ফায়ার সার্ভিসের কর্মীদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, গতকাল রাত সাড়ে আটটার দিকে আলমনগর হাউজিংয়ের ভেতর তিনতলা ওই ভবনের তৃতীয় তলায় আগুন লাগে। খবর পেয়ে হেমায়েতপুর চামড়া শিল্পনগরী ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা ঘটনাস্থলে পৌঁছে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনেন।

এ বিষয়ে কথা বলতে আজ রোববার সকালে উপজেলা সহকারী সেটেলমেন্ট কর্মকর্তা সুশান্ত কুমার রায়ের মুঠোফোনে একাধিকবার কল করা হলে তা বন্ধ পাওয়া যায়।

হেমায়েতপুর চামড়া শিল্পনগরী ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন কর্মকর্তা এস এম শহিদুল ইসলাম বলেন, সেটেলমেন্ট অফিসের তৃতীয় তলার বারান্দায় চা তৈরির কক্ষে আগুন লাগে। সেখানে ভূমি ডিজিটাল জরিপের অফিসের কাগজপত্র রাখা ছিল। সেগুলো পুড়ে গেছে। এ ছাড়া একটি কম্পিউটারও পুড়ে গেছে। তবে রেকর্ড রুমের কোনো ক্ষতি হয়নি। এ ঘটনায় ওই অফিসের আনোয়ার হোসেন নামের এক নৈশপ্রহরী সামান্য দগ্ধ হয়েছেন। তাঁকে ঢাকায় শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে পাঠানো হয়। তিনি আরও বলেন, চা তৈরির কক্ষে এলপিজি গ্যাসের সিলিন্ডার ছিল। ওই কক্ষ থেকেই অগ্নিকাণ্ড টেছে বলে প্রাথমিক তদন্তে জানা গেছে।