থানা-পুলিশ সূত্রে জানা যায়, মরদেহটি দুই থেকে তিন দিন আগের। এতে পচন ধরেছে। চৌগাছার কাবিলপুর মাঠ এবং ভারতের বনগাঁ জেলার লক্ষ্মীপুর এলাকার মধ্য দিয়ে প্রবাহিত কপোতাক্ষ নদে আন্তর্জাতিক শূন্যরেখায় মঙ্গলবার সকালে এক ব্যক্তির মরদেহ ভাসছিল। বেলা ১১টার দিকে ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী (বিএসএফ) চৌগাছার শাহাজাদপুর বিজিবি (বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ) ক্যাম্পে খবর দেয়। পরে বিজিবি এবং স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) সদস্য মোস্তাফিজুর রহমান চৌগাছা পুলিশকে খবর দেন। এরপর দুপুর ১২টার দিকে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে নদে প্রায় তিন কিলোমিটার মরদেহটি ভাসিয়ে কাবিলপুর গ্রামে নিয়ে যায়। পরে পুলিশ সেখান থেকে মরদেহটি উদ্ধার করে। এ সময় পুলিশ ওই ব্যক্তির পরনের ট্রাউজারের পকেট থেকে বাংলাদেশি টাকার কয়েকটি নোট, একটি গ্যাস লাইটার এবং চপ্পল (স্যান্ডেল) উদ্ধার করে।

চৌগাছা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সাইফুল ইসলাম বলেন, মরদেহটি দুই-তিন দিন আগের। এতে পচন ধরেছে। মরদেহের গায়ে কোনো আঘাতের চিহ্ন পাওয়া যায়নি। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, মরদেহটি কোনো চোরাকারবারির। ঈদ সামনে রেখে ভারত থেকে দেশে আসার পথে নদ পার হওয়ার সময় তিনি মারা গেছেন। ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহটি যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। ময়নাতদন্তের প্রতিবেদন পাওয়ার পর তাঁর মৃত্যুর প্রকৃত কারণ জানা যাবে। ওই ব্যক্তির নাম ও পরিচয় উদ্‌ঘাটনের জন্য চেষ্টা চলছে।