default-image

সিলেটের ওসমানীনগরে আজ শুক্রবার ভোরে দুই ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষে একটির চালক ও সহকারী নিহত হয়েছেন। তবে সন্ধ্যা ছয়টা পর্যন্ত নিহতদের পরিচয় জানাতে পারেনি পুলিশ। তাঁদের মরদেহ সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের হিমঘরে রাখা হয়েছে। এ ঘটনায় অপর ট্রাকের চালক ও সহকারী আহত হয়েছেন বলে জানা গেছে। তবে তাঁরা কোথায় চিকিৎসা নিচ্ছেন, তা–ও জানাতে পারেনি পুলিশ।

শুক্রবার ভোর সাড়ে পাঁচটার দিকে সিলেট-ঢাকা মহাসড়কের উপজেলার দয়ামীর চক আতাউল্লা এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় ও তামাবিল হাইওয়ে পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, ভোরে সিলেট থেকে বালুবোঝাই একটি ট্রাক ঢাকার দিকে যাচ্ছিল। সাড়ে পাঁচটার দিকে ট্রাকটি ওসমানীনগরের দয়ামীর এলাকায় পৌঁছালে ঢাকা থেকে সিলেটের দিকে আসা একটি পণ্যবোঝাই ট্রাকের সঙ্গে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে সিলেটের দিকে আসা ট্রাকটির চালক ও সহকারী ঘটনাস্থলেই মারা যান। খবর পেয়ে তামাবিল হাইওয়ে ফাঁড়ি পুলিশ ও ওসমানীনগরের তাজপুর ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা উদ্ধার তৎপরতা চালিয়ে লাশ সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠান। ঘটনাস্থল থেকে ট্রাক দুটি উদ্ধার করে তামাবিল হাইওয়ে পুলিশ ফাঁড়িতে নেওয়া হয়েছে।

সন্ধ্যা ছয়টা পর্যন্ত নিহতদের পরিচয় জানাতে পারেনি পুলিশ। তাঁদের মরদেহ সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের হিমঘরে রাখা হয়েছে। এ ঘটনায় অপর ট্রাকের চালক ও সহকারী আহত হয়েছেন বলে জানা গেছে।

তামাবিল হাইওয়ে থানার উপপরিদর্শক (এসআই) মো. আমির উদ্দিন প্রথম আলোকে বলেন, ‘নিহতদের নাম–পরিচয় জানা যায়নি। তবে বগুড়ার কয়েকজন বাসিন্দা আমাদের সঙ্গে যোগযোগ করেছেন। তাঁরা সিলেটে আসছেন। তাঁরা লাশ দেখে তাঁদের স্বজন কি না শনাক্ত করবেন।’ তিনি আরও বলেন, ‘আহত অপর ট্রাকের চালক ও সহকারীর সন্ধান পাওয়া যায়নি। তাঁরা কোথায় চিকিৎসা নিচ্ছেন, সেটি আমরা খোঁজ নেওয়ার চেষ্টা করছি।’

বিজ্ঞাপন
জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন