ক্লাবের সামনের প্রধান সড়কে মানববন্ধন হয়। মেহেরপুর রিপোর্টার্স ক্লাবের সহসভাপতি ডি এম মকিদের সভাপতিত্বে বক্তব্য দেন মেহেরপুর রিপোর্টার্স ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক আতিক স্বপন, যুগ্ম সম্পাদক মিজানুর রহমান, নির্বাহী সদস্য সাঈদ হোসেন, মিনারুল ইসলাম প্রমুখ। বক্তারা বলেন, রোজিনাকে নিঃশর্ত মুক্তি দিয়ে তাঁর ওপর হামলাকারীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দেওয়া হোক এবং সেই সঙ্গে ডিজিটাল সিকিউরিটি অ্যাক্ট বাতিল করা হোক।

বুধবার বেলা ১১টায় গাংনী উপজেলা প্রেসক্লাব ও সুজনের উদ্যোগে মানববন্ধন হয়। উপস্থিত ছিলেন গাংনী প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক মাহবুবুর রহমান, সাংবাদিক মাজেদুল হক, উপজেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি আমিরুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক নুরুজ্জামান পাভেল, সাংবাদিক জুলফিকার কানন, হারুনুর রশিদ, এম এম লিংকন, লিটন মাহমুদ, রাকিবুল ইসলাম প্রমুখ। বক্তারা বলেন, অনুসন্ধানী সাংবাদিকতার উজ্জ্বল নক্ষত্র সাংবাদিক রোজিনা। সম্প্রতি স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ে তাঁকে আটকে রেখে স্বাস্থ্য বিভাগের কর্মচারীরা যে অমানবিক নির্যাতন করেছেন, সাংবাদিকতার ইতিহাসে তা বিরল।

মাগুরা

বেলা সাড়ে ১১টায় মাগুরা সরকারি হোসেন শহীদ সোহরাওয়ার্দী কলেজের সামনে প্রথম আলো বন্ধুসভার আয়োজনে মানববন্ধনে বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দলের (বাসদ) কেন্দ্রীয় পাঠচক্র ফোরামের সদস্য প্রকৌশলী শম্পা বসু বলেন, সরকার যদি এসব দুর্নীতিবাজ আমলার বিরুদ্ধে পদক্ষেপ না নেয়, তবে জনগণের মধ্যে ক্ষোভ তৈরি হবে এবং সরকার চরম ভাবমূর্তির সংকটে পড়বে।

বক্তব্য দেন মাগুরা প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক শামীম আহমেদ খান, বাংলাদেশ মহিলা পরিষদ মাগুরার সভাপতি মমতাজ বেগম, ক্রীড়া সংগঠক বারিক আনজাম বারকি, সাংবাদিক কাজী আশিক রহমান প্রমুখ। একই স্থানে বেলা ১১টায় মানববন্ধন করে মাগুরা রিপোর্টার্স ইউনিটি। বক্তব্য দেন সংগঠনের সভাপতি এইচ এন কামরুল ইসলাম, সহসভাপতি মো. আশরাফ আলী, সাধারণ সম্পাদক মো. ইউনুছ আলী প্রমুখ।

বেলা ১১টায় মাগুরা প্রেসক্লাবের সামনে মানববন্ধন করে জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল (জাসদ)। বক্তব্য দেন সংগঠনের মাগুরা জেলা কমিটির সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা সৈয়দ অহিদুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক সমীর চক্রবর্তী, সহসভাপতি কবি মিয়া ওয়াহিদ কামাল, সাংগঠনিক সম্পাদক মিজানুর রহমান প্রমুখ।

সিলেট

default-image

সিলেটে কর্মরত সাংবাদিকেরা বুধবার প্রতিবাদ সভা, মানববন্ধন, অবস্থান কর্মসূচিসহ বিভিন্ন কর্মসূচির মাধ্যমে সাংবাদিক রোজিনা ইসলামকে হেনস্তা ও গ্রেপ্তারের প্রতিবাদ জানিয়েছেন। কর্মসূচিতে বক্তারা এ ঘটনায় জড়িত স্বাস্থ্য বিভাগের কর্মকর্তাদের আইনের আওতায় আনার দাবি জানান। বক্তারা বলেন, দেশ আজ উল্টো পথে পরিচালিত হচ্ছে। তা না হলে যেখানে দুর্নীতিবাজদের শাস্তি হওয়ার কথা, সেখানে যিনি ধারাবাহিকভাবে অনুসন্ধানী প্রতিবেদনের মাধ্যমে জনগণের সামনে দুর্নীতির চিত্র প্রকাশ করেছেন, তাঁর শাস্তি হচ্ছে। সাংবাদিক রোজিনা ইসলামকে হেনস্তা ও নিপীড়নের বিষয়টি সুশাসনকে প্রশ্নবিদ্ধ করেছে।

বেলা তিনটার দিকে নগরের চৌহাট্টা এলাকায় সিভিল সার্জন কার্যালয়ের সামনে সিলেট জেলা প্রেসক্লাবের উদ্যোগে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ হয়েছে। প্রেসক্লাবের সভাপতি আল আজাদের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক ছামির মাহমুদের সঞ্চালনায় এ সময় সিলেটের প্রবীণ-নবীন সাংবাদিকেরা বক্তব্য দেন।

এর আগে দুপুর ১২টার দিকে সিলেট প্রেসক্লাবের উদ্যোগে নগরের সুবিদবাজার এলাকায় প্রেসক্লাব ভবনের সামনে অবস্থান কর্মসূচি পালন করা হয়। পরে আয়োজিত এক প্রতিবাদ সভায় সভাপতিত্ব করেন সিলেট প্রেসক্লাবের সভাপতি ইকবাল সিদ্দিকী। সূচনা বক্তব্য দেন সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রশিদ মো. রেণু। সভা সঞ্চালনা করেন সাংবাদিক আহমাদ সেলিম।

বেলা তিনটার দিকে জেলার বিশ্বনাথ উপজেলায় বাসিয়া সেতুর সম্মুখ অংশে ‘বিশ্বনাথ উপজেলায় কর্মরত সাংবাদিকবৃন্দ’র ব্যানারে চোখে কালো কাপড় বেঁধে মানববন্ধন করা হয়।

বিকেল চারটার দিকে নগরের চৌহাট্টা এলাকার সিলেট কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারের সামনে মানববন্ধন করেছে বাংলাদেশ নারী সাংবাদিক কেন্দ্র সিলেট শাখা। কর্মসূচিতে উপস্থিত ছিলেন সংগঠনের সিলেট শাখার আহ্বায়ক বিলকিস আক্তার, যুগ্ম আহ্বায়ক মনিকা ইসলাম, সাংবাদিক সুবর্ণা হামিদ, শাকিলা ববি, বুশরা নূর, ফাতেমা সুলতানা, অমিতা সিনহা প্রমুখ।

এ ছাড়া সাংবাদিক রোজিনা ইসলামকে হেনস্তা ও সাজানো মামলায় জড়ানোর প্রতিবাদ জানিয়ে বিবৃতি দিয়েছে সম্পাদক পরিষদ সিলেট, সিলেট সাংবাদিক ইউনিয়ন, শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় প্রেসক্লাব এবং জেলার জৈন্তাপুর প্রেসক্লাব, ফেঞ্চুগঞ্জ প্রেসক্লাব, ওসমানীনগর প্রেসক্লাবসহ বিভিন্ন সামাজিক, রাজনৈতিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠন।

মৌলভীবাজার

দুপুরে মৌলভীবাজারের বড়লেখা পৌর শহরের শহীদ মিনার প্রাঙ্গণে মানববন্ধন করেছে বড়লেখা প্রেসক্লাব। সভাপতিত্ব করেন বড়লেখা প্রেসক্লাবের সভাপতি অসিত রঞ্জন দাস। ইত্তেফাকের প্রতিনিধি তপন কুমার দাসের সঞ্চালনায় বক্তব্য দেন বড়লেখা প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক গোপাল দত্ত, উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষক সমিতির সভাপতি লুৎফুর রহমান, নজরুল একাডেমির উপদেষ্টা জুনায়েদ রায়হান, যুক্তরাজ্যপ্রবাসী সাংবাদিক কায়সারুল ইসলাম, সমাজকল্যাণ সংগঠন ফ্রেন্ডস ক্লাব ইউকের বড়লেখা প্রতিনিধি নাজিম উদ্দিন, যুগান্তরের প্রতিনিধি আবদুর রব, কালের কণ্ঠের প্রতিনিধি লিটন শরীফ, আমাদের সময়ের প্রতিনিধি ইকবাল হোসেন, ভোরের কাগজের প্রতিনিধি মিজানুর রহমান, যায়যায়দিনের প্রতিনিধি সুলতান আহমদ, সকালের সময়ের প্রতিনিধি ময়নুল ইসলাম প্রমুখ।

বক্তারা বলেন, পেশাগত দায়িত্ব পালনের সময় সাংবাদিক রোজিনা ইসলামের সঙ্গে যে ঘটনা ঘটানো হয়েছে, তা দুঃখজনক। রোজিনা ইসলাম স্বাস্থ্য বিভাগের নানা অনিয়ম ও দুর্নীতি নিয়ে ধারাবাহিক প্রতিবেদন প্রকাশ করার কারণেই তাঁর প্রতি ক্ষিপ্ত হয়ে মিথ্যা অভিযোগ দিয়ে আটক রাখা হয়েছে। মামলা করা হয়েছে। অবিলম্বে তাঁর বিরুদ্ধে করা মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার করে তাঁকে নিঃশর্ত মুক্তি দিতে হবে।

‘কর্মরত সাংবাদিকবৃন্দ, জুড়ী, মৌলভীবাজার’ ব্যানারে দুপুর ১২টার দিকে জুড়ী উপজেলা সদরের জাঙ্গিরাই এলাকায় বীর মুক্তিযোদ্ধা এম এ মুমিত আসুক চত্বরে প্রতিবাদ কর্মসূচি পালন করা হয়। এ সময় সাংবাদিকেরা প্রায় আধা ঘণ্টা মুখে কালো কাপড় বেঁধে রাখেন। বক্তব্য দেন সাংবাদিক হারিস মোহাম্মদ, ইমরানুল ইসলাম, সাইফুল ইসলাম, মনিরুল ইসলাম, সাঈফুল্লাহ হাসান প্রমুখ। বক্তারা সাংবাদিক রোজিনা ইসলামকে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ে দীর্ঘ সময় আটকে রেখে হেনস্তা ও তাঁর বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলার প্রতিবাদ জানান।

দুপুর ১২টায় কমলগঞ্জ উপজেলা চৌমুহনার ময়না চত্বরে কমলগঞ্জ সাংবাদিক সমাজের ব্যানারে মানববন্ধন হয়। সাংবাদিক মুজিবুর রহমানের সভাপতিত্বে ও মানবজমিনের প্রতিনিধি সাজিদুর রহমানের সঞ্চালনায় বক্তব্য দেন বাংলাদেশ সাংবাদিক সমিতি কমলগঞ্জ ইউনিটের সভাপতি নুরুল মোহাইমিন, একুশে টিভি ঢাকার প্রতিবেদক মানিক শিকদার, একুশে টিভির ঢাকা অফিসের কর্মী মাসুমা লিসা, সাংবাদিক কবি শহীদ সাগ্নিক, কমলগঞ্জ প্রেসক্লাবের সভাপতি বিশ্বজিৎ রায়, কমলগঞ্জ প্রেসক্লাবের সাবেক সাধারণ সম্পাদক শাহীন আহমেদ, কমলগঞ্জ রিপোর্টার্স ইউনিটির সাধারণ সম্পাদক নির্মল এস পলাশ, সাপ্তাহিক কমলগঞ্জ সংবাদের সম্পাদক সারওয়ার হোসেন প্রমুখ। উপস্থিত ছিলেন কমলগঞ্জ প্রেসক্লাব, কমলগঞ্জ রিপোর্টার্স ইউনিটি, বাংলাদেশ সাংবাদিক সমিতি কমলগঞ্জ ইউনিটি, অনলাইন প্রেসক্লাব ফোরাম, মফস্বল সাংবাদিক ফোরাম কমলগঞ্জসহ বিভিন্ন সংগঠনের নেতারা।

ঝালকাঠি

সকাল ১০টায় ঝালকাঠি প্রেসক্লাবের আয়োজনে মানববন্ধনে সুজন, রিপোর্টার্স ইউনিটি, প্রথম আলো বন্ধুসভা, ইয়ুথ অ্যাকশন সোসাইটি, মানবকল্যাণ সোসাইটি, ৭১-এর চেতনা, প্রতিবাদী নাগরিক মঞ্চসহ বিভিন্ন সংগঠন ও শ্রেণি-পেশার মানুষ অংশ নেন। বক্তব্য দেন ঝালকাঠি প্রেসক্লাবের সভাপতি চিত্তরঞ্জন দত্ত, সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট আক্কাস সিকদার, মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক ডেপুটি কমান্ডার দুলাল সাহা, সুশাসনের জন্য নাগরিক সুজনের ঝালকাঠি জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক মহিন উদ্দিন তালুকদার, শিক্ষক আনিসুর রহমান, সুজন শহর শাখার যুগ্ম সম্পাদক মুশফিকুর রহমান, প্রেসক্লাবের সহসাধারণ সম্পাদক কে এম সবুজ, ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক সম্পাদক অলোক সাহা, রিপোর্টার্স ইউনিটির সভাপতি আল আমিন তালুকদার, সাংবাদিক মাহামুদুর রহমান, ৭১-এর চেতনার সভাপতি গোপাল দে, প্রথম আলো বন্ধুসভার সাধারণ সম্পাদক সাব্বির হোসেন, ইয়াং বাংলা ছাত্র ফ্রন্টের আহ্বায়ক আসিফ আল ইমরান, দৃক নিউজের প্রতিনিধি সৈয়দা মাহফুজা।

জেলার নলছিটিতেও মানববন্ধন করেছে সাংবাদিক সমাজ ও প্রথম আলো বন্ধুসভা। দুপুরে উপজেলা পরিষদ চত্বরে ঘণ্টাব্যাপী এ মানববন্ধন হয়। বক্তব্য দেন নলছিটি প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি আবদুল কুদ্দুস তালুকদার, বর্তমান সহসভাপতি ইউসুব আলী তালুকদার, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মিলন কান্তি দাস, নলছিটি সাংবাদিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক ইঞ্জিনিয়ার গোলাম মাওলা শান্ত, জাতীয় সাংবাদিক সংস্থার ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক আমির হোসেন, প্রথম আলো বন্ধুসভার নলছিটি শাখার সভাপতি সাথী আক্তার প্রমুখ।

কলাপাড়া,পটুয়াখালী

সকাল ১০টায় মহিপুর বন্দরে মানববন্ধন করেছেন পটুয়াখালীর কলাপাড়া উপজেলার মহিপুর থানার গণমাধ্যমকর্মীরা। মহিপুর প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক মো. নাসির উদ্দিনের সঞ্চালনায় সভাপতিত্ব করেন মহিপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি মো. মনিরুল ইসলাম। বক্তব্য দেন কুয়াকাটা প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক কাজী সাঈদ, মহিপুর প্রেসক্লাবের দপ্তর সম্পাদক হাফিজুর রহমান, কুয়াকাটা প্রেসক্লাবের অর্থ সম্পাদক হোসাইন আমির, মহিপুর প্রেসক্লাবের কার্যকরী সদস্য মহিবুল্লাহ পাটোয়ারী প্রমুখ। বক্তারা বলেন, রোজিনা ইসলামকে হেনস্তাকারী স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব কাজী জেবুন্নেসা বেগমসহ দায়ী ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে।

শাজাহানপুর, বগুড়া

দুপুর সাড়ে ১২টায় শাজাহানপুর উপজেলা সদরের মাঝিড়া বটতলা এলাকায় শাজাহানপুরে কর্মরত সাংবাদিকদের ব্যানারে মানববন্ধন ও সমাবেশে জেলা ও উপজেলায় বিভিন্ন সাংবাদিক সংগঠনের নেতারা অংশ নেন। একুশে টেলিভিশন জেলা প্রতিনিধি ও শাজাহানপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি আবুল কালাম আজাদের সভাপতিত্বে সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্য দেন ইনডিপেনডেন্ট টেলিভিশন উত্তরাঞ্চল প্রধান হাসিবুর রহমান। দৈনিক করতোয়ার শাজাহানপুর প্রতিনিধি সাজেদুর রহমানের সঞ্চালনায় সমাবেশে একাত্তর টিভি জেলা প্রতিনিধি শাহজাহান আলী, বিডিনিউজ জেলা প্রতিনিধি জিয়া শাহীন, শাজাহানপুর প্রেসক্লাবে সাধারণ সম্পাদক জিয়াউর রহমান, দৈনিক চাঁদনী বাজারের শাহাদাত হোসেন, দৈনিক মুক্তজমিনের সাইদুজ্জামান তারা, দৈনিক জয়যুগান্তরের মিজানুর রহমান, দৈনিক বগুড়ার সানোয়ার, মোহনা টেলিভিশনের উপজেলা প্রতিনিধি শাহ আলম, সাংবাদিক শাহীন আলম, মেজবাউল আলম প্রমুখ বক্তব্য দেন।

ঈশ্বরদী, পাবনা

ঈশ্বরদী প্রেসক্লাব উপজেলা সদরের স্টেশন রোডে মানববন্ধন করে। এ ছাড়া বেলা ১১টার দিকে ঈশ্বরদী শহরের প্রেসক্লাব এলাকা থেকে বিক্ষোভ মিছিলের মধ্য দিয়ে কর্মসূচি শুরু হয়। মিছিলটি শহরের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে। পরে সমবেত সাংবাদিকেরা স্টেশন সড়কে মানববন্ধনে মিলিত হন। মানববন্ধনে ঈশ্বরদী প্রেসক্লাবের সভাপতি স্বপন কুমার কুণ্ডুর সভাপতিত্বে বক্তব্য দেন বীর মুক্তিযোদ্ধা ফজলুর রহমান, প্রেসক্লাবের সহসভাপতি কে এম আবুল বাশার, সাধারণ সম্পাদক আবদুল বাতেন প্রমুখ।

ভালুকা, ময়মনসিংহ

দুপুরে ময়মনসিংহের ভালুকা উপজেলা পরিষদের সামনে ভালুকা-গফরগাঁও সড়কে মানববন্ধন হয়। সাংবাদিক মাহমুদুল হাসানের সভাপতিত্বে বক্তব্য দেন ভালুকা প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি কামরুল হাসান পাঠান, সাবেক সাধারণ সম্পাদক ফিরুজ খান, দৈনিক যুগান্তরের ভালুকা প্রতিনিধি জহিরুল ইসলাম, স্বদেশ প্রতিদিনের আনোয়ার হোসেন তরফদার প্রমুখ। উপস্থিত ছিলেন সাংবাদিক কামরুজ্জামান তুহিন, কালের কণ্ঠের ভালুকা প্রতিনিধি মোকলেছুর রহমান, ইত্তেফাকের সংবাদদাতা কামরুজ্জামান মানিক, ভোরের ডাকের প্রতিনিধি শাহ মো. আকরাম হোসেন, আনন্দ টিভি ময়মনসিংহের বিশেষ প্রতিনিধি রফিকুল ইসলাম, নয়া দিগন্তের সংবাদদাতা আসাদুজ্জামান ফজলু, বাংলাদেশ বুলেটিনের প্রতিনিধি আক্কাস আলী, যায়যায়দিনের প্রতিনিধি সফিউল্লাহ আনসারী, বাংলাদেশ প্রতিদিনের প্রতিনিধি আসাদুজ্জামান সুমন প্রমুখ।

নেত্রকোনা

default-image

বেলা ১১টার দিকে নেত্রকোনা প্রেসক্লাবের সামনে সমাবেশে বক্তব্য দেন জেলা সুজনের সভাপতি শ্যামলেন্দু পাল, জেলা উদীচী সভাপতি মো. মোস্তাফিজুর রহমান খান, নেত্রকোনা সাহিত্য সমাজের সভাপতি সাইফুল্লাহ এমরান, ছড়াকার ও সাংবাদিক সঞ্জয় সরকার, যমুনা টিভির নিজস্ব প্রতিবেদক কামাল হোসাইন, জেলা টেলিভিশন সাংবাদিক ফোরামের সভাপতি খলিলুর রহমান শেখ, সাবেক সাধারণ সম্পাদক আনিসুর রহমান প্রমুখ। পরে ঘটনার প্রতিবাদ জানিয়ে শহরের প্রধান সড়কগুলোতে মৌন পদযাত্রা করা হয়।

দুপুর ১২টার দিকে পূর্বধলা প্রেসক্লাবের আয়োজনে সংগঠনটির কার্যালয়ের সামনের সড়কে সাংবাদিকেরা মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সভা করেন। বক্তব্য দেন প্রেসক্লাবের সভাপতি সৈয়দ আরিফুজ্জামান, বিশিষ্ট লোকগবেষক আলী আহম্মদ খান আইয়োব, কালের কণ্ঠের প্রতিনিধি মো. গোলাম মোস্তফা, প্রেসক্লাবের সাহিত্য সম্পাদক মোহাম্মদ আলী, ক্রীড়া সম্পাদক শিমুল শাখাওয়াত, সদস্য মোস্তাক আহম্মেদ, আল মনসুর, সুহাদা মেহজাবিন প্রমুখ। দুর্গাপুরে প্রেসক্লাবের আয়োজনে প্রতিবাদ সভা ও মানববন্ধন হয়। সংগঠনের সভাপতি মো. রফিকুল ইসলামের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক জামাল তালুকদারের পরিচালনায় বক্তব্য দেন সাবেক সভাপতি মো. মোহন মিয়া, নির্মলেন্দু সরকার, রাজেশ গৌড় প্রমুখ।

বক্তারা বলেন, রোজিনা ইসলামকে প্রায় ছয় ঘণ্টা আটকে রেখে হেনস্তা করে মিথ্যা মামলা দিয়ে কারাগারে পাঠিয়ে দুর্নীতিবাজেরা এ দেশের স্বাধীন সাংবাদিকতার গলা চিপে ধরেছে। তবে ওই লুটেরাদের অসৎ উদ্দেশ্য সফল হবে না। আজ সাংবাদিকদের পাশে দেশের সব মানুষ ঐক্যবদ্ধ হয়েছে। ওই দুর্নীতিবাজদের বিচারের আওতায় আনতে হবে।

গাইবান্ধা

গাইবান্ধা শহরের নাট্য সংস্থার সামনে বুধবার বিকেলে প্রতীকী অবস্থান কর্মসূচি পালন করেছে জেলা মহিলা পরিষদ। বিকেল পাঁচটা থেকে দুই ঘণ্টাব্যাপী অবস্থান কর্মসূচিতে সভাপতিত্ব করেন সংগঠনের জেলা সভাপতি মাহফুজা খানম। বক্তব্য দেন ওয়ার্কার্স পার্টির কেন্দ্রীয় পলিটব্যুরোর সদস্য আমিনুল ইসলাম, নারীনেত্রী আমাতুর নূর, জেলা উদীচীর সভাপতি জহুরুল কাইয়ুম, মহিলা পরিষদের জেলা সম্পাদক রিকতু প্রসাদ, জেলা সিপিবির সাবেক সভাপতি ওয়াজিউর রহমান, জেলা বারের সাধারণ সম্পাদক সিরাজুল ইসলাম, সামাজিক প্রতিরোধ কমিটির নেতা জাহাঙ্গীর কবীর, সাংবাদিক হেদায়েতুল ইসলাম, সিপিবি নারী সেলের সাধারণ সম্পাদক সুপ্রিয়া ঘোষ প্রমুখ।

এর আগে দুপুরে বাসদ মার্ক্সবাদী গাইবান্ধা জেলা শাখার উদ্যোগে একটি বিক্ষোভ মিছিল বের হয়ে জেলা শহরের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে। দলীয় কার্যালয়ের সামনে বিক্ষোভ মিছিলপূর্ব সমাবেশে বক্তব্য দেন বাসদ মার্ক্সবাদী গাইবান্ধা জেলা শাখার আহ্বায়ক আহসানুল হাবীব, সদস্য গোলাম সাদেক, কাজী আবু রাহেন, নিলুফার ইয়াসমিন প্রমুখ। বক্তারা বলেন, প্রথম আলোর জ্যেষ্ঠ সাংবাদিক রোজিনা ইসলামের নিঃশর্ত মুক্তি দাবি করে স্বাস্থ্য খাতের দুর্নীতির শ্বেতপত্র প্রকাশের দাবি জানান।

জেলার গোবিন্দগঞ্জ উপজেলায় বিকেলে গোবিন্দগঞ্জের সাংবাদিক সমাজের উদ্যোগে প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি প্রদান করা হয়েছে। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আবু সাঈদের হাতে এ স্মারকলিপি প্রদান কালে সাংবাদিক সমাজের পক্ষে উপস্থিত ছিলেন গোবিন্দগঞ্জ সাংবাদিক অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি মাহমুদ খান, জাতীয় সাংবাদিক সংস্থার সভাপতি জিল্লুর রহমান সরকার, গোবিন্দগঞ্জ সাংবাদিক অ্যাসোসিয়েশনের প্রচার সম্পাদক শাহিন আলম, সাংবাদিক অ্যাসোসিয়েশনের সদস্য সাংবাদিক বাবু সরকার, সদস্য সাগর প্রধান, ফরহাদ হোসেন প্রমুখ।

সাংবাদিক রোজিনার মুক্তির দাবিতে কাল বৃহস্পতিবার সকাল ১০টায় গোবিন্দগঞ্জ চৌমাথায় মানববন্ধনের ঘোষণা দেওয়া হয়েছে।

মাদারীপুর

মাদারীপুর জেলা প্রশাসকের সরকারি বাসভবনের সামনে বেলা ১১টার দিকে জেলায় কর্মরত গণমাধ্যমকর্মীরা মানববন্ধন করেছেন। মাদারীপুর জেলা সাংবাদিক কল্যাণ সমিতির ব্যানারে এ মানববন্ধনে মাদারীপুর প্রেসক্লাব, সাংবাদিক সংগঠন মৈত্রী মিডিয়া সেন্টার, সাংবাদিক কল্যাণ সমিতি, টেলিভিশন সাংবাদিক ফোরামের সদস্যরা ছাড়াও সচেতন নাগরিক কমিটি ও বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ অংশ নেন। এ সময় বক্তারা সাংবাদিক রোজিনা ইসলামকে হেনস্তার ঘটনায় জড়িত স্বাস্থ্যের অতিরিক্ত সচিব জেবুন্নেছা বেগমসহ কর্মকর্তাদের পদত্যাগের দাবি তোলেন।

দুপুর ১২টার দিকে শহরের ঈদগাহ মাঠের সামনে মাদারীপুর প্রেসক্লাবের ব্যানারে আরেকটি মানববন্ধন কর্মসূচি পালিত হয়। এতে বক্তব্য দেন মাদারীপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি শাহজাহান খান, সাধারণ সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা জাহাঙ্গীর কবির, মাদারীপুর সচেতন নাগরিক কমিটির সভাপতি খান মো. শহীদ, মাদারীপুর সাংবাদিক কল্যাণ সমিতির সহসভাপতি সুবল বিশ্বাস, সাধারণ সম্পাদক এম আর মুর্তজা, আরটিভির জেলা প্রতিনিধি ও জ্যেষ্ঠ সাংবাদিক সেলিম ফরাজী, ডিবিসির মাদারীপুর প্রতিনিধি মনির হোসেন বিলাস, সময় টিভির সাংবাদিক সঞ্জয় কর্মকার অভিজিৎ, সাংবাদিক সংগঠন মৈত্রী মিডিয়ার সাধারণ সম্পাদক আরাফাত হাসান, মাদারীপুর টেলিভিশন সাংবাদিক ফোরামের সভাপতি বেল্লাল রিজভী, সহসভাপতি রিপন চন্দ্র মল্লিক প্রমুখ।

এ ছাড়া জেলার সাংবাদিক সংগঠন মৈত্রী মিডিয়া সেন্টারের উদ্যোগে পৃথক প্রতিবাদ সভার আয়োজন করেন সংগঠনটির নেতারা। এতে বক্তব্য দেন সংগঠনটির সভাপতি জ্যেষ্ঠ সাংবাদিক মাহবুবুর রহমান, সাংগঠনিক সম্পাদক মেহেদী হাসান প্রমুখ।

default-image

তারাগঞ্জ, রংপুর

রংপুরের তারাগঞ্জে উপজেলা প্রেসক্লাবের উদ্যোগে বুধবার দুপুর ১২টার দিকে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ হয়েছে। ঢাকা-দিনাজপুর মহাসড়কের তারাগঞ্জ উপজেলা পরিষদের সামনে অনুষ্ঠিত এই মানববন্ধনে সভাপতিত্ব করেন উপজেলা প্রেসক্লাবের আহ্বায়ক বিপ্লব হোসেন। মানববন্ধনে বক্তব্য দেন সাংবাদিক রহিদুল মিয়া, সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম, তাপস সরকার, সিরাজুল ইসলাম, আমজাদ হোসাইন, খলিলুর রহমান, আরিফ শেখ, তারাজুল ইসলাম, ময়েন উদ্দিন, ইমরান প্রাং, রুবেল হোসেন, এনামুল হক, জুয়েল ইসলাম, রহমত মণ্ডল, শাহ আলম, শাকিল আহমেদ, প্রিয়াতুল্লাহ সুমন, শিপুল ইসলাম, লিমন হোসেন, রমজান তালুকদার, রকিবুল হাসান, আসাদুজ্জামান, নাহিদুজ্জামান নাহিদ প্রমুখ।

মানববন্ধন বক্তারা বলেন, করোনার এই ক্রান্তিকালে মানুষ বেঁচে থাকার জন্য যেখানে সংগ্রাম চালিয়ে যাচ্ছে, ঠিক তখনই স্বাস্থ্য খাতের রাঘববোয়ালেরা দুর্নীতির স্বর্গরাজ্য গড়ে তুলেছেন। অবিলম্বে রোজিনা ইসলামের মুক্তিসহ তাঁর ওপর নির্যাতনকারীদের গ্রেপ্তারসহ দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দিতে হবে। অন্যথায় সাংবাদিক সমাজ বৃহত্তর আন্দোলন গড়ে তুলবে।

উপজেলা প্রেসক্লাবের আহ্বায়ক বিপ্লব হোসেন বলেন, রোজিনা ইসলামের অনুসন্ধানী সাংবাদিকতাকে থামাতে পরিকল্পিতভাবে নাটক সাজানো হয়েছে। রোজিনা ইসলামের এই ঘটনা সরকার ও সাংবাদিকদের মুখোমুখি দাঁড় করানোর অপচেষ্টা কি না, সেটি তদন্ত করার দাবি জানান তিনি।

জগন্নাথপুর, সুনামগঞ্জ

সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুর প্রেসক্লাবের উদ্যোগে বুধবার বিকেলে উপজেলার পৌর পয়েন্টে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। এতে বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ অংশ নেন। জগন্নাথপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি শংকর রায়ের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক সানোয়ার হাসানের সঞ্চালনায় সাংবাদিক রোজিনা ইসলামের নিঃশর্ত মুক্তি চেয়ে এ সময় বক্তব্য দেন উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আতাউর রহমান, ভাইস চেয়ারম্যান বিজন কুমার দেব, বীর মুক্তিযোদ্ধা রসরাজ বৈদ্য, সাংবাদিক নেতা তাজ উদ্দিন আহমেদ, প্যানেল মেয়র সাফরোজ ইসলাম, আওয়ামী লীগ নেতা লুৎফুর রহমান, উপজেলা শ্রমিক লীগের আহ্বায়ক নুরুল হক, শিক্ষক সাইফুল ইসলাম, উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপতি কল্যাণ কান্তি রায় প্রমুখ।

রাজবাড়ী

রাজবাড়ী প্রেসক্লাবের সামনে বুধবার বিকেল পাঁচটার দিকে মানববন্ধন ও সমাবেশ করা হয়েছে। প্রথম আলো রাজবাড়ী বন্ধুসভার উদ্যোগে এ কর্মসূচিতে সভাপতিত্ব করেন রাজবাড়ী বন্ধুসভার সভাপতি রেজাউল করিম এবং সঞ্চালনা করেন সাধারণ সম্পাদক প্রথম আলো রাজবাড়ী প্রতিনিধি এজাজ আহম্মেদ। বক্তব্য দেন বন্ধুসভার উপদেষ্টা রাজবাড়ী বার অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি জ্যেষ্ঠ আইনজীবী স্বপন কুমার সোম, জেলা কমিউনিস্ট পার্টির (সিপিবি) সভাপতি আবদুস সামাদ মিয়া, রবীন্দ্রসংগীত সম্মিলন পরিষদের সহসভাপতি ফকির শাহাদাত হোসেন, উদীচী নেতা ধীরেন্দ্রনাথ দাস, রাজবাড়ী বেসরকারি পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটের পরিচালক আসিফ মাহমুদ, উদীচীর সাবেক সাধারণ সম্পাদক মো. আবদুল জব্বার, বন্ধুসভার পাঠচক্রবিষয়ক সম্পাদক কল্যাণপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আঞ্জুমান আরা বেগম, নারীবিষয়ক সম্পাদক শাহিনা সুলতানা, রাজবাড়ী জেলা রিপোর্টার্স ক্লাবের সাংগঠনিক সম্পাদক চ্যানেল ২৪ ও মানবকণ্ঠের রাজবাড়ী প্রতিনিধি সুমন বিশ্বাস, ছাত্র ইউনিয়নের সভাপতি কাওসার আহমেদ, বন্ধুসভার সাধারণ সম্পাদক শুভ চন্দ্র সিংহ প্রমুখ।

আইনজীবী স্বপন কুমার সোম বলেন, ‘শুরু থেকেই সাংবাদিক রোজিনা ইসলামের সঙ্গে অন্যায় করা হয়েছে। আইন অনুযায়ী, ওই নথি যাঁর দায়িত্বে ছিল, তাঁর বিরুদ্ধে মামলা হবে। রোজিনা ইসলামের নিঃশর্ত মুক্তি দাবি করছি। একই সঙ্গে রোজিনা ইসলামের সঙ্গে যাঁরা অন্যায় আচরণ করেছেন, তাঁদের বিরুদ্ধে মামলা করে শাস্তির দাবি করছি।’

কেশবপুর, যশোর

বুধবার বিকেলে যশোরের কেশবপুর প্রেসক্লাবের সামনে কেশবপুর বন্ধুসভার উদ্যোগে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে। এ মানববন্ধনে বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ অংশ নেন। মানববন্ধনে সংহতি জানিয়ে বক্তব্য দেন প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক জয়দেব চক্রবর্তী, প্রবীণ সাংবাদিক আজিজুর রহমান, নুরুল ইসলাম খান, উৎপল দে, বেগমপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক স্বপন মণ্ডল, প্রথম আলো প্রতিনিধি দিলীপ মোদক, বন্ধুসভার সভাপতি শরিফুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক দীপ্ত রায় চৌধুরী, মনিরুজ্জামান প্রমুখ। বক্তারা সাংবাদিক রোজিনা ইসলামকে হেনস্তা ও মিথ্যা মামলায় জড়ানোর নিন্দা জানান। রোজিনা ইসলামকে যেসব সরকারি কর্মকর্তা হেনস্তা ও নির্যাতন করেছেন, তাঁদের অনতিবিলম্বে আইনের আওতায় আনতে হবে। মানববন্ধন থেকে রোজিনা ইসলামের নিঃশর্ত মুক্তির দাবি জানানো হয়।

হবিগঞ্জ

হবিগঞ্জ শহরের আরডি হল প্রাঙ্গণে বুধবার দুপুরে জেলা বাম জোটের পক্ষ থেকে প্রতিবাদ সভা ও মানববন্ধন করা হয়েছে। পীযূষ চক্রবর্তীর সভাপতিত্বে এ প্রতিবাদ সভায় বক্তব্য দেন জোনায়েদ আহমেদ, সফিকুল ইসলাম, হ‌ুমায়ূন চৌধুরী, সাংবাদিক শোয়েব চৌধুরী, আবদুল হালিম প্রমুখ।

এ ছাড়া জেলার নবীগঞ্জ উপজেলার ট্রাফিক পয়েন্ট মোড়ে নবীগঞ্জ অনলাইন প্রেসক্লাবের পক্ষ থেকেও মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সভা করা হয়েছে। এতে বক্তব্য দেন হবিগঞ্জ অনলাইন প্রেসক্লাবের সভাপতি ও দৈনিক তরুণ কণ্ঠ পত্রিকার নিজস্ব প্রতিবেদক এস এম খোকন, নবীগঞ্জ প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি আনোয়ার হোসেন, এম এ আহমদ আজাদ ও সভাপতি মুরাদ আহমেদ, সাবেক সহসভাপতি আশাহিদ আলী, সাবেক সাধারণ সম্পাদক আলমগীর মিয়া, সলিল বরণ দাশ, মোজাহিদ আহমেদ, নুরুজ্জামান ফারুকী, নবীগঞ্জ লার্নিং পয়েন্ট কিন্ডারগার্টেন স্কুলের প্রধান শিক্ষক শেখ কায়ছার আহমেদ, হবিগঞ্জ অনলাইন প্রেসক্লাবের সদস্য এস এম খলিলুর রহমান, নবীগঞ্জ অনলাইন প্রেসক্লাবের সভাপতি নাবেদ মিয়া, সহসভাপতি মোফাজ্জল হোসেন, সাধারণ সম্পাদক আলী জাবেদ, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আলাল মিয়া, তথ্যপ্রযুক্তি সম্পাদক ইকবাল হোসেন তালুকদার, পাঠাগার ও প্রকাশনা সম্পাদক দিপু আহমেদ প্রমুখ।

এ সময় বক্তারা বলেন, সাংবাদিক রোজিনাকে গ্রেপ্তারের মধ্য দিয়ে সংবাদপত্রের স্বাধীনতা এবং দুর্নীতিবিরোধী নীতি ও মূল্যবোধের ওপর আঘাত করা হয়েছে।

মানিকগঞ্জ

বুধবার বিকেলে মানিকগঞ্জ প্রেসক্লাব প্রাঙ্গণে মানববন্ধন করেছে প্রথম আলো মানিকগঞ্জ বন্ধুসভা। এ সময় বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি (সিপিবি), উদীচী, খেলাঘর আসরসহ বিভিন্ন সামাজিক, সাংস্কৃতিক ও প্রগতিশীল রাজনৈতিক সংগঠনের সদস্যরা একাত্মতা জানিয়ে কর্মসূচিতে অংশ নেন।

মানিকগঞ্জ বন্ধুসভার আহ্বায়ক আবু সালেহর সভাপতিত্বে এবং সদস্যসচিব আবদুস সালামের সঞ্চালনায় মানববন্ধনে বক্তব্য দেন বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টির (সিপিবি) কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা আজহারুল ইসলাম, জেলা কমিটির সভাপতি অধ্যাপক আবুল ইসলাম শিকদার, জেলা শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক মজিবুর রহমান, উদীচীর জেলা সংসদের সাধারণ সম্পাদক মোস্তাফিজুর রহমান, বারসিকের জেলার সমন্বয়ক বিমল রায়, প্রথম আলোর মানিকগঞ্জ প্রতিনিধি আব্দুল মোমিন, খেলাঘর আসরের সদস্য আরশেদ আলী, প্রগতি লেখক সংঘের জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক নজরুল ইসলাম, বন্ধুসভার সদস্য আশিক হোসেন প্রমুখ। বীর মুক্তিযোদ্ধা আজহারুল ইসলাম বলেন, স্বাস্থ্য খাতের দুর্নীতি ও অনিয়ম নিয়ে সাংবাদিক রোজিনা ইসলাম অনেকগুলো অনুসন্ধানী প্রতিবেদন করার কারণে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের কতিপয় দুর্নীতিবাজ আমলার আঁতে ঘা লেগেছিল। পূর্বপরিকল্পিতভাবেই সেই আমলারাই রোজিনাকে হেনস্তা ও নির্যাতন করেছেন। সাংবাদিক রোজিনাকে দ্রুত মুক্তির পাশাপাশি স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের দুর্নীতিবাজ আমলাদের আইনের আওতায় এনে শাস্তির দাবি জানান তিনি।

দাউদকান্দি, কুমিল্লা

কুমিল্লার দাউদকান্দি প্রেসক্লাবের সামনে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেছেন দাউদকান্দিতে কর্মরত গণমাধ্যমকর্মীরা। বুধবার বিকেল সাড়ে পাঁচটার দিকে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের গৌরীপুরে এ মানববন্ধনে বক্তব্য দেন সাংবাদিক এম এইচ মোহন, আবদুল মান্নান, হানিফ খান, জাকির হোসেন হাজারী, শহীদ উল্লাহ, জহিরুল ইসলাম, আলী আশরাফ খান, আলমগীর হোসেন, লিটন সরকার, হোসাইন মো. দিদার, শাহীন চৌধুরী, আবু তাহের, আনিছ খান, মো. রাজীব, মো. একরাম প্রমুখ।

বক্তারা প্রথম আলোর জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক রোজিনা ইসলামের নিঃশর্ত মুক্তি দাবি করেন। একই সঙ্গে রোজিনা ইসলামকে হেনস্তার সঙ্গে জড়িত ব্যক্তিদের বিচার এবং তাঁর বিরুদ্ধে দায়ের করা হয়রানিমূলক মামলা প্রত্যাহারের দাবি জানান।

default-image

ফেনী

ফেনী শহরের ট্রাংক রোডের শহীদ মিনার চত্বরে সাংবাদিক রোজিনা ইসলামকে হেনস্তা ও গ্রেপ্তারের প্রতিবাদে বুধবার বেলা ১১টার দিকে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। ফেনী প্রেসক্লাবের আয়োজনে এই মানববন্ধনে সভাপতিত্ব করেন ফেনী প্রেসক্লাবের সভাপতি শওকত মাহমুদ এবং সঞ্চালনায় ছিলেন সাধারণ সম্পাদক আরিফুর রহমান। ফেনীতে কর্মরত সাংবাদিক ছাড়াও সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোট, ইয়ুথ জার্নালিস্টস ফোরাম ফেনী শাখা, ফটোজার্নালিস্টস অ্যাসোসিয়েশন ফেনী, প্রথম আলো বন্ধুসভা, কালের কণ্ঠ শুভ সংঘ, সুশীল সমাজের নেতৃবৃন্দ একাত্মতা প্রকাশ করে এই মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সভায় অংশ নেন।

এ সময় বক্তব্য দেন ফেনী প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা আবু তাহের, সময় টিভির ব্যুরো প্রতিনিধি বখতেয়ার মুন্না, ডিবিসি নিউজ ফেনী প্রতিনিধি মুহাম্মদ আবু তাহের ভূঁইয়া, কালের কণ্ঠ ফেনী জেলা প্রতিনিধি আসাদুজ্জামান দারা, বাংলাদেশ প্রতিদিন ফেনী প্রতিনিধি জমির বেগ, এসএ টিভির প্রতিনিধি মাঈনুল রাসেল, সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোট ফেনীর সাধারণ সম্পাদক সমর দেবনাথ, নাট্যব্যক্তিত্ব কাজী ইকবাল আহমেদ পরান, দৈনিক মানবজমিন ও বিডনিউজ টোয়েন্টিফোর ফেনী প্রতিনিধি নাজমুল হক শামীম, সময় টিভির রিপোর্টার আতিয়ার সজল, সাপ্তাহিক স্বদেশ কণ্ঠর নির্বাহী সম্পাদক এম মোর্শেদ শিবলী, ইয়ুথ জার্নালিস্টস ফেনীর সভাপতি ও দৈনিক অজেয় বাংলার নির্বাহী সম্পাদক শাহজালাল ভূঁইয়া, দৈনিক সংবাদের জেলা প্রতিনিধি শাবিহ মাহমুদ, ফটোজার্নালিস্টস অ্যাসোসিয়েশন ফেনীর প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি মোস্তফা কামাল বুলবুল, ফেনী বন্ধুসভার সভাপতি শেখ আশিকুন্নবী সজীব, সাবেক সভাপতি জহিরুল ইসলাম, লেখক ফোরাম ফেনীর সভাপতি নুরুল আমিন হৃদয়, দৈনিক আমাদের নতুন সময়ের ফেনী প্রতিনিধি এমরান পাটোয়ারী, আবৃত্তিশিল্পী মনিকা রায় প্রমুখ।

নড়াইল

নড়াইল বন্ধুসভা ও নড়াইলে কর্মরত সাংবাদিকদের ব্যানারে সকাল ১০টা থেকে ১১টা পর্যন্ত শহরের চৌরাস্তায় মানববন্ধন হয়। এ ছাড়া নড়াইল প্রেসক্লাবের আয়োজনে বেলা ১১টা থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত প্রেসক্লাবের সামনে মানববন্ধন করেন সাংবাদিকেরা। নড়াইল বন্ধুসভা ও নড়াইলে কর্মরত সাংবাদিকদের ব্যানারে আয়োজিত মানববন্ধনে বক্তব্য দেন মীর্জাপুর ইউনাইটেড ডিগ্রি কলেজের অধ্যক্ষ মো. আকতার হোসেন, সাংবাদিক মলয় নন্দী, কাজী হাফিজুর রহমান, কার্তিক দাস, খায়রুল আরেফিন, সাথী তালুকদার, সাইফুল ইসলাম, জিয়াউর রহমান, রেজাউল করিম, সৈয়দ খায়রুল ইসলাম প্রমুখ।

নড়াইল প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক শামীমূল ইসলামের সঞ্চালনায় প্রেসক্লাবের মানববন্ধনে বক্তব্য দেন প্রেসক্লাবের সভাপতি এনামুল কবির, সাংবাদিক গুলশান আরা, সাংবাদিক মলয় নন্দী, কাজী হাফিজুর রহমান, কার্তিক দাস, সাইফুল ইসলাম, সাথী তালুকদার, শিমুল হাসান প্রমুখ।

মুন্সিগঞ্জ

মুন্সিগঞ্জ জেলায় কর্মরত সব সংবাদকর্মী বুধবার দুপুর ১২টার দিকে মুন্সিগঞ্জ প্রেসক্লাবের সামনে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ করেছেন। মুন্সিগঞ্জ প্রেসক্লাবের সভাপতি মীর নাসীর উদ্দিনের সভাপতিত্বে এবং কোষাধ্যক্ষ শেখ মো. শিমুলের সঞ্চালনায় সমাবেশে বক্তব্য দেন প্রেসক্লাবের জ্যেষ্ঠ সহসভাপতি গোলজার হোসেন, সাবেক সভাপতি শহীদ ই হাসান, সাবেক সাধারণ সম্পাদক ভবতোষ চৌধুরী নূপুর, মোজাম্মেল হোসেন সজল, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি সম্পাদক জুয়েল রানা, প্রথম আলোর মুন্সিগঞ্জ প্রতিনিধি ফয়সাল হোসেন প্রমুখ।

বক্তারা বলেন, যেভাবে সাংবাদিক রোজিনা ইসলামকে সচিবালয়ে আটকে রেখে হেনস্তা করা হয়েছে, তা মুক্ত গণমাধ্যম ও সাংবাদিকতার জন্য হুমকি। স্বাস্থ্য বিভাগের দুর্নীতি নিয়ে করোনাকালীন বহু অনুসন্ধানী সংবাদ প্রকাশ করায় তাঁর ওপর হামলা চালিয়েছেন সরকারি আমলারা। তাঁর বিরুদ্ধে মামলা অবিলম্বে প্রত্যাহার করে তাঁকে নিঃশর্ত মুক্তি দেওয়ার দাবি জানান সাংবাদিক নেতারা।

চাঁদপুর

চাঁদপুর শহরের শপথ চত্বরে চাঁদপুর প্রেসক্লাবের উদ্যোগে বুধবার বেলা ১১টা থেকে দুপুর সাড়ে ১২টা পর্যন্ত মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে। চাঁদপুর টেলিভিশন সাংবাদিক ফোরাম ও ফটোজার্নালিস্টস অ্যাসোসিয়েশন চাঁদপুর জেলা শাখা এতে একাত্মতা পোষণ করে অংশ নেন। চাঁদপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি ইকবাল হোসেন পাটওয়ারীর সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক রহিম বাদশার সঞ্চালনায় এ সময় বক্তব্য দেন চাঁদপুর প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি কাজী শাহাদাত, শহীদ পাটওয়ারী, শরীফ চৌধুরী, সাবেক ভারপ্রাপ্ত সভাপতি গিয়াস উদ্দিন মিলন, সাবেক সাধারণ সম্পাদক সোহেল রুশদী, জি এম শাহীন, এ এইচ এম আহসান উল্লাহ, সাংবাদিক অধ্যাপক দেলোয়ার আহমেদ, আলম পলাশ,আব্দুল আউয়াল রুবেল, কাদের পলাশ, টেলিভিশন সাংবাদিক ফোরামের সভাপতি আল-ইমরান শোভন, সাধারণ সম্পাদক রিয়াদ ফেরদৌস, ফটোজার্নালিস্টস অ্যাসোসিয়েশন চাঁদপুর জেলা শাখার সভাপতি এম এ লতিফ, সাধারণ সম্পাদক কে এম মাসুদ প্রমুখ।

এ ছাড়া পেশাজীবীদের মধ্যে বক্তব্য দেন বাবুরহাট স্কুল অ্যান্ড কলেজ অধ্যক্ষ মোশারফ হোসেন, গণফোরাম সভাপতি আইনজীবী সেলিম আকবর প্রমুখ। বক্তারা সাংবাদিক রোজিনা ইসলামের নিঃশর্ত মুক্তি এবং তাঁকে হেনস্তার ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের শাস্তিমূলক ব্যবস্থার দাবি জানান।

default-image

ভোলা

ভোলা প্রেসক্লাবের সামনে বুধবার সকাল ১০টার দিকে ভোলা বন্ধুসভা ও বেলা সাড়ে ১১টায় ভোলা প্রেসক্লাব মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সভা করেছে। সেই সঙ্গে ভোলার দৌলতখান উপজেলা শহরে বেলা সাড়ে ১১টার দিকে উপজেলা শহরের সদর রোডে দৌলতখান রিপোর্টার্স ইউনিয়ন মানববন্ধন করেছে। এতে বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ অংশ নেন।

মানববন্ধনে উপস্থিত আজকের ভোলার সম্পাদক শওকাত হোসেন বলেন, ‘রোজিনা ইসলামকে গ্রেপ্তারের পর থেকে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে যে পরিমাণ আলোচনা হয়েছে, তাতে বোঝা যায়, তিনি কোনো ক্ষুদ্র সাংবাদিক নন। স্বাস্থ্য বিভাগ নিয়ে বড় বড় দুর্নীতির বিষয় রোজিনা ইসলাম জনগণের সামনে তুলে ধরেছেন। তাঁকে গ্রেপ্তারে আমরা নিন্দা জ্ঞাপন করছি।’

ভোরের কাগজ প্রতিনিধি মোস্তাক আহমেদ বলেন, সাংবাদিকেরা ঐক্যবদ্ধ না হলে এ ধরনের ঘটনা ভবিষ্যতে ঘটবে না, তার নিশ্চয়তা নেই। ভোলা প্রেসক্লাবের সভাপতি এম হাবিবুর রহমান বলেন, ‘রোজিনা ইসলামের মতো একজন প্রথিতযশা জ্যেষ্ঠ সাংবাদিককে সচিবালয়ে পাঁচ ঘণ্টা আটকে রেখে নির্যাতন স্বাধীন সাংবাদিকতার জন্য অশুভ ইঙ্গিত। আমরা এ ঘটনার তীব্র নিন্দা জানাচ্ছি।’

বন্ধুসভার মানববন্ধনে ভোলা বন্ধুসভার সভাপতি আনোয়ার হোসেনের সভাপতিত্বে বক্তব্য দেন জীবন পুরান আবৃত্তি একাডেমির পরিচালক মশিউর রহমান, নাগরিক কমিটির সদস্যসচিব এস এম বাহাউদ্দিন, বিডিএসের চেয়ারম্যান সোলাইমান মামুন প্রমুখ। ভোলা প্রেসক্লাবের মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশে বক্তব্য দেন প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক অমিতাভ অপু, সময় টেলিভিশনের নাসির লিটন, এনটিভির সাংবাদিক আফজাল হোসেন, মাছরাঙা টেলিভিশনের জেলা প্রতিনিধি হাসিবুর রহমান প্রমুখ।

দৌলতখান রিপোর্টার্স ইউনিটির মানববন্ধনে রিপোর্টার্স ইউনিটির সভাপতি মতিউর রহমানের সভাপতিত্বে বক্তব্য দেন ইউনিটির সিনিয়র সহসভাপতি ও বাংলাবাজার প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক মীর মোহাম্মদ গিয়াস উদ্দিন, রিপোর্টার্স ইউনিটির সাধারণ সম্পাদক ও ৭১বাংলা টিভির স্টাফ রিপোর্টার কাজী জামাল প্রমুখ।

জয়পুরহাট

জয়পুরহাট শহরের জিরো পয়েন্ট পাঁচুর মোড়ে বুধবার বেলা ১১টার দিকে জয়পুরহাট জেলায় কর্মরত বিভিন্ন প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার সাংবাদিকেরা মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ করেছেন। জয়পুরহাট প্রেসক্লাব, জয়পুরহাট সাংবাদিক ইউনিয়ন, জয়পুরহাট সাংবাদিক ঐক্য ফোরাম, জয়পুরহাট মডেল প্রেসক্লাব যৌথভাবে এই মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশের আয়োজন করে। এ সময় বক্তব্য দেন জয়পুরহাট প্রেসক্লাবের সভাপতি আইনজীবী নৃপেন্দ্রনাথ মণ্ডল, সাধারণ সম্পাদক খ ম রনি, দৈনিক করতোয়ার জেলা প্রতিনিধি মোস্তাকিম ফাররোখ, এনটিভির জেলা প্রতিনিধি শাহজাহান সিরাজ, জ্যেষ্ঠ সাংবাদিক আসাদুল ইসলাম, বাংলাভিশনের জেলা প্রতিনিধি আবু বক্কর সিদ্দিকা, প্রথম আলোর জেলা প্রতিনিধি রবিউল ইসলাম, জয়পুরহাট সাংবাদিক ইউনিয়নের মহাসচিব রেজাউল করিম, দৈনিক চাঁদনী বাজার পত্রিকার ব্যুরো প্রধান সুমন কুমার সাহা, সাংবাদিক শেখর মজুমদার, মডেল প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক বিপুল কুমার প্রমুখ।

বক্তারা বলেন, রোজিনা ইসলামকে মুক্তি দিতে হবে। যাঁরা তাঁকে হেনস্তা করেছেন, তাঁদের গ্রেপ্তার করতে হবে।

বাংলাভিশনের সাংবাদিক আবু বক্কর সিদ্দিকা বলেন, ‘এ ঘটনার মাধ্যমে সাংবাদিকদের কণ্ঠরোধ করার চেষ্টা চলছে। এ ঘটনায় স্বাস্থ্যমন্ত্রীর পদত্যাগ দাবি করছি।’

default-image

পঞ্চগড়

পঞ্চগড়ে জেলা শহরের কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারের সামনে পঞ্চগড়-বাংলাবান্ধা মহাসড়কে জেলা প্রেসক্লাব মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ করেছে। একই সময় জেলার তেঁতুলিয়া উপজেলা শহরে তেঁতুলতলায় সক্রিয় সাংবাদিকবৃন্দের ব্যানারে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। দুটি মানববন্ধন থেকেই বক্তারা সাংবাদিক রোজিনা ইসলামের নিঃশর্ত মুক্তি এবং তাঁকে হেনস্তায় জড়িতদের শাস্তি দাবি করেন।

জেলা প্রেসক্লাবের মানববন্ধনে বক্তব্য দেন পঞ্চগড় জেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি আনিস প্রধান, সাধারণ সম্পাদক মো. শাহজালাল, জাতীয় পার্টির কেন্দ্রীয় কমিটির সহসভাপতি ও জেলা জাতীয় পার্টির সাধারণ সম্পাদক আবু সালেক, অবসরপ্রাপ্ত কলেজশিক্ষক রফিকুল ইসলাম প্রমুখ।

তেঁতুলিয়ায় দৈনিক ইত্তেফাকের তেঁতুলিয়া উপজেলা প্রতিনিধি আশরাফুল ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশে বক্তব্য দেন তেঁতুলিয়া উপজেলা জাতীয় পার্টির সভাপতি মকলেছুর রহমান, কালের কণ্ঠের সহসম্পাদক আতাউর রহমান, বাংলাদেশ প্রতিদিনের স্টাফ রিপোর্টার মাহমুদ আজহার, বাংলাদেশ প্রতিদিনের পঞ্চগড় প্রতিনিধি সরকার হায়দার, সাংবাদিক সোহরাব হোসেন, আব্দুর রাজ্জাক, এম এ বাসেদ প্রমুখ।

সুনামগঞ্জ

সুনামগঞ্জে সাংবাদিক রোজিনা ইসলামের নিঃশর্ত মুক্তি, মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার ও দোষীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে বুধবার বিভিন্ন সংগঠন মানববন্ধন করেছে। এসব কর্মসূচিতে সংবাদকর্মী ছাড়াও বিভিন্ন শ্রেণি–পেশার লোকজন অংশ নেন। বেলা ১১টার দিকে সুনামগঞ্জ পৌর শহরের আলফাত স্কয়ারে মানববন্ধন করে সুশাসনের জন্য নাগরিক (সুজন) জেলা কমিটি। সংগঠনের জেলা কমিটির সাধারণ সম্পাদক ফজলুর করিমের সঞ্চালনায় এতে বক্তব্য দেন জেলা কমিটির সভাপতি প্রবীণ আইনজীবী হোসেন তওফিক চৌধুরী, সংগঠনের উপদেষ্টা ও সুনামগঞ্জ সরকারি কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ সৈয়দ মহিবুল ইসলাম, সংগঠনের সহসভাপতি ও প্রবীণ শিক্ষক আলী হায়দার, সহসভাপতি শাহিনা চৌধুরী, সদস্য শহীদ নূর আহমেদ প্রমুখ।

দুপুর ১২টায় শহরের উকিলপাড়ায় একই দাবিতে মানববন্ধন করে সুনামগঞ্জ প্রেসক্লাব। সেখানে বক্তব্য দেন সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক ও সুনামগঞ্জ পৌর ডিগ্রি কলেজের অধ্যক্ষ মো. শেরগুল আহমেদ, সাংবাদিক মানব তালুকদার, মিজান আহমেদ, হিমাদ্রী শেখর ভদ্র, সেলিম আহমেদ তালুকদার, জসিম উদ্দিন, সিরাজুল ইসলাম, আমিনুল হক প্রমুখ।

বেলা একটায় আলফাত স্কয়ারে আরেকটি মানববন্ধন করে সুনামগঞ্জ জেলা সাংবাদিক ফোরাম। সেখানে বক্তব্য দেন সংগঠনের জেলা কমিটির সভাপতি কুলেন্দু শেখর দাশ, সাধারণ সম্পাদক মাহতাব উদ্দিন তালুকদার, জেলা কৃষক লীগের সদস্যসচিব বিন্দু তালুকদার, শ্রমিকনেতা সোহেল আহমদ, সাংবাদিক এ কে মিলন, জেলা হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান কল্যাণ পরিষদের আহ্বায়ক বিকাশ দাশ প্রমুখ। বক্তারা অবিলম্বে রোজিনা ইসলামের মুক্তির দাবি জানান।

default-image

লক্ষ্মীপুর

লক্ষ্মীপুরের কমলনগর উপজেলার সাংবাদিকেরা বুধবার দুপুরের দিকে মানববন্ধন করেছেন। হাজিরহাটে প্রেসক্লাবের উদ্যোগে এ মানববন্ধনে উপস্থিত ছিলেন কমলনগর প্রেসক্লাবের সভাপতি এ মজিদ, সাধারণ সম্পাদক ইউসুফ আলী, মিজানুর রহমান মানিক, বেলাল হোসেন, ছাইফ উল্লাহ প্রমুখ। মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, সাংবাদিক রোজিনা ইসলামকে হেনস্তা ও আটকের ঘটনা ন্যক্কারজনক। দ্রুত তাকে নিঃশর্ত মুক্তি দিতে হবে।

পাটগ্রাম, লালমনিরহাট

লালমনিরহাটের পাটগ্রাম পৌরসভার চৌরঙ্গী মোড়ে বেলা ১১টার দিকে উপজেলা প্রেসক্লাবের আয়োজনে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ হয়েছে। সাংবাদিক রোজিনা ইসলামের মুক্তির দাবি আয়োজিত এ মানববন্ধনে পাটগ্রামের প্রেসক্লাবের সিনিয়র সহসভাপতি আমিনুর রহমানের সভাপতিত্বে বক্তব্য দেন প্রথম আলোর পাটগ্রাম উপজেলা প্রতিনিধি এ বি সফিউল আলম, সাধারণ সম্পাদক ও ইত্তেফাকের উপজেলা সংবাদদাতা আজিজুল হক, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ইফতেখার আহম্মেদ, অর্থ ও দপ্তর সম্পাদক সাংবাদিক আজিনুর রহমান, সাংবাদিক সামিউল ইসলাম ও সাংবাদিক আবু আলম মিয়া, কালের কণ্ঠের প্রতিনিধি মামুন হোসেন সরকার, জাতীয় যুব সংহতি লালমনিরহাট জেলার মহাসচিব হুমায়ূন কবির, ছাত্রসমাজের উপজেলা সভাপতি আবু ফয়সাল পারভেজ প্রমুখ।

পীরগঞ্জ, ঠাকুরগাঁও

ঠাকুরগাঁওয়ের পীরগঞ্জে পূর্ব চৌরাস্তা বঙ্গবন্ধু ম্যুরাল চত্বরে বেলা সাড়ে ১১টার দিকে সাংবাদিক ও সচেতন নাগরিকবৃন্দের ব্যানারে মানববন্ধন হয়েছে। এ সময় বক্তব্য দেন উপজেলা সিপিবির সম্পাদক আইনজীবী আবু সায়েম, পীরগঞ্জ প্রেসক্লাবের সম্পাদক জয়নাল আবেদীন, উপজেলা খ্রিষ্টান অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি বিষ্ণুপদ রায়, উপজেলা বাংলাদেশ মানবাধিকার কমিশনের সম্পাদক এন কে রানা, উপজেলা উদীচীর সহসভাপতি দেলওয়ার হোসেন, জনকণ্ঠের নিজস্ব সংবাদদাতা মোসারফ হোসেন, ডেইলি ইন্ডাস্ট্রি প্রতিনিধি দীপেন রায়, নওরোজ প্রতিনিধি ফজলুল কবীর, প্রথম আলো প্রতিনিধি কাজী নুরুল ইসলাম প্রমুখ।

আনোয়ারা, চট্টগ্রাম

চট্টগ্রামের আনোয়ারার চাতরী চৌমুহনীর ট্রাফিক পয়েন্টে বুধবার বেলা ১১টার দিকে মানববন্ধন করেছেন আনোয়ারা ও কর্ণফুলীর কর্মরত সাংবাদিকেরা। মানববন্ধনে বক্তারা সচিবালয়ে সাংবাদিক রোজিনাকে আটকে রেখে হেনস্তা করা এবং পরে গ্রেপ্তারের তীব্র প্রতিবাদ ও নিন্দা জানান। আনোয়ারা প্রেসক্লাবের সভাপতি এম আনোয়ারুল হকের সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক জাহেদুল হকের সঞ্চালনায় এ সময় বক্তব্য দেন আনোয়ারা প্রেসক্লাবের সাবেক সাধারণ সম্পাদক এম নুরুল ইসলাম, সহসভাপতি প্রথম আলো প্রতিনিধি মোহাম্মদ মোরশেদ হোসেন, আনোয়ারা প্রেসক্লাবের নির্বাহী সদস্য নুরুল আবছার তালুকদার, ক্রীড়া সম্পাদক মো. জাহাঙ্গীর আলম, মানবাধিকারকর্মী লায়ন আনোয়ারুল আজিম চৌধুরী, লেখক ও ছড়াকার রফিক আহমদ, কর্ণফুলী নিউজ ২৪ ডটকমের সম্পাদক মালেক রানা, আনোয়ারা প্রেসক্লাবের যুগ্ম সম্পাদক হ‌ুমায়ূন কবির শাহ সুমন প্রমুখ।

আরও উপস্থিত ছিলেন রাজনীতিক আমির আহমদ খান, নৌ প্রকৌশলী রামচন্দ্র দাস, গীতিকার জীবক বড়ুয়া, দৈনিক মানবকণ্ঠ আনোয়ারা কর্ণফুলী প্রতিনিধি এম ইমরান হোসেন, কর্ণফুলী প্রতিনিধি ডি এইচ মনসুর, একুশে পত্রিকার আনোয়ারা প্রতিনিধি জিন্নাত আইয়ুব, তৃতীয় মাত্রা প্রতিনিধি রানা সাত্তার, বাংলা চ্যানেল বিজয়ী সাঁতারু জামশেদুল আলম, বিজয় টিভির আনোয়ারা প্রতিনিধি সোহেল, সিপ্লাস টিভির আনোয়ারা প্রতিনিধি রেজাউল করিম সাজ্জাদ, সারা আনোয়ারা সংবাদমাধ্যমের নির্বাহী সম্পাদক মহিউদ্দিন মনজুর, সাংবাদিক ছগীর মাহমুদ, মোজাম্মেল হক, মনির হোসেন, সাংবাদিক আহমদ, রফিকুল ইসলাম, রাজিব শর্মা, দৈনিক আলোকিত সকালের আনোয়ারা প্রতিনিধি নেজাম উদ্দিন প্রমুখ।

তাড়াশ, সিরাজগঞ্জ

সিরাজগঞ্জের তাড়াশ উপজেলায় কর্মরত ঐক্যবদ্ধ সাংবাদিকদের ব্যানারে বুধবার বেলা ১১টার দিকে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ হয়েছে। তাড়াশ প্রেসক্লাব চত্বরে আয়োজিত এই কর্মসূচিতে সভাপতিত্ব করেন প্রেসক্লাবের সভাপতি সনাতন দাশ। বক্তব্য দেন প্রবীণ সাংবাদিক আবদুর রাজ্জাক, দৈনিক করতোয়া প্রতিনিধি মেহেরুল ইসলাম, ভোরের কাগজ প্রতিনিধি এম মামুন হুসাইন, মানবজমিন প্রতিনিধি শফিউল হক, সমকাল প্রতিনিধি এম আতিকুল ইসলাম, আমাদের সময় প্রতিনিধি সাব্বির আহম্মেদ, যায়যায়দিন প্রতিনিধি মীর্জা ফারুক, ইত্তেফাক প্রতিনিধি গোলাম মোস্তফা প্রমুখ। বক্তারা অবিলম্বে সাংবাদিক রোজিনা ইসলামের নিঃশর্ত মুক্তি, মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার ও দোষীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানান।

কুমারখালী, কুষ্টিয়া

কুষ্টিয়ার কুমারখালীতে বুধবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে মানববন্ধন করেছেন সর্বস্তরের সাংবাদিক। কুষ্টিয়া-রাজবাড়ী সড়কের কুমারখালী বাসস্ট্যান্ডে এই মানববন্ধনে ব্যানার–ফেস্টুন নিয়ে অর্ধশতাধিক গণমাধ্যমকর্মী অংশ নেন। মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের দুর্নীতিবাজ কর্মকর্তাদের গ্রেপ্তার করতে হবে এবং সাংবাদিক রোজিনা ইসলামের নিঃশর্ত মুক্তি দিতে হবে। ঘটনার মূল হোতা অতিরিক্ত সচিব কীভাবে বিপুল সম্পদের মালিক হয়েছেন, তা খতিয়ে দেখারও দাবি জানান বক্তারা।

এ সময় সেখানে বক্তব্য দেন এশিয়ান টিভির কুমারখালী প্রতিনিধি কে এম আর শাহীন, মাই টিভির লিপু খন্দকার, এটিএন বাংলার স্টাফ রিপোর্টার খন্দকার তুহিন আহমেদ, বাংলা টিভির এম এ উল্লাস, আজকের পত্রিকার মিজানুর রহমান নয়ন, চ্যানেল এসের মনোয়ান হোসেন, বিজয় টিভির খোকসা প্রতিনিধি তানভীর লিটন, সংগ্রামের কুমারখালী প্রতিনিধি মাহমুদ শরীফ, ভোরের ডাকের মোশারফ হোসেন, সাপ্তাহিক অপরাধ অনুসন্ধানের কুষ্টিয়া প্রতিনিধি মাহমুদ হাসান, যায়যায়দিনের কুমারখালী প্রতিনিধি ফরহাদ হাসান টিপু প্রমুখ।

সালথা, ফরিদপুর

ফরিদপুরের সালথায় মানববন্ধন ও বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন করেছেন উপজেলায় কর্মরত সাংবাদিকেরা। বুধবার দুপরে সালথা প্রেসক্লাব চত্বরে আয়োজিত এ কর্মসূচিতে সাংবাদিক ছাড়াও বিভিন্ন শ্রেণি–পেশার মানুষ অংশ নেন।

মানববন্ধনে সালথা প্রেসক্লাবের সভাপতি মো. সেলিম মোল্লা বলেন, সময়ের সাহসী একজন সাংবাদিক রোজিনা ইসলাম। তাঁকে হেনস্তা ও তাঁর বিরুদ্ধে আনা সাজানো অভিযোগ কোনোভাবেই গ্রহণযোগ্য নয়। দুর্নীতির সংবাদ প্রকাশ করায় তাঁর মতো সাংবাদিককে গ্রেপ্তার করে কারাগারে রাখা মানে স্বাধীন সাংবাদিকতাকে খাঁচায় বন্দী করে রাখা। মামলা প্রত্যাহার করে নিঃশর্তভাবে দ্রুত তাঁকে মুক্তি দিতে হবে। পাশাপাশি যেসব সরকারি কর্মকর্তা তাঁকে নির্যাতন করেছেন, তাঁদের আইনের আওতায় এনে শাস্তির ব্যবস্থা করতে হবে।

এ সময় আরও বক্তব্য দেন সালথা প্রেসক্লাবের সদস্য আবু নাসের হুসাইন, এম কিউ হুসাইন বুলবুল, নুরুল ইসলাম, সাইফুল ইসলাম, শ্রাবণ হাসান, চৌধুরী মাহমুদ আশরাফ, মনির মোল্লা, আরিফুল ইসলাম, শফিকুল ইসলাম, আজিজুর রহমান, মোশারফ হোসেন, শরিফুল হাসান, জাকির হোসেন, মোশারফ হোসেন, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সাংসদ সন্তান কমান্ডের সভাপতি মো. মাহবুব হোসেন প্রমুখ।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন