থানা–পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, নিম্ন আয়ের মানুষকে স্বস্তি দিতে সরকারের ওএমএস কার্যক্রমের আওতায় সারা দেশে চাল ও আটা বিক্রি চলছে। তবে বিশ্বাস স্টোরের মালিক সাইফুল ইসলাম অবৈধভাবে ওএমএসের চাল মজুত করেছিলেন এবং বেশি দামে ওই চাল ক্রেতাদের কাছে বিক্রি করছিলেন। পরে স্থানীয় লোকজনের মাধ্যমে খবর পেয়ে থানার পুলিশ সেখানে অভিযান চালায়।

গাজীপুর মেট্রোপলিটন সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. জিয়াউল ইসলাম বলেন, রাতে অভিযান চালানোর পর তাৎক্ষণিকভাবে চালের বস্তাগুলো পরিবহন করা সম্ভব হয়নি। তবে বস্তাগুলো ওই বাজার কমিটির সভাপতি ও সম্পাদকের হেফাজতে রাখা হয়েছে। আজ মঙ্গলবার বস্তাগুলো থানা হেফাজতে নিয়ে আসা হবে।