জেলে নাসির হাওলাদার জানান, তিনিসহ কয়েকজন জেলে সম্প্রতি বঙ্গোপসাগরে ট্রলার নিয়ে মাছ ধরতে যান। শনিবার দুপুরে রাঙ্গাবালীর সোনারচরের কাছে শাপলাপাতা মাছটি তাঁদের জালে আটকা পড়ে। এরপর তাঁরা মাছটিসহ ট্রলার নিয়ে গলাচিপা শহরের ঘাটে আসেন এবং মাছ বাজারে নিয়ে আসেন। বিশাল আকারের শাপলাপাতা মাছটি দেখতে সকাল থেকেই উৎসুক জনতা মাছ বাজারে ভিড় করতে থাকেন। পরে মাছটি প্রতি কেজি ৫০০ টাকায় বিক্রি করা হয়।

গলাচিপা উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা মো. জহিরুন্নবী বলেন, শাপলাপাতা মাছ সাধারণত সমুদ্র এলাকায় পাওয়া যায়। তবে এসব বড় শাপলাপাতা মাছের জন্য উপকূলীয় অঞ্চলে অভয়াশ্রম করা গেলে সেগুলো নদীতে সহজে বংশবিস্তার করতে পারত।

জেলা মৎস্য কর্মকর্তা মোল্লা এমদাদুল্ল্যাহ বলেন, বন্য প্রাণী (সংরক্ষণ ও নিরাপত্তা) আইন, ২০১২  অনুসারে শাপলাপাতা মাছ ধরা, ক্রয়–বিক্রয় করা নিষেধ। এ ধরনের মাছ না ধরার জন্য জেলেদের সচেতন করতে প্রচার চালানো প্রয়োজন।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন