হাসপাতালের ২৫ নম্বর ওয়ার্ডটি নবজাতকদের চিকিৎসার জন্য নির্ধারিত। ওই ওয়ার্ডে ভর্তি হওয়া অনেক নবজাতকের নাম রাখা হয় না। সেখানে মায়ের নাম যুক্ত করে নবজাতককে ভর্তি করা হয়। নবজাতকের এখনো নাম রাখা হয়নি। সে ‘বেবি অব রত্না’ নামে ভর্তি আছে বলে জানিয়েছেন চিকিৎসক নজরুল ইসলাম।

১৬ জুলাই বিকেলে ময়মনসিংহের ত্রিশাল উপজেলায় ট্রাকের চাপায় নিহত হন নবজাতকটির মা রত্না বেগম (৩২), বাবা জাহাঙ্গীর আলম ও ছয় বছর বয়সী বোন সানজিদা। ওই সময় সড়কে নবজাতকের জন্ম হয়।

নবজাতকের জন্মের পর তার চিকিৎসার দায়িত্ব নেন ময়মনসিংহের বেসরকারি লাবীব হাসপাতালের মালিক মো. শাহ জাহান। তিনি শিশুটিকে লাবীব হাসপাতালে রেখেই চিকিৎসা করাচ্ছিলেন। তবে গত সোমবার রাতে নবজাতকের রক্তে বিলিরুবিনের মাত্রা বেশি হওয়ায় তাকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তার চিকিৎসায় ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের চিকিৎসকদের নিয়ে পাঁচ সদস্যের মেডিকেল বোর্ড গঠন করা হয়েছে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন