বিএনপির সমালোচনা করে হানিফ বলেন, রাষ্ট্রক্ষমতায় থাকতে বিএনপি হাওয়া ভবনকে ‘খাওয়া ভবন’ বানিয়ে লুটপাট করে দেশকে ধ্বংস করেছিল। দেশবাসী সেটা দেখেছে। কোনো কথা বলার আগে বিএনপি তাদের আয়নায় নিজেদের চেহারা দেখে লজ্জিত হওয়া উচিত। বিএনপি নিজেই একটা দুর্নীতিবাজ দল হয়ে সেই দলের নেতারা কীভাবে অন্যের দুর্নীতি খুঁজে বেড়ায়? এটা জাতির কাছে হাস্যকর।

নির্বাচন কমিশনের সংলাপে বিষয়ে হানিফ বলেন, কোনো দল যদি নির্বাচন কমিশনের সংলাপে না যায়, সেটা তাদের ব্যাপার। এটা নিয়ে সংকটের কোনো কারণ নেই। যাদের নির্বাচন করার সক্ষমতা আছে, তারা অবশ্যই আগামী সংসদ নির্বাচনে অংশগ্রহণ করবে। নির্বাচন অধিক গ্রহণযোগ্য ও ত্রুটিমুক্ত করার জন্য নির্বাচন কমিশন রাজনৈতিক দলের সঙ্গে বৈঠক করছে। কোনো দল সেখানে যদি না যায় বা মতামত না দেয়, সেটা তাদের ব্যাপার। তার মানে এই নয় যে তাদের বাদ দিয়ে নির্বাচন হবে। কেউ মতামত না দিলে নির্বাচনই হবে না, এমনটাও নয়।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন কুষ্টিয়া-১ আসনের সংসদ সদস্য আ ক ম সরওয়ার জাহান, কুষ্টিয়া-৪ আসনের সংসদ সদস্য সেলিম আলতাফ, জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ সাইদুল ইসলাম, পুলিশ সুপার খাইরুল আলম প্রমুখ।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন