default-image

জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশের (একাংশের) সভাপতি ও সাবেক ধর্ম প্রতিমন্ত্রী মুফতি মুহাম্মদ ওয়াক্কাস আর নেই। আজ বুধবার ভোরে রাজধানীর শেখ রাসেল জাতীয় গ্যাস্ট্রোলিভার হাসপাতালে তিনি ইন্তেকাল করেন (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাহি রাজিউন)। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৭৪ বছর। তাঁর পরিবারে স্ত্রী, তিন ছেলে, চার মেয়ে আছে।

মুহাম্মদ ওয়াক্কাসের বাড়ি যশোরের মনিরামপুর উপজেলার বিজয়রামপুর গ্রামে। মেজ ছেলে মাওলানা রশিদ আহমদ বলেন, তাঁর বাবা বেশ কয়েক দিন ধরে নানা শারীরিক জটিলতায় ভুগছিলেন। শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে ২৬ মার্চ তাঁকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরে ৩০ মার্চ তাঁকে শেখ রাসেল জাতীয় গ্যাস্ট্রোলিভার হাসপাতালের আইসিইউতে স্থানান্তর করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আজ বুধবার ভোর সাড়ে চারটার দিকে তিনি শেষনিশ্বাস ত্যাগ করেন।

বিজ্ঞাপন

সাবেক ধর্ম প্রতিমন্ত্রী মুহাম্মদ ওয়াক্কাস সরকার স্বীকৃত আল-হাইআতুল উলয়া লিল-জামিআতিল কওমিয়া বাংলাদেশের কো-চেয়ারম্যান ছিলেন। তিনি বেফাকুল মাদারিসিল আরাবিয়া বাংলাদেশের (বেফাক) সিনিয়র সহসভাপতির দায়িত্বে ছিলেন। অবিভক্ত জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশের মহাসচিব হিসেবেও দায়িত্ব পালন করেন তিনি। এরশাদের আমলে ধর্ম প্রতিমন্ত্রী হন মুফতি ওয়াক্কাস। পরে তিনি যোগ দেন জমিয়েত উলামায় ইসলামে।

হেফাজতে ইসলামের কেন্দ্রীয় নায়েবে আমির ও ঢাকা মহানগর হেফাজতের প্রধান উপদেষ্টা ছিলেন মুহাম্মদ ওয়াক্কাস। তবে হেফাজত আমির আহমদ শফীর মৃত্যুর পর জুনায়েদ বাবুনগরীর নেতৃত্বে হেফাজতের পুরোনো কমিটি বিলুপ্ত করে নতুন কমিটি করা হলে সেই কমিটিতে তাঁর নাম বাদ পড়ে।

পরিবার সূত্রে জানা যায়, বুধবার সন্ধ্যায় মনিরামপুর উপজেলার মাদানীনগর মাদ্রাসা মাঠে জানাজা শেষে তাঁর লাশ পাশে মসজিদের সামনে দাফন করা হবে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন