সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পড়েন জেলা বিএনপির সভাপতি আবদুল কাইয়ুম চৌধুরী। লিখিত বক্তৃতায় তিনি বলেন, সিলেট ও সুনামগঞ্জ জেলায় শতাব্দীর ভয়াবহ বন্যা চলমান রয়েছে। সিলেটের মানুষ চরম দুর্ভোগের মধ্যে সময় পার করছেন। বন্যাকালীন সময়ে জেলা বিএনপি ১৩টি উপজেলায় ৩৬ হাজার ২০০ পরিবারকে শুকনা খাবার, ১ লাখ ৯৩ হাজার ব্যক্তিকে তৈরি করা খাবার ও বিশুদ্ধ পানি এবং ১১ হাজার ৩০০ পরিবারকে নগদ টাকা দিয়েছে।

সংবাদ সম্মেলনে জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক এমরান আহমদ চৌধুরী, জেলা বিএনপি নেতা শামীম আহমদ, আশিক উদ্দিন, মাহবুবুর রব চৌধুরী, ইশতিয়াক আহমদ সিদ্দিকী, মাহবুবুল হক চৌধুরী, কোহিনুর আহমদ, রফিকুল ইসলাম, মোস্তাক আহমদ, জেলা যুবদলের সদস্যসচিব মকসুদ আহমদ, যুবদল নেতা সাঈদ আহমদ, মহানগর স্বেচ্ছাসেবক দলের সদস্যসচিব আজিজুল হোসেন প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

সিলেটের বন্যাকবলিত এলাকা পরিদর্শন করতে এবং বানভাসি ব্যক্তিদের খাদ্যসামগ্রী দিতে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর আগামীকাল বৃহস্পতিবার সিলেটে আসছেন। আজ রাতে এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক এমরান আহমদ চৌধুরী বিষয়টি জানিয়েছেন।

এমরান আহমদ চৌধুরী জানান, বন্যাকবলিত এলাকা পরিদর্শনের পর বিএনপির মহাসচিব বেলা একটায় জেলা বিএনপির উদ্যোগে জৈন্তাপুর উপজেলার দরবস্ত ইউনিয়নের গর্দনা এলাকার খাজার মোকাম উচ্চবিদ্যালয় আশ্রয়কেন্দ্রে বন্যার্ত মানুষের মধ্যে ত্রাণ বিতরণ কর্মসূচিতে প্রধান অতিথির বক্তব্য দেবেন।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন