বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

স্বাস্থ্য বিভাগ সূত্রে জানা গেছে, সিলেট বিভাগে করোনা সংক্রমণের ঊর্ধ্বগতি ছিল গত জুন মাস থেকে। জুনের প্রথম দিক থেকে দৈ‌নিক শনাক্ত ২০ শতাংশের ওপরে উঠতে থাকে, যা জুনের শেষ দিকে ২৪ ঘণ্টায় নমুনা পরীক্ষায় ৩০ শতাংশে পৌঁছায়। গত ২ আগস্ট সর্বোচ্চ ৪৩ দশমিক ৬৫ শতাংশ শনাক্ত করা হয়েছিল। তবে সম্প্রতি করোনা সংক্রমণের হার নিম্নমুখী। প্রায় এক সপ্তাহ ধরে সংক্রমণের হার ১৫ শতাংশের নিচে নেমে এসেছে। আজ যা ৬ শতাংশে নে‌মে এসেছে।

গত ২৪ ঘণ্টায় বিভাগে নতুন শনাক্ত ব্যক্তিদের মধ্যে সিলেট জেলায় ৪০ জন, সুনামগঞ্জে ৫ জন, হবিগঞ্জে ৩ জন ও মৌলভীবাজার জেলায় ১৯ জন রয়েছেন। এ নিয়ে বিভাগে করোনায় আক্রান্ত মানুষের সংখ্যা ৫৩ হাজার ৮২৪। এর মধ্যে সিলেট জেলার বাসিন্দা ৩৩ হাজার ১৩৮ জন, সুনামগঞ্জের ৬ হাজার ১৮৯ জন, হবিগঞ্জের ৬ হাজার ৫৫৮ জন ও মৌলভীবাজারের রয়েছেন ৭ হাজার ৯৪০ জন।
এ পর্যন্ত বিভাগে করোনায় মারা গেছেন ১ হাজার ১২২ জন। এর মধ্যে সিলেট জেলায় ৯৩১ জন, সুনামগঞ্জে ৭২ জন, হবিগঞ্জে ৪৭ জন ও মৌলভীবাজার জেলায় ৭২ জন মারা গেছেন।

এদিকে গত ২৪ ঘণ্টায় ১২০ জন সুস্থ হয়েছেন। এ নিয়ে বিভাগে করোনা থেকে সুস্থ হওয়া ব্যক্তির সংখ্যা ৪৬ হাজার ১৫৬।

সিলেট বিভাগীয় স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের পরিচালক হিমাংশু লাল রায় বলেন, ‘সিলেট বিভাগে করোনা সংক্রমণের হার নিম্নমুখী। এর পরও আমাদের সবাইকে সচেতন থাকতে হবে। সংক্রমণের তৃতীয় ঢেউ যাতে ছড়িয়ে না পড়ে, সে জন্য সবাইকে স্বাস্থ্যবিধি ও সামাজিক দূরত্ব মেনে চলতে হবে।’ তিনি আরও বলেন, আক্রান্ত হয়ে বিভিন্ন হাসপাতালে বর্তমানে চিকিৎসাধীন ১৭১ জনের মধ্যে ১৩৬ জন চিকিৎসা নিচ্ছেন সিলেট জেলার বিভিন্ন হাসপাতালে। এ ছাড়া সুনামগঞ্জের বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছেন ১৭ জন, হবিগঞ্জে ১১ জন ও মৌলভীবাজারে ৭ জন।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন