বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

স্থানীয় সূত্র জানায়, বৃহস্পতিবার রাত ৮টার দিকে ১৫ নম্বর সিইউএফএল ঘাট দিয়ে পারাপারের সময় যাত্রীদের কাছ থেকে নৌকায় ১৫ টাকা ও ঘাটে ৩ টাকা মিলিয়ে ১৮ টাকা করে আদায় করা হচ্ছিল। ওই ঘটনার প্রতিবাদে ঘাটের উপস্থিত যাত্রীরা তাৎক্ষণিকভাবে নৌকা পারাপারে বাধা দিয়ে পতেঙ্গা প্রান্তে বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ শুরু করেন। রাত ৮টা থেকে ১০টা পর্যন্ত দুই পাশে শত শত যাত্রীর ভিড় পড়ে যায়।

ঘটনার পর রাত ১০টায় পতেঙ্গা থানা থেকে পুলিশ ঘটনাস্থল এসে যাত্রী ও নৌকার চালকদের সঙ্গে কথা বলে সমঝোতা করেন এবং জনপ্রতি ১২ টাকা ভাড়ায় যাত্রী পারাপারে রাজি হলে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়।

প্রত্যক্ষদর্শী জাশেদুল আলম বলেন, অমানবিকভাবে জনপ্রতি ১৮ টাকা ভাড়া নেওয়ায় যাত্রীরা ক্ষিপ্ত হয়ে নৌকা পারাপারে বাধা দেন। দুই ঘণ্টা পর সমস্যা সমাধান হয়।

এ ব্যাপারে বন্দর বোট মালিক সমবায় সমিতি লিমিটেডের সদস্য ও ঘাটের উপ–ইজারাদার মো. আবচার বলেন, ভুল–বোঝাবুঝি হয়েছিল। তবে পরে সমাধান হয়ে যায়।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন