রাজধানীর ঐতিহাসিক সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে ১১ নভেম্বর যুবসমাবেশ সফল করার লক্ষ্যে আজ রোববার দুপুরে গাজীপুরে ভাওয়াল কনভেনশন সেন্টারে অনুষ্ঠিত এক প্রস্তুতি সভায় সভাপতির বক্তব্যে এসব কথা বলেন নিক্সন চৌধুরী। তিনি বলেন, ‘১১ নভেম্বর ঢাকায় যুবলীগের জনসভায় বিএনপি-জামায়াত জোট ও স্বাধীনতাবিরোধী শক্তিকে দেখিয়ে দিতে চাই যে আপনাদের জন্য আওয়ামী লীগের নামার দরকার নেই। আপনাদের জন্য আমাদের অন্য কোনো সংগঠন নামার দরকার নেই। শেখ হাসিনার নির্দেশে আপনাদের জন্য শেখ ফজলে শামস পরশের যুবলীগই যথেষ্ট।’

কেন্দ্রীয় যুবলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সুব্রত পালের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন যুবলীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য মামুনুর রশিদ, কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক রফিকুল আলম জোয়ার্দার, কেন্দ্রীয় যুবলীগের প্রচার সম্পাদক জয়দেব নন্দীসহ গাজীপুর মহানগর, গাজীপুর জেলা ও টাঙ্গাইল জেলা যুবলীগের নেতারা।

সম্মেলনের বিষয়ে মুজিবুর রহমান আরও বলেন, ‘ঢাকা শহরের বিগত আন্দোলনগুলোয় দেখেছি, ঢাকার মাঠ, জনসভাস্থল তখনই পরিপূর্ণ হয়, যখন সেখানে গাজীপুরের লোকজন পৌঁছায়। তাই কেন্দ্রীয় সিদ্ধান্ত অনুযায়ী সবার আগে গাজীপুর থেকে ওই সমাবেশের প্রস্তুতি সভা শুরু করা হলো। পরে অন্যান্য জেলায় এ রকম প্রস্তুতি সভা হবে।’ ঢাকায় যুব যুবলীগের সমাবেশে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আসার সম্মতি দিয়েছেন বলে জানিয়েছেন নিক্সন।