বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

এ ঘটনায় শনিবার রাতে কিশোরীর মা বাদী হয়ে সোনাগাজী মডেল থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে ধর্ষণ মামলা করেন। মামলায় মো. রিপন ও তাঁর বড় ভাই মো. ইসমাইলকে আসামি করা হয়েছে।

কিশোরীর মা বলেন, রাতের ঘটনা অস্বীকার করায় শনিবার দিনভর তিনি স্থানীয় সমাজপতিদের দ্বারে দ্বারে ঘুরে বেড়িয়েছেন। সমাজপতিরা তাঁকে থানায় গিয়ে আইনি ব্যবস্থা নিতে পরামর্শ দেন। পরে তিনি মামলা করেন। তিনি রিপন ও তাঁর ভাই ইসমাইলের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি চান।

সোনাগাজী মডেল থানার উপরিদর্শক (এসাআই) মো. বেলায়েত হোসেন বলেন, আজ সকালে ফেনীর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে কিশোরীর স্বাস্থ্য পরীক্ষা করা হয়েছে। তাঁর জবানবন্দি রেকর্ডের জন্য ফেনীর সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে হাজির করা হবে।

সোনাগাজী মডেল থানার ওসি মোহাম্মদ সাজেদুল ইসলাম বলেন, রিপনের ভাই ইসমাইলকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। শনিবার সকাল থেকে রিপন পলাতক। তাঁকে গ্রেপ্তারে পুলিশ চেষ্টা চালাচ্ছে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন