আজ বৃহস্পতিবার সকালে জিএমপির কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে গাজীপুর মহানগর পুলিশ কমিশনার মোল্যা নজরুল ইসলাম গ্রেপ্তারের বিষয়টি নিশ্চিত করেন।
আটক ব্যক্তিরা হলেন গাজীপুর কালিয়াকৈর উপজেলার হরিণহাটি গ্রামের নাসির মৃধা, ময়মনসিংহের গৌরীপুর এলাকার মারুফ হাসান, একই এলাকার জাহিদুল ইসলাম, আশিকুর রহমান, কাউসার হোসেন, রুবেল হোসেন, আশিকুল হক, আকরাম হোসেন ও মুরাদ হাসান।

গাজীপুর মহানগর পুলিশ কমিশনার মোল্যা নজরুল ইসলাম বলেন, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে প্রথমে নাসির মৃধা নামের এক জুয়াড়িকে গ্রেপ্তার করা হয়। পরে তাঁর দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে দেশের বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে আরও আটজনকে গ্রেপ্তার করা হয়। ফুটবল ও ক্রিকেট খেলাকে কেন্দ্র করে এসব জুয়াড়িরা জুয়ায় লিপ্ত হয়ে সারা দেশে ১ হাজার ৫০০ মাস্টার মাইন্ডের মাধ্যমে বিভিন্ন অ্যাপস ব্যবহার করে দেশের টাকা বিদেশে পাচার করে আসছেন।

সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়, বাংলাদেশে প্রায় ১ হাজার ৫০০টি মাস্টার এজেন্টের মাধ্যমে ১ মাসে ৩ হাজার কোটি টাকার অধিক লেনদেন করে, যা বাংলাদেশ থেকে হুন্ডির মাধ্যমে বিদেশে পাচার করা হচ্ছে। ফলে দেশ থেকে পাচার হচ্ছে বিপুল পরিমাণ বৈদেশিক মুদ্রা। গ্রেপ্তার আসামিদের বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে এবং মানি লন্ডারিং আইনে মামলা দিয়ে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।