খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের জনসংযোগ ও প্রকাশনা দপ্তরের পরিচালক (ভারপ্রাপ্ত) এস এম আতিয়ার রহমান জানান, ভর্তি পরীক্ষা সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করার জন্য সভায় বেশ কিছু সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এগুলো হলো খুলনা বিশ্ববিদ্যালয় উপকেন্দ্রে পরীক্ষার্থীরা মোবাইল ফোনসহ কোনো প্রকার ইলেকট্রনিক ডিভাইস, ব্যাগ ও বই নিয়ে প্রবেশ করতে পারবেন না। বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ফটক দিয়ে তাঁদের ক্যাম্পাসে প্রবেশ করতে হবে। কোনো অভিভাবক বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাসে প্রবেশ করতে পারবেন না। ভর্তি পরীক্ষা চলাকালে গল্লামারী ব্রিজের পশ্চিম পাশ থেকে জিরোপয়েন্ট পর্যন্ত সকাল ১০টা থেকে বেলা ২টা পর্যন্ত সব ধরনের যানবাহন চলাচল বন্ধ থাকবে। তবে বিশ্ববিদ্যালয়ের যানবাহন প্রবেশ করতে পারবে।

সভায় বিশ্ববিদ্যালয়ের যেসব শিক্ষক, কর্মকর্তা-কর্মচারী ব্যক্তিগত যানবাহন ব্যবহার করেন, তাঁদের যানবাহনে বিশ্ববিদ্যালয়ের মনোগ্রামযুক্ত স্টিকার লাগানোর পরামর্শ দেওয়া হয়। ক্যাম্পাস ও ক্যাম্পাসের বাইরে আশপাশের নিরাপত্তা ও শৃঙ্খলা রক্ষায় অতিরিক্ত পুলিশ, গোয়েন্দা সংস্থা, র‍্যাব ও সাদাপোশাকে নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যরা দায়িত্ব পালন করবেন বলে সভায় জানানো হয়।

এস এম আতিয়ার রহমান বলেন, গুচ্ছ পদ্ধতিতে স্নাতক প্রথম বর্ষে ক ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা ৩০ জুলাই খুলনা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস ছাড়াও রেভারেন্ড পলস্ হাইস্কুল ও হোপ পলিটেকনিক উপকেন্দ্রে অনুষ্ঠিত হবে। এদিন বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে ৫ হাজার ৪২৪ জন, রেভারেন্ড পলস্ হাই স্কুলে ১ হাজার ৫১২ জন ও হোপ পলিটেকনিক উপকেন্দ্রে ৮২৮ জন পরীক্ষার্থীর আসনের ব্যবস্থা করা হয়েছে। এ ছাড়া আগামী ১৩ আগস্ট খ ইউনিট এবং ২০ আগস্ট গ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা শুধু খুলনা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে অনুষ্ঠিত হবে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার (ভারপ্রাপ্ত) অধ্যাপক খান গোলাম কুদ্দুসের সঞ্চালনায় সভায় উপস্থিত ছিলেন সহ–উপাচার্য অধ্যাপক মোসাম্মাৎ হোসনে আরা, ছাত্রবিষয়ক পরিচালক অধ্যাপক মো. শরীফ হাসান, খুলনা মেট্রোপলিটন পুলিশের উপকমিশনার (দক্ষিণ) মোহাম্মদ আনোয়ার হোসেন, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) মুকুল কুমার মৈত্র, পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক (চলতি দায়িত্ব) শেখ শারাফাত আলী প্রমুখ।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন