বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
default-image

বর ও কনেপক্ষের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, সম্প্রতি লুৎফর রহমান ফারুকী ও খাদিজা পারভীন লিপি বিয়ে করতে সম্মত হন। অভয়নগর উপজেলার পুড়াখালী মহিলা মাদ্রাসার সুপার আশেক এলাহী এ বিয়ের মধ্যস্থতা করেন। সোমবার বেলা আড়াইটায় লুৎফর রহমান ফারুকী হেলিকপ্টারে করে ঢাকা থেকে অভয়নগরের দিঘিরপাড় গ্রামে আসেন। বিয়ে করে ওই দিন বিকেলে স্ত্রীকে নিয়ে আবার হেলিকপ্টারে করে ঢাকায় ফিরে যান। খাদিজা পারভীনের আগের পক্ষের দুই ছেলেও মায়ের সঙ্গে হেলিকপ্টারে করে ঢাকায় যান।

এ বিয়ের বিষয়ে লুৎফর রহমান ফারুকী বলেন, ‘আমার প্রথম স্ত্রী ও তিন সন্তান আছে। প্রথম স্ত্রীর সঙ্গে আলোচনা করে তাঁর সম্মতি নিয়ে দ্বিতীয় বিয়ে করেছি। আমি খুবই ব্যস্ত মানুষ, সময় বাঁচাতে হেলিকপ্টার করে বিয়ে করতে গিয়েছি।’

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন