মৃতের স্বজনদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, উম্মে আমিমা স্বজনদের সঙ্গে সদর উপজেলার যশোদল বড়খালপাড় এলাকায় তাঁর মামার বিয়েতে গিয়েছিলেন। সকাল ১০টার দিকে পাশের যশোদল বিলে আট সহপাঠীর সঙ্গে নৌকা নিয়ে বেড়াতে যান। নৌকাটি অনেক দূরে যাওয়ার পর তলদেশে ছিদ্র থাকায় দ্রুত সেটিতে পানি উঠতে শুরু করে।

তীরে ফেরার আগেই নৌকাটি পানিতে তলিয়ে যায়। তখন অন্য সহপাঠীরা সাঁতরে তীরে উঠতে পারলেও সাঁতার না জানা উম্মে আমিমা পানিতে তলিয়ে যান। অনেক খোঁজাখুঁজির পর বেলা সাড়ে ১১টার দিকে এলাকার বাসিন্দারা উম্মে আমিমাকে উদ্ধার করে শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন।

অন্যদিকে এ ঘটনায় আহত লিন্ডা বর্তমানে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। তাঁর অবস্থা স্থিতিশীল বলে স্বজনেরা জানিয়েছেন। কিশোরগঞ্জ সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ দাউদ নৌকাডুবিতে মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন