বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

বিমান বাংলাদেশের সেবার মান উন্নত হয়েছে দাবি করে পরিচালক  জিয়াউদ্দীন আহমেদ বলেন, ‘সিট খালি কিন্তু টিকিট নেই, বিমানের সে অবস্থা এখন আর নেই। বঙ্গবন্ধুর নিজের হাতে গড়া প্রতিষ্ঠানটি ঘুরে দাঁড়িয়েছে তাঁরই কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ঐকান্তিক প্রচেষ্টায়। বিমান এখন আন্তর্জাতিক মানের সেবা দিয়ে আসছে। পরিস্থিতি স্বাভাবিক থাকলে বিমান আর কোনো দিনও লোকসান করবে না।’

সভায় সভাপতিত্ব করেন জেলা প্রশাসক মো. হাফিজুর রহমান চৌধুরী। সভায় বিমান বাংলাদেশের উপমহাব্যবস্থাপক (নিরাপত্তা) মেজর মো. তাইজ ইবনে আনোয়ার, জেলা ব্যবস্থাপক হারুন অর রশীদ, জেলা ফার্টিলাইজার অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি আবদুল ওয়াহেদ সরকার, নীলফামারী শিল্প ও বণিক সমিতির সাবেক সভাপতি এস এম শফিকুল আলম, বর্তমান সহসভাপতি ফরহানুল হক, সাংবাদিক তাহমিন হক, আতিয়ার রহমান, মীর মাহমুদুল হাসান, হাসান রাব্বী প্রধান, ভুবন রায় নিখিল প্রমুখ বক্তব্য দেন।

বক্তারা যোগাযোগের ক্ষেত্রে সৈয়দপুর বিমানবন্দরের গুরুত্ব তুলে ধরে বলেন, এ জেলায় উত্তরা ইপিজেড। সম্প্রতি চিলাহাটি স্থলবন্দর চালু হওয়ায় ভারতের সঙ্গে রেলপথে সরাসরি মোংলা বন্দরসহ দেশের বিভিন্ন স্থানের সংযোগ হয়েছে। প্রসার ঘটেছে ব্যবসা-বাণিজ্যের। দেশের বিভিন্ন প্রান্তে যোগাযোগের বাহন বিমান হওয়ায় এ জেলাসহ পাশের জেলার হাজারো মানুষের ভরসা সৈয়দপুর বিমানবন্দর। তাই বিমানের যাত্রীদের সেবা বাড়াতে শুধু রংপুর ও দিনাজপুরের সঙ্গে বাস সার্ভিস চালু হলো। নীলফামারীসহ পাশের পঞ্চগড়, ঠাকুগাঁও, লালমনিরহাট জেলায় অনুরূপ বাস সেবা না হলেও মাইক্রোবাস সেবার চালুর দাবি জানানো হয়।

সভায় ওই দাবির পরিপ্রেক্ষিতে এ অঞ্চলের অন্য জেলাগুলোর সঙ্গে যাত্রীদের বিনা মূল্যে মাইক্রোবাস সেবা চালুর বিষয়ে উপস্থিত সবাইকে আশ্বস্ত করেন বিমানের পরিচালক জিয়াউদ্দীন আহমেদ।

পরে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সামনে ফিতা কেটে সৈয়দপুর বিমানবন্দর থেকে রংপুর এবং দিনাজপুর বাস সার্ভিসের উদ্বোধন করেন জিয়াউদ্দীন আহমেদ ও জেলা প্রশাসক মো. হাফিজুর রহমান চৌধুরী।

সৈয়দপুর বিমানবন্দর সূত্র জানায়, বিমান বাংলাদেশের ফ্লাইট বিজি-৪৯৫ মঙ্গলবার বাদে প্রতিদিন সন্ধ্যা ৬টা ৪৫ মিনিটে ঢাকা থেকে সৈয়দপুরের উদ্দেশে যাত্রা করে এবং রাত ৮টা ৫ মিনিটে সৈয়দপুর থেকে ঢাকার উদ্দেশে ছেড়ে যায়। এ ছাড়া বিমান বাংলাদেশ ফ্লাইট বিজি-৪৯৩ প্রতি শুক্র, শনি, রবি ও বৃহস্পতিবার ঢাকা থেকে সকাল ৭টা ৩০ মিনিটে সৈয়দপুর বিমানবন্দরের উদ্দেশে যাত্রা করে।

সৈয়দপুর বিমানবন্দর থেকে সকাল ৮টা ৫০ মিনিটে ঢাকার উদ্দেশে ছেড়ে যায়। এ ছাড়া ফ্লাইট বিজি-৬৯৩ প্রতিদিন বেলা ১টায় ঢাকা থেকে সৈয়দপুরের উদ্দেশে এবং সৈয়দপুর থেকে বেলা ২টা ২০ মিনিটে ঢাকার উদ্দেশে যাত্রা করে।

বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনসের নীলফামারী জেলা ব্যবস্থাপক মো. হারুন অর রশীদ বলেন, ‘সৈয়দপুর- ঢাকা রুটে সম্প্রতি কেনা বিমান বাংলাদেশের অত্যাধুনিক উড়োজাহাজ ব্যবহার করা হচ্ছে। যাত্রীদের বিনা মূল্যে শীতাতপনিয়ন্ত্রিত বাস সেবার পাশাপাশি এ অঞ্চলের যাত্রীদের সুবিধার্থে আগামী মাস থেকে সৈয়দপুর-কক্সবাজার সরাসরি বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনসের উড়োজাহাজ চলাচল শুরু করবে।’

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন