হানার চর এলাকার জেলে আবদুর রহমান বলেন, ‘আমার জালে সাত থেকে আট কেজি ওজনের দুইটা পাঙাশ ছাড়া বড় আকারের একটি গ্রাসকাপ এবং পাঁচ থেকে ছয় কেজি ইলিশ উঠেছে। আমরা খুশি।’

জেলা মৎস্য কর্মকর্তা গোলাম মেহেদী বলেন, গতকাল শুক্রবার রাত ১২টার পর থেকে নদীতে মাছ ধরতে নেমেছেন চাঁদপুরের ৫১ হাজার জেলে। তাদের দাবি, নদীতে প্রচুর ইলিশ পাওয়া যাচ্ছে। কারণ, এবার তাদের মা ইলিশ রক্ষা অভিযান সফল হয়েছে। তাদের অভিযান সফল করতে জেলা প্রশাসন গঠিত টাস্কফোর্স দল, নৌ বাহিনী, কোস্টগার্ড, নৌ পুলিশ ও জেলা পুলিশ যৌথ ও পৃথক দিনরাত ব্যাপক অভিযান পরিচালনা করে।

নৌ পুলিশের চাঁদপুর অঞ্চলের পুলিশ সুপার মোহাম্মদ কামরুজ্জামান বলেন, মা ইলিশ রক্ষায় চাঁদপুর অঞ্চলে গত ২২ দিনে ৬ হাজার ৭৮৯ কেজি ইলিশসহ ১ হাজার ১৮৯ জন জেলেকে আটক করে। এ সময় ৪০ কোটি ৫০ লাখ ৮৭ হাজার ৮৭৭ মিটার কারেন্ট জাল, ৪৮১টি নৌকা, ৮টি ট্রলার ও ৪টি স্পিডবোট জব্দ করে।

৭ অক্টোবর থেকে ২৮ অক্টোবর পর্যন্ত মা ইলিশ রক্ষায় মাছ ধরায় নিষেধাজ্ঞা ছিল।