default-image

পাবনা-২ আসনের সাংসদ আহম্মেদ ফিরোজ কবিরের করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার সকালে তিনি জাতীয় সংসদ সচিবালয়ে নমুনা দিয়ে এসে পাবনা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্মারক ম্যুরাল ‘জনক জ্যোতির্ময়’–এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে অংশ নেন। এ কারণে উদ্বিগ্ন হয়ে উঠেছেন অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণকারীরা।

ওই অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণকারী বিশ্ববিদ্যালয়ের একাধিক শিক্ষক, কর্মকর্তা ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়ে সহকর্মীদের সতর্ক থাকার আহ্বান জানিয়েছেন। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও কুষ্টিয়া-৩ আসনের সাংসদ মাহবুব উল আলম হানিফ।

বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য এম রোস্তম আলীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে সাংসদ আহম্মেদ ফিরোজ কবিরসহ আরও বক্তব্য দেন পাবনা-১ আসনের সাংসদ শামসুল হক, পাবনা-৫ আসনের সাংসদ গোলাম ফরুক, পাবনা-৩ আসনের সাংসদ মকবুল হোসেন, পাবনা-৪ আসনের সাংসদ ও বীর মুক্তিযোদ্ধা নূরুজ্জামান বিশ্বাস, কুষ্টিয়া-১ আসনের সাংসদ সরওয়ার জাহান, কুষ্টিয়া-৪ আসনের সাংসদ সেলিম আলতাফ, পাবনা-সিরাজগঞ্জ সংরক্ষিত নারী আসনের সাংসদ নাদিরা ইয়াসমিন প্রমুখ। এ ছাড়া অনুষ্ঠানে জেলা আওয়ামী লীগ, ছাত্রলীগ, যুবলীগসহ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক-শিক্ষার্থীসহ সহস্রাধিক মানুষ অংশ নেন।

বিজ্ঞাপন

বুধবার সকালে সাংসদ আহম্মেদ ফিরোজ কবির নিজের ফেসবুক অ্যাকাউন্টে স্ট্যাটাসে বলেন, ‘প্রিয় পাবনা-২–এর সুজানগর-বেড়াবাসী, করোনাকালীন এই সময়ে আপনাদের মাঝে নিজের সাধ্যমতো ছিলাম এবং জননেত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশনা মোতাবেক এই সময়ে আসা সব ত্রাণ ও সাহায্যসামগ্রী আপনাদের নিকট নিজ দায়িত্বে পৌঁছে দিয়েছি। ব্যস্তময় সময়ে নিজের স্বাস্থ্যের দিকে হয়তো তেমন দৃষ্টি দিতে পারিনি। যার ফলে আজ রিপোর্ট এল ‘করোনা পজিটিভ’। আগামী কিছুদিন আমার ও আপনাদের স্বাস্থ্য সুরক্ষার জন্য আপনাদের থেকে দূরে থাকতে হবে। সবাই আমার জন্য দোয়া করবেন এবং নিজেরা সুরক্ষিত থাকবেন। খোদা হাফেজ। জয় বাংলা, জয় বঙ্গবন্ধু।’

এ ব্যাপারে জানতে যোগাযোগ করা হলে সাংসদ আহম্মেদ ফিরোজ কবির জানান, তাঁর শরীরে করোনাভাইরাসের কোনো উপসর্গ নেই। তিনি শরীরিকভাবে সুস্থ আছেন। কোনো উপসর্গ না থাকায় নমুনা দিয়ে এসে অনুষ্ঠানে অংশ নিয়েছেন। বর্তমানে বাড়িতেই চিকিৎসকদের পরামর্শে চিকিৎসা নিচ্ছেন। শারীরিকভাবে সুস্থ আছেন। তিনি দেশবাসীর কাছে দোয়া চেয়েছেন।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন