মামলায় বলা হয়, বিএনপির সাধারণ সম্পাদক ইকবাল হোছাইন মগনামা ইউপি চেয়ারম্যান ইউনুছ চৌধুরীর প্রত্যক্ষ মদদে প্রধানমন্ত্রীকে কটূক্তি করেছেন। এ ছাড়া ইউনুছ চৌধুরী বক্তব্যটির ডিজিটাল কনটেন্ট তৈরিতে সহযোগিতা করেন। ফরহাদ হোছাইন ও আমিনুল কবির রানা ডিজিটাল ডিভাইসে রেকর্ড করেন। আবু তাহের বক্তব্যটি ফেসবুকে ছেড়ে দেন।

আদালতের অতিরিক্ত সরকারি কৌঁসুলি ফখরুল ইসলাম বলেন, মামলায় ইউনুছ চৌধুরী ও আমিনুল কবির হাইকোর্ট থেকে সাত সপ্তাহের জামিনে ছিলেন। জামিনের মেয়াদ শেষ হলে আজ ওই দুজন কক্সবাজার অতিরিক্ত চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে আত্মসমর্পণ করলে আদালত তাঁদের জামিন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন