default-image

শেরপুরের নালিতাবাড়ী উপজেলার সীমান্তবর্তী কালাকুমা গ্রামের ফসলি জমির মাটির নিচ থেকে রকেট লঞ্চারের গোলা উদ্ধার করা হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার সন্ধ্যায় ওই গ্রামের জনৈক আতর আলীর খেত থেকে এটি উদ্ধার করা হয়। পুলিশ গোলাটি তাদের হেফাজতে নিয়েছে। ওই গ্রামে পুলিশ পাহারার ব্যবস্থা করা হয়েছে।

পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, সীমান্তবর্তী কালাকুমা গ্রামের এক যুবক ভারত থেকে বয়ে আসা ভোগাই নদে গোসল করতে যান। এ সময় পানির নিচে রকেট লঞ্চারের গোলাটি পান। পরে ভয়ে ওই যুবক কাউকে কিছু না জানিয়ে নদসংলগ্ন কালাকুমা গ্রামের কৃষক আতর আলীর ফসলি জমিতে গোলাটি পুঁতে রাখেন। বিষয়টি এলাকায় জানাজানি হয়। খবর পেয়ে কালাকুমা বিজিবি ক্যাম্পের সদস্যরা পুলিশকে খবর দেন। সন্ধ্যায় নালিতাবাড়ী সার্কেলের সহকারী পুলিশ সুপার (এএসপি) আফরোজা নাজনীন, নালিতাবাড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বছির আহমেদসহ পুলিশ সদস্যরা ঘটনাস্থলে যান। মাটি খুঁড়ে পরিত্যক্ত অবস্থায় রকেট লঞ্চারের গোলাটি উদ্ধার করা হয়।

ওসি বছির আহমেদ গতকাল রাতে প্রথম আলোকে বলেন, বিজিবির মাধ্যমে খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে গোলাটি পরিত্যক্ত অবস্থায় পাওয়া গেছে। গোলাটি পুলিশি হেফাজতে নেওয়া হয়েছে। এ ব্যাপারে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে। পরবর্তী সময়ে গোলাটি নিষ্ক্রিয় করা হবে।

বিজ্ঞাপন
জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন