আজ ক্যাম্পাসে গিয়ে দেখা গেছে, বেলা ১১টায় অধিকাংশ বিভাগে ক্লাস শুরু হয়। প্রতিটি বিভাগ নবীন শিক্ষার্থীদের ছোট পরিসরে ফুল দিয়ে বরণ করে নেয়। শিক্ষার্থীদের সঙ্গে পরিচিত হয়ে শিক্ষকেরা দিকনির্দেশনামূলক বক্তব্য দেন। ওরিয়েন্টেশন ক্লাস শেষে দুপুরের পর শিক্ষার্থীরা দল বেঁধে ক্যাম্পাসে বের হন। বিশ্ববিদ্যালয়ের প্যারিস রোডে ছবি তোলেন। বিভাগের জ্যেষ্ঠরা বিভিন্ন খাবারের দোকানে নিয়ে গিয়ে শিক্ষার্থীদের খাইয়েছেন। টুকিটাকি চত্বরে খাবারের দোকানগুলোতে শিক্ষার্থীদের আড্ডা জমে ওঠে।

বিশ্ববিদ্যালয়ে দর্শন বিভাগে ভর্তি হয়েছেন মো. সোহান। তিনি প্রথম আলোকে বলেন, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় তাঁর অনেক ভালো লাগে। তিনি ঢাকায় পড়েছেন। এখানকার প্রকৃতি-পরিবেশ দেখার মতো। প্রথম দিন তাঁর ভালো কেটেছে।

আইন বিভাগে ভর্তি হওয়া আশরাফুল ইসলাম বলেন, তাঁর প্রথম ক্লাস শুরু হয় দুপুর ১২টায়। শিক্ষকেরা এসে তাঁদের বরণ করে নেন। ফুল তুলে দেন হাতে। পরে হালকা নাশতা করান। এরপর বিভাগের বড় ভাইবোনেরা এসে তাঁদের সঙ্গে কথা বলেছেন।

বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য গোলাম সাব্বির সাত্তার নবীনদের স্বাগত জানিয়ে বলেন, যে অধ্যবসায়, নিষ্ঠা ও একাগ্রতার মাধ্যমে তাঁরা উচ্চশিক্ষার জন্য ক্যাম্পাসে এসেছেন; একই প্রত্যয়ে তাঁরা উচ্চশিক্ষা গ্রহণ করে দেশ ও জাতিকে আলোকিত করবেন এবং বাংলাদেশকে আরও এগিয়ে নিয়ে যাবেন। তাঁরা দেশ ও জাতির স্বপ্নপূরণের কারিগর হবেন বলে উপাচার্য আশা ব্যক্ত করেন।