চট্টগ্রাম জেলার মানচিত্র

সবুজ বেষ্টনীর ঠিক বাইরে খননযন্ত্র দিয়ে বালু তুলে দুটি বাল্কহেডে রাখছিল একদল দুষ্কৃতকারী। খবর পেয়ে ওই এলাকায় অভিযান চালান ভ্রাম্যমাণ আদালত। এ সময় খননযন্ত্র নিয়ে চক্রের লোকজন পালিয়ে গেলেও বাল্কহেড দুটি জব্দ করে উপকূলে আনা হয়।

ঘটনাটি ঘটেছে আজ মঙ্গলবার বিকেলে চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডের সৈয়দপুর ইউনিয়নের সাগর উপকূলের উপকূলীয় বনের বাইরে সন্দ্বীপ চ্যানেলে। তবে এ অভিযানে ওই স্থানে বালু উত্তোলন বন্ধ হয়নি। অভিযানের ঘণ্টাখানেক পরই আরও তিনটি বাল্কহেডসহ খননযন্ত্র নিয়ে ফিরে এসে বালু তুলতে শুরু করে ওই দুষ্কৃতকারীরা।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন সৈয়দপুর ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান তাজুল ইসলাম নিজামী। এ বিষয়ে তিনি প্রথম আলোকে বলেন, দুটি বাল্কহেড জব্দের পর আরও তিনটি এনে বালু নিয়ে গেছে দুষ্কৃতকারীরা। ঘটনাটি প্রশাসনকে একরকম বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখানোর মতো। নতুন করে তিনটি বাল্কহেড নামিয়ে বালু উত্তোলনের বিষয়টি স্থানীয় ইউপি সদস্য তাঁকে জানানোর পর তিনি উপজেলা প্রশাসনকে জানান। পরে সহকারী কমিশনার (ভূমি) আশরাফুল আলম বাল্কহেডগুলো জব্দের নির্দেশ দিলেও হামলার ভয়ে যাননি ইউপি সদস্য।

অভিযানের ঘণ্টাখানেক পরই আরও তিনটি বাল্কহেডসহ খননযন্ত্র নিয়ে ফিরে এসে বালু তুলতে শুরু করে ওই দুষ্কৃতকারীরা।

সহকারী কমিশনার (ভূমি) আশরাফুল আলম প্রথম আলোকে বলেন, সীতাকুণ্ডের উপকূলে বালু তোলার খবর পেয়ে তিনি ওই এলাকায় অভিযান চালান। পরে দুটি বাল্কহেড জব্দ করে স্থানীয় ইউপি সদস্যের জিম্মায় রেখে আসেন। তবে মালিকপক্ষের কেউ এখনো যোগাযোগ করেননি।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. শাহদাত হোসেন বলেন, জাহাজভাঙা কারখানা এলাকা ছাড়া বাকি সব স্থানে বালু উত্তোলন সম্পূর্ণ অবৈধ। তাঁরা যেখানে অবৈধভাবে বালু তোলার খবর পাচ্ছেন, সেখানে অভিযান চালাচ্ছেন। কিন্তু মূল চক্রটিকে ধরা যাচ্ছে না। যাঁদের আটক করে আনা হয়েছে, তাঁরা শ্রমিক।

ইউএনও আরও বলেন, তাঁরা জানতে পেরেছেন, মিরসরাই থেকে এসে সীতাকুণ্ডের উপকূল থেকে বালু তুলে নিয়ে যাচ্ছে। অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

১৪ ফেব্রুয়ারি গুলিয়াখালী সৈকত এলাকা থেকে একটি বাল্কহেড জব্দ করেছিলেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। এরপর বাল্কহেডমালিককে এক লাখ টাকা জরিমানা করা হয়। পরে মুচলেকা নিয়ে ছেড়ে দেওয়া হয়। ওই দিন ‘পর্যটন এলাকা ঘোষণার এক মাসের মাথায় হুমকির মুখে গুলিয়াখালী সৈকত’ শিরোনামে প্রথম আলো অনলাইনে সচিত্র সংবাদ প্রকাশ হয়। ওই ঘটনার এক সপ্তাহের মাথায় আবার দুটি বাল্কহেড জব্দ করল প্রশাসন।