default-image

ঢাকার সাভারে এক গৃহবধূকে যৌন হয়রানি ও ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগ পাওয়া গেছে। ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে পুলিশ এক রংমিস্ত্রিকে গ্রেপ্তার করেছে। পানি পান করার কথা বলে গতকাল বুধবার সন্ধ্যায় ঘরে ঢুকে ওই রংমিস্ত্রি গৃহবধূকে ধর্ষণের চেষ্টা করেন বলে পুলিশ জানিয়েছে।

গ্রেপ্তার ব্যক্তির নাম রিপন (৩০)। তিনি সাভারের তেঁতুলঝোরা ইউনিয়নের বাসিন্দা।

রংমিস্ত্রি রিপন বুধবার সন্ধ্যায় গৃহবধূর ফ্ল্যাটে গিয়ে পানি পান করবেন বলে জানান।গৃহবধূ রিপনকে গ্লাসে করে পানি এনে দেন। পানি খেয়ে রিপন গ্লাস দেওয়ার পর গৃহবধূকে পেছন থেকে জাপটে ধরেন এবং ধর্ষণের চেষ্টা করেন।

পুলিশ জানায়, সাভার পৌর এলাকার একটি মহল্লার যে ভবনে ওই গৃহবধূ তাঁর স্বামীর সঙ্গে বসবাস করেন, মাসখানেক ধরে রিপন ওই ভবনে রংমিস্ত্রি হিসেবে কাজ করছিলেন। পরিচয়ের সূত্র ধরে রিপন বুধবার সন্ধ্যায় গৃহবধূর ফ্ল্যাটে গিয়ে দরজার কড়া নাড়েন। গৃহবধূ রিপনের কণ্ঠ শুনে দরজা খুলে দিলে তিনি পানি পান করবেন বলে জানান। তখন ওই গৃহবধূ ও তাঁর তিন বছরের মেয়ে ছাড়া ফ্ল্যাটে আর কেউ ছিল না। গৃহবধূ পানি আনার জন্য রান্নাঘরে গেলে রিপন দরজা গলে ভেতরে ঢুকে তাঁদের ড্রয়িংরুমে বসেন। গৃহবধূ রিপনকে গ্লাসে করে পানি এনে দেন। পানি খেয়ে রিপন গ্লাস দেওয়ার পর গৃহবধূকে পেছন থেকে জাপটে ধরেন এবং ধর্ষণের চেষ্টা করেন। একপর্যায়ে ওই গৃহবধূর চিৎকারে পাশের ফ্ল্যাটের লোকজন ছুটে এসে রিপনকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেন।

বিজ্ঞাপন

ওই গৃহবধূ বলেন, দরজার বাইরে থেকে পানি চাওয়ার পর তাঁর অনুমতি না নিয়েই রিপন তাঁদের ঘরে ঢুকে পড়েছিলেন। ভবনের কাজ করছে সূত্রে পরিচিত হওয়ার কারণে তিনি কিছু বলেননি। আর এ সুযোগকে কাজে লাগিয়ে কিছু বুঝে ওঠার আগেই রিপন তাঁকে ধর্ষণের চেষ্টা করেন। এ ব্যাপারে তিনি বুধবার রাতেই সাভার থানায় মামলা করেছেন।

সাভার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা এ এফ এম সায়েদ বলেন, গৃহবধূকে ধর্ষণচেষ্টার মামলায় গ্রেপ্তার রিপনকে আজ বৃহস্পতিবার আদালতে তোলা হয়েছে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন