পুলিশ ও এলাকাবাসী জানায়, রাতে জাহেদ নিজের বাড়ির পাশে কুসুম আলীর চায়ের দোকানে বসে আড্ডা দিচ্ছিলেন। এ সময় মুখোশধারী ৮ থেকে ৯ জন তাঁর ওপর অতর্কিতে হামলা চালায়। তাঁকে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে আহত করা হয়। পরে কয়েকটি গুলি করে দুর্বৃত্তরা। এর মধ্যে একটি গুলি তাঁর বাঁ পায়ে লাগে। দোকানের পাশে রাখা তাঁর মোটরসাইকেল নিয়ে দুর্বৃত্তরা পালিয়ে যায়। পরে স্থানীয় লোকজন এসে তাঁকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যান।

লক্ষ্মীপুর সদর হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক মো. আরমান হোসেন বলেন, জাহেদের বাঁ পায়ে শটগানের গুলি লেগেছে। শটগানের স্প্লিন্টার তাঁর ডান পাসহ শরীরের বিভিন্ন স্থানে লেগেছে। এ ছাড়া তাঁর মাথাসহ শরীরের বিভিন্ন স্থানে ধারালো অস্ত্র দিয়ে আঘাত করা হয়েছে। তাঁকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে ঢাকার পঙ্গু হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

চন্দ্রগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. মোসলেহ উদ্দিন এক প্রবাসী গুলিবিদ্ধ হওয়ার খবরের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, ঘটনার সঙ্গে জড়িত ব্যক্তিদের চিহ্নিত করে আটকের চেষ্টা চলছে। কারা কী কারণে হামলা করেছে, তা এখনো জানা যায়নি। ঘটনার তদন্ত চলছে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন