বিজ্ঞাপন

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, আয় নেই, অনাহারে-অর্ধাহারে দিন কাটছে, এমন মানুষের কথা ভেবে সম্পূর্ণ ব্যক্তিগতভাবে কিছু হতদরিদ্র মানুষকে খাদ্যসহায়তা দেওয়ার উদ্যোগ নেন মৌলভীবাজারের পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জাকারিয়া। তাঁর এ উদ্যোগের সঙ্গে যাঁর যাঁর মতো অর্থ দিয়ে শামিল হন জেলা পুলিশের আরও কিছু ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা। সে অনুযায়ী সোমবার বিকেল চারটা থেকে ছয়টা পর্যন্ত মৌলভীবাজার শহরের কুসুমবাগ, সাইফুর রহমান সড়কসহ বিভিন্ন সড়ক, শহরতলির কিছু এলাকা ঘুরে ঘুরে, হতদরিদ্রদের খুঁজে বের করে তাঁদের হাতে খাদ্যসহায়তা তুলে দিয়েছেন পুলিশের কর্মকর্তারা।

অনাহারে-অর্ধাহারে দিন কাটছে, এমন মানুষের কথা ভেবে সম্পূর্ণ ব্যক্তিগতভাবে কিছু হতদরিদ্র মানুষকে খাদ্যসহায়তা দেওয়ার উদ্যোগ নেন মৌলভীবাজারের পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জাকারিয়া।

এ সময় দিনমজুর, ভিক্ষুক, রিকশাচালক, ভ্যানচালক এ রকম ৫০ জন হতদরিদ্র মানুষের হাতে খাদ্যসহায়তা তুলে দেওয়া হয়। সহায়তার প্রতিটি প্যাকেটে ছিল পাঁচ কেজি চাল, দুই কেজি পেঁয়াজ, এক কেজি ডাল, দুই কেজি আলু, এক লিটার তেল ও একটি করে মোরগ। এ সময় উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ) হাসান মোহাম্মদ নাছের রিকাবদার, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার এ বি এম মুজাহিদুল ইসলাম, জেলা গোয়েন্দা শাখার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. বদিউজ্জামান প্রমুখ।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার হাসান মোহাম্মদ নাছের রিকাবদার প্রথম আলোকে বলেন, ‘আমরা খুঁজে খুঁজে একেবারে হতদরিদ্র মানুষের হাতে এ খাদ্য তুলে দিয়েছি। আমরা যদি প্রত্যেকে আশপাশের একটি দরিদ্র পরিবারের দায়িত্ব নিই, তাহলে অনেক মানুষকে সহায়তা করা যাবে।’

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন