default-image

১৪ ফেব্রুয়ারি ভালোবাসা দিবসে রাজশাহীর বাগমারার তাহেরপুর পৌরসভার নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। এ উপলক্ষে পৌরসভার এক হাজার ভোটারকে শুভেচ্ছাস্বরূপ ফুল দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছে আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী আবুল কালাম আজাদের নির্বাচন পরিচালনা কমিটি। গতকাল বুধবার রাতে এক অনুষ্ঠানে এই ঘোষণা দেওয়া হয়। তবে বিএনপি প্রার্থীর পক্ষ থেকে এমন কোনো উদ্যোগ নেই।

চতুর্থ ধাপে ১৪ ফেব্রুয়ারি তাহেরপুর পৌরসভার নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। নির্বাচনে মোট ১৪ হাজার ৬১৯ জন ভোটার ভোট দেবেন। পৌরসভার নয়টি ওয়ার্ডের ১০০ জন করে ৯০০ জন এবং আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থীর কাছ থেকে ১০০ জনসহ মোট ১ হাজার ভোটারকে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানানো হবে ভোট দেওয়ার পর।

বিজ্ঞাপন

গতকাল রাতে পৌরসভার ২ নম্বর ওয়ার্ডের ‘সম্প্রীতি ক্রীড়া চক্র’ নামে একটি সংগঠনের উদ্যোগে আয়োজিত নির্বাচন পরিচালনা কমিটির পরিচিতি সভায় এই ঘোষণা দেওয়া হয়। অনুষ্ঠানের বিশেষ অতিথি ও নির্বাচন পরিচালনা কমিটির সভাপতি, পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি আবু বাক্কার মৃধা মুনসুর রহমান বলেন, বিভিন্ন কেন্দ্র থেকে ভোট দিয়ে বেরিয়ে আসা ৯০০ নারী ও পুরুষ ভোটারের হাতে রজনীগন্ধা ফুল তুলে দেওয়া হবে। আর মেয়র প্রার্থী আবুল কালাম আজাদ ১০০ জনের হাতে লাল গোলাপ তুলে দেবেন। এ ক্ষেত্রে দল-মত বিবেচনা করা হবে না।

অনুষ্ঠানে আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী আবুল কালাম আজাদ বলেন, ভোট দেওয়ার আগে নয়, পরে ফুল দেওয়া হবে; যাতে ভোটের সুষ্ঠু পরিবেশ বিঘ্নিত ও বিতর্কের সৃষ্টি না হয়।

বিএনপির মেয়র প্রার্থী আবু নঈম শামুসর রহমান ওরফে মিন্টুর কাছে এমন কোনো উদ্যোগ আছে কি না, জানতে চাইলে বলেন, তাঁর এ ধরনের কোনো উদ্যোগ নেই। তবে সব ভোটারের প্রতি ভালোবাসা দিবসের শুভেচ্ছা জানান তিনি।

উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা গোলাম মোস্তফা প্রথম আলোকে বলেন, এটা নির্বাচন আচরণবিধি লঙ্ঘনের মধ্যে পড়ে না। শুভেচ্ছা ও ভালোবাসা জানানো যেতে পারে। তবে পরিবেশ বিঘ্নিত যাতে না হয়, সেদিকে নজর রাখতে হবে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন