কামাল হোসেন বলেন, ‘সংবিধান সরকারের ওপর ছেড়ে দেওয়া হয়নি। সংবিধানে “সকল ক্ষমতার মালিক জনগণ” লেখার মাধ্যমে বাংলাদেশের জনগণকে সর্বোচ্চ সম্মান দেওয়া হয়েছে। মহান মুক্তিযুদ্ধে মানুষ যে চেতনা নিয়ে ঝাঁপিয়ে পড়েছিল, সংবিধানের চার মূলনীতিতে তার বহিঃপ্রকাশ ঘটেছে। এখানে আমাদের অতীত লড়াই ও ভবিষ্যৎ অভিযাত্রা ছিল। সংবিধান রক্ষায় ও গণতন্ত্র শক্তিশালী করতে সবাইকে সোচ্চার ভূমিকা পালন করতে হবে।’

বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতি বিভাগের অধ্যাপক আনু মুহাম্মদ বলেন, ‘প্রজাতন্ত্রের মালিক জনগণ’ বর্তমানে একটি আপ্তবাক্যে পরিণত হয়েছে। এটি এখন শুধু বলার জন্য বলা হয়ে থাকে। সংবিধানের বেশির ভাগ সংশোধনী শাসকগোষ্ঠীর ইচ্ছায় হয়েছে, জনগণের ইচ্ছায় নয়।

বিশ্ববিদ্যালয়ের সরকার ও রাজনীতি বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক শাকিল আহমেদের সঞ্চালনায় আলোচনা সভায় অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সমাজবিজ্ঞান অনুষদের ভারপ্রাপ্ত ডিন অধ্যাপক আকবর হোসেন, সরকার ও রাজনীতি বিভাগের সাবেক অধ্যাপক নাসিম আখতার হোসাইন, সেন্টার ফর গভর্ন্যান্স স্টাডিজের সভাপতি অধ্যাপক মহিউদ্দিন আহমেদ প্রমুখ।