default-image

বরগুনা সদর উপজেলার ফুলঝুরি লঞ্চঘাটের পন্টুন ১৫ দিন ধরে বিষখালী নদীতে ডুবে আছে। একটি লঞ্চের ধাক্কায় পন্টুন ছিদ্র হয়ে যাওয়ার পর থেকে এমন দশা হয়েছে। বন্দর কর্তৃপক্ষ বলছে, ধাক্কা দেওয়া লঞ্চের কর্তৃপক্ষের পন্টুন সংস্কার করে দেওয়ার কথা।

এদিকে পন্টুন ডুবে থাকার ফলে দুই সপ্তাহ ধরে নদীর চরে যাত্রী ও পণ্যবাহী লঞ্চগুলো ভেড়ানো হচ্ছে। এতে পারাপার ও মালামাল ওঠানামা নিয়ে বিপাকে পড়তে হচ্ছে যাত্রী-ব্যবসায়ীদের।

বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন অধিদপ্তরের (বিআইডব্লিউটিএ) বরগুনা কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, নিমজ্জিত পন্টুনের স্থানে একটি নতুন পন্টুন ইতিমধ্যে বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে, যত দ্রুত সম্ভব তা স্থাপন করা হবে। বর্তমানে প্রতিদিন এই ঘাটের দক্ষিণ পাশে নদীর চরে লঞ্চ ভিড়ছে।

ঢাকা বরগুনা নৌপথে চলাচলকারী রাজারহাট বি লঞ্চের মাস্টার ফারুক হোসেন বলেন, পন্টুন না থাকায় নদীর চরে লঞ্চ ভেড়াতে বিপাকে পড়তে হয়। জোয়ার–ভাটার কারণে নদীর তীর থেকে প্রায় ১০০ ফুট দূরে কাদাপানিতে নামতে হয়।

বরগুনা নদীবন্দর কর্মকর্তা মামুন অর রশিদ বলেন, ডুবে থাকা পন্টুন উদ্ধারের চেষ্টা চলছে। পন্টুন একটি লঞ্চের ধাক্কায় ভেঙে গিয়ে পানিতে ডুবে গেছে। ধাক্কা দেওয়া লঞ্চটির কর্তৃপক্ষ এটি সংস্কার করে দেবে।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0