default-image

সুনামগঞ্জে মুক্তিযুদ্ধের সময় পাকিস্তানী বাহিনীর গুলিতে প্রাণ দিয়েছিলেন আনসার সদস্য আবুল হোসেন। তিনিই জেলার প্রথম শহীদ। মহান মুজিব বর্ষ উপলক্ষে আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনী তাদের নিজস্ব অর্থে শহীদ আবুল হোসেনের পরিবারকে একটি নতুন ঘর নির্মাণ করে দিয়েছে। ঘরটির নাম দেওয়া হয়েছে ‘স্মৃতিঘর’।
গতকাল সোমবার দুপুরে স্মৃতিঘরটি শহীদ আবুল হোসেনের স্ত্রী রহিমা বেগম ও তাঁর সন্তানদের কাছে আনুষ্ঠানিকভাবে হস্তান্তর করা হয়। এ উপলক্ষে সদর উপজেলার সুরমা ইউনিয়নের ইব্রাহিমপুর গ্রামে এক অনুষ্ঠান হয়। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর সিলেট রেঞ্জ পরিচালক মো. রফিকুল ইসলাম। বিশেষ অতিথি ছিলেন সুনামগঞ্জ সদর উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা ইয়াসমিন নাহার।

বিজ্ঞাপন

প্রতিষ্ঠানের সুনামগঞ্জ জেলা কমান্ড্যান্ট এনামুল হক খানের সভাপতিত্বে ও সহকারী জেলা কমান্ড্যান্ট সাজ্জাদ হোসেনের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য দেন স্থানীয় সুরমা ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান আবদুস ছাত্তার, ইউপি সদস্য স্বাধীনা আক্তার এবং শহীদ আবুল হোসেনের স্ত্রী রহিমা বেগম।
অনুষ্ঠানে নতুন ঘর হস্তান্তরের পাশাপাশি শহীদ পরিবারের সদস্যদের নতুন পোশাক উপহার দেওয়া হয়। আধা পাকা নতুন টিনশেড ঘরটি নির্মাণে ব্যয় হয়েছে দুই লাখ টাকা।
অনুষ্ঠানে শহীদ আবুল হোসেনের স্ত্রী রহিমা বেগম প্রধানমন্ত্রীর প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়ে বলেন, ‘বড় দুঃখ-কষ্টে দিন গেছে। বর্তমান সরকার নানাভাবে এখন তাঁদের সাহায্য-সহযোগিতা করছে। এখন নতুন একটি ঘর পেয়ে আনন্দ হচ্ছে। আমরা খুব খুশি।’

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন