বিকাশের কালীগঞ্জ উপজেলার সুপারভাইজার আবদুস ছালাম জানান, আবদুস ছালাম বিকাশের বিভিন্ন এজেন্টের কাছ থেকে টাকা উত্তোলনের কাজ করেন। আজ দুপুরে মোটরসাইকেল চালিয়ে কালীগঞ্জ শহর থেকে গান্না সড়ক ধরে কোটচাঁদপুর উপজেলার জালালপুর বাজারে টাকা তোলার জন্য যাচ্ছিলেন তিনি। পথে দইঝুড়ি মোড়ে পৌঁছালে তাঁর চোখে ধুলো ছিটিয়ে মোটরসাইকেল থেকে ফেলে দেওয়া হয়। পরে চার ব্যক্তি এসে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে জখম করে তাঁর ব্যাগে থাকা ৫ লাখ টাকা ছিনিয়ে নিয়ে চলে যান। আবদুস ছালাম বলেন, তাঁরা এ বিষয়ে মামলার প্রস্তুতি নিচ্ছেন।

চার ব্যক্তি ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে জখম করে তাঁর ব্যাগে থাকা ৫ লাখ টাকা ছিনিয়ে নিয়ে চলে যান।

কালীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসক আরিফুল ইসলাম জানান, মামুন নামের ওই ব্যক্তির শরীরের পাঁচ জায়গায় ধারালো অস্ত্রের আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। এর মধ্যে ডান হাতের বেশ কয়েকটি স্থান কেটে গেছে। যে কারণে তাঁকে উন্নত চিকিৎসার জন্য যশোর পাঠানো হয়েছে।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে ঝিনাইদহ সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শেখ সোহেল রানা বলেন, বিষয়টি এখনো জানেন না। লিখিত অভিযোগ পাননি। তবে খোঁজখবর নিয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানান।