বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
default-image

এ সময় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনের পক্ষে প্রক্টর আসাবুল হক, জনসংযোগ প্রশাসক প্রদীপ কুমার পান্ডে, ছাত্র উপদেষ্টা সহযোগী অধ্যাপক তারেক নূর, পরিবহন প্রশাসক মোকসিদুল হক ও সহকারী প্রক্টর আরিফুল ইসলাম প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। চেক ও ঈদসামগ্রী বিতরণ শেষে তাঁরা নিহত হাবিবের কবর জিয়ারত করেন।

গত ১ ফেব্রুয়ারি রাত পৌনে নয়টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ হবিবুর রহমান হলের সামনের রাস্তায় ট্রাকচাপায় মাহমুদ হাবিব নিহত হন। হাবিব গ্রাফিক ডিজাইন বিভাগের চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থী ছিলেন। এ ঘটনায় আহত হন রায়হান প্রামাণিক রিমেল নামের আরেক শিক্ষার্থী। তাঁর চিকিৎসারও সার্বিক তত্ত্বাবধান করে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। আহত রায়হানের এক বছরের পড়াশোনার জন্য এক লাখ টাকার একটি চেক দিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। গতকাল রায়হানের হাতে চেকটি হস্তান্তর করা হয়।

বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য গোলাম সাব্বির সাত্তার বলেন, ‘আমরা বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের পক্ষ থেকে যেসব প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলাম, আস্তে আস্তে সেগুলো বাস্তবায়নের চেষ্টা করছি। আমরা হিমেলকে ফিরে পাব না। কিন্তু তাঁর মা এবং পরিবারের অন্য সদস্যদের যথাসম্ভব সাহায্যের চেষ্টা করতে তো সমস্যা নেই। এটা আমাদের দায়িত্ব।’ তিনি আরও বলেন, ‘হিমেলের মাকে সহায়তা করার জন্য আমি প্রধানমন্ত্রী ও শিক্ষামন্ত্রীর কাছেও আবেদন করেছি। আশা করছি, সেখান থেকে ভালো একটা ফান্ড গঠন করে হিমেলের মাকে দিতে পারব।’

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন